অর্ডিনারি আইটি https://www.ordinaryit.com/2022/10/robiul-awal-date.html

১২ই রবিউল আউয়াল ২০২২ কত তারিখ - ঈদে মিলাদুন্নবী 2022

১২ই রবিউল আউয়াল ২০২২ কত তারিখ? বা ১২ই রবিউল আউয়াল কত তারিখ? ১২ ই রবিউল আউয়াল ২০২২ হলো  ৯ অক্টোবর ২০২২। ১২ ই রবিউল আউয়াল সংক্রান্ত বিভিন্ন তথ্য নিচে উল্লেখ করা হবে। রবিউল আউয়াল সংক্রান্ত গুরুত্বপূর্ণ তথ্যগুলো জানতে পুরো আর্টিকেলটি পড়তে থাকুন।

পেজ সূচিপত্র: ১২ই রবিউল আউয়াল ২০২২ কত তারিখ? 

১২ই রবিউল আউয়াল ২০২২ কত তারিখ? - ১২ ই রবিউল আউয়াল ২০২২: উপস্থাপনা

১২ ই রবিউল আউয়াল ঘনিয়ে আসলে কিছু কিছু মানুষের আনন্দ বেড়ে যায় এবং তারা ঈদে মিলাদুন্নবী পালন করার জন্য তোড়জোড় শুরু করে। যেহেতু রবিউল আউয়াল মাস ইতোমধ্যেই আমাদের মাঝে উপস্থিত হয়েছে তাই অনেকেই বারই রবিউল আউয়াল অনুসন্ধান করছেন। 

১২ই রবিউল আউয়াল ও ঈদে মিলাদুন্নবী নিয়ে আরও কিছু পোস্ট

১২ই রবিউল আউয়াল ২০২২ কত তারিখ তা নিচে তুলে ধরা হয়েছে। চলুন দেখে নেয়া যাক ১২ ই রবিউল আউয়াল ২০২২ কবে?, ১২ই রবিউল আউয়াল কত তারিখ?, 12 rabi ul awal 2022 date, এবং ১২ ই রবিউল আওয়াল ২০২২ কবে? 

১২ই রবিউল আউয়াল ২০২২ কত তারিখ? - ১২ ই রবিউল আউয়াল ২০২২

আপনি যদি জানতে চান যে, ১২ই রবিউল আউয়াল ২০২২ কত তারিখ বা ১২ ই রবিউল আউয়াল ২০২২ কবে?, ১২ই রবিউল আউয়াল কত তারিখ?, 12 rabi ul awal 2022 date, এবং ১২ ই রবিউল আওয়াল ২০২২ কবে? তাহলে শরীফ জায়গাতে এসেছেন। নিচে উল্লেখ করা হবে এবছর ১২ ই রবিউল আউয়াল কত তারিখে।
তারিখের ভিন্নতার কারণে বিশ্বের সব জায়গায় একই সাথে ১২ ই রবিউল আউয়াল অনুষ্ঠিত হয় না। বাংলাদেশ, ভারত, পাকিস্তান অর্থাৎ ভারতীয় উপমহাদেশে আরবি তারিখ গণনা করা হয় সৌদি আরবসহ মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলো থেকে একদিন কম হিসেবে। 

বাংলাদেশের আরবী তারিখ অনুসারে এবছর ১২ ই রবিউল আউয়াল ২০২২ অনুষ্ঠিত হবে অক্টোবরের ৯ তারিখে আর ওয়াজ রবিবার। অর্থাৎ অক্টোবরের ৮ তারিখ শনিবার দিবাগত রাত্রে রবিউল আউয়াল পালন করা হবে। 

১২ই রবিউল আউয়াল কত তারিখ? - ঈদে মিলাদুন্নবীর ইতিহাস

১২ই রবিউল আউয়াল কত তারিখ? তা ইতোমধ্যেই উল্লেখ করা হয়েছে। এখানে তুলে ধরা হবে ঈদে মিলাদুন্নবীর ইতিহাস ঈদে মিলাদুন্নবী কোথা থেকে? এলো কিভাবে এলো? এবং ঈদে মিলাদুন্নবী পালন করা ইসলাম সম্মত কিনা? সে বিষয়ে সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য। 

অনেকেই বর্তমানে বারই রবিউল আওয়ালে ঈদে মিলাদুন্নবী পালন করে থাকে। এখন প্রশ্ন হলো এই ঈদে মিলাদুন্নবীর ইতিহাস কি? বা রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম এর প্রচলন ছিল? যদি না থাকে তাহলে কবে থেকে এর প্রচলন হলো? এ সকল প্রশ্নের উত্তর নিচে তুলে ধরা হবে।

ইতিহাস থেকে জানা যায় রাসূলুল্লাহ সাল্লাহু সাল্লাম এর যুগে এবং তারপর সাহাবী (রাঃ) যুগে এমন কি তাবেয়ী ও তাবে তাবেই দের আমলেও ঈদে মিলাদুন্নবীর প্রচলন ছিল না। পরবর্তীতে হিজরী ৪র্থ শতাব্দীর মাঝামাঝি সময় আল মুয়িজ্জু লি-দীনিল্লাহ ঈদে মিলাদুন্নবীর প্রচলন করেন।

ঈদে মিলাদুন্নবী মূলত ইহুদি ও খ্রিস্টানদের অনুকরণে তৈরি করা একটি অনুষ্ঠান। আল মুয়িজ্জু লি-দীনিল্লাহ ঈদে মিলাদুন্নবী সহ আরো পাঁচ ধরনের জন্মদিন চালু করেন যা ছিল মুসলিম জাতির জন্য ভয়াবহ কেননা এগুলো স্পষ্ট বেদাত। তাই ১২ই রবিউল আউয়াল কত তারিখ? বা ১২ ই রবিউল আওয়াল ২০২২ কবে? সে বিষয় নিয়ে হট উদ্বিগ্ন হওয়ার তেমন কোনো কারণ নেই। 

ভারতীয় উপমহাদেশে শিয়ারা বিভিন্ন নেতাদের সাথে ঈদে মিলাদুন্নবীর প্রচলন করেন। ভারতীয় উপমহাদেশে মুসলিম শাসকদের মধ্যে অধিকাংশই ছিল শিয়া মতালম্বী। সম্রাট হুমায়ুন সম্রাট জাহাঙ্গীরের রাষ্ট্রদূত এবং গিয়ে শেষ সম্রাট বাহাদুর শাহ ছিলেন এশিয়া এর ফলে তারা মিলাদ মিলাদুন্নবী সহ আরও বিভিন্ন ধরনের বেদাত সমাজে প্রচলন করেন।
মিলাদুন্নবীর ব্যাপারে প্রখ্যাত আলেমে গন যে সকল বক্তব্য প্রদান করেছেন তার মধ্যে অন্যতম একজন আলেম হলেন মাওলানা আব্দুর রহমান হানাফি (রঃ) ঈদে মিলাদুন্নবী সম্পর্কে তিনি বলেন, রাসূল সাল্লাল্লাহু সাল্লাম এর ইন্তেকালের দুইশ বছর পরে একজন পথভ্রষ্ট বাদশা ঈদে মিলাদুন্নবীর প্রচলন করেন। যে বাদশাহ কে ইতিহাসের ফাসিক বলা হয় বা ইতিহাসের মধ্যে পাপিষ্ঠ বাদশাহ বলা হয়। (সুন্নাত ও বিদআত- ২২৬ পৃ)

এ ব্যাপারে আল্লামা তাজউদ্দীন ফাকেহানী (রঃ) বলেন, ঈদে মিলাদুন্নবীর এই কুপ্রথা কুরআন বা হাদীসের কোথাও নেই। এবং এটি ইসলামের পূর্ববর্তী কোন আলেম থেকেও বর্ণিত নয়। সুতরাং এটা স্পষ্টতই একটি বিদআত কাজ যা বাতিলপন্থী দলগুলো নিজেদের স্বার্থ সিদ্ধির জন্য সৃষ্টি করেছে আর পরবর্তীতে তাদের পথভ্রষ্ট অনুসারীরা তা পালন করে চলেছে।  (বারাহীনে ক্বাত্বেআ- ১৬৪ পৃ)

এই ধরনের কুপ্রথা গুলো মূলত ইহুদী এবং খ্রিষ্টানদের ধর্ম থেকে পথভ্রষ্ট কিছু শাসকগণ ব্যক্তিবর্গের মাধ্যমে ইসলাম ধর্মে অনুপ্রবেশ ঘটেছে। তাই এধরনের কুপ্রথা থেকে মুসলিমদেরকে বিরত থাকতে হবে এবং অন্যকে এই ব্যাপারে সচেতন করতে হবে। কেননা ইসলামের বহির্ভূত কোন কাজ করলে তা অবশ্যই নিজের জন্য ক্ষতিকর এবং বড় ধরনের পাপ। 

১২ই রবিউল আউয়াল ২০২২ কত তারিখ বা ১২ ই রবিউল আউয়াল ২০২২ কবে?, ১২ই রবিউল আউয়াল কত তারিখ?, 12 rabi ul awal 2022 date, এবং ১২ ই রবিউল আওয়াল ২০২২ কবে? সে সম্পর্কে এই আর্টিকেলটিতে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়েছে। 

১২ ই রবিউল আওয়াল ২০২২ কবে? - 12 rabi ul awal 2022 date

১২ই রবিউল আউয়াল ২০২২ কত তারিখ? বা 12 rabi ul awal 2022 date সম্পর্কে উপরে বলা হয়েছে।তাই এখানে নতুন করে আর ১২ই রবিউল আউয়াল ২০২২ কত তারিখ? বা 12 rabi ul awal 2022 date বলার কিছু নেই। 

১২ই রবিউল আউয়াল ২০২২ কত তারিখ? বা 12 rabi ul awal 2022 date নিয়ে মুসলিমদের উদ্বিগ্ন হওয়ার কিছু নেই। কেননা এই দিবসের কোন বিশেষত্ব নেই বরং এটি একটি গর্হিত কাজ। ধরনের কাছ থেকে আমাদের সকলকেই বিরত থাকতে হবে। যা ইসলামে নেই তা পালন করার কোন প্রশ্নই আসে না। 
১২ই রবিউল আউয়াল ২০২২ কত তারিখ বা ১২ ই রবিউল আউয়াল ২০২২ কবে?, ১২ই রবিউল আউয়াল কত তারিখ?, 12 rabi ul awal 2022 date, এবং ১২ ই রবিউল আওয়াল ২০২২ কবে? আশা করি এই প্রশ্নের উত্তর ইতোমধ্যেই পেয়েছেন। 

১২ ই রবিউল আওয়াল ২০২২ কবে? - ১২ ই রবিউল আউয়াল ২০২২: শেষ কথা

১২ই রবিউল আউয়াল ২০২২ কত তারিখ বা ১২ ই রবিউল আউয়াল ২০২২ কবে?, ১২ই রবিউল আউয়াল কত তারিখ?, 12 rabi ul awal 2022 date, এবং ১২ ই রবিউল আওয়াল ২০২২ কবে? সে সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়েছে। একজন মুসলিম হিসেবে কখনোই আমাদের উচিত নয় কোরআন এবং হাদিসের বহির্ভূত কোন কাজ করা। 

যে কাজের কথা কোরআন এবং হাদীসে রয়েছে এবং পূর্ববর্তী ওলামায়ে কেরামগণ করে গেছেন আমরা কেবল মাত্র সেই কাজ গুলোই করব। এর বাহিরে যা কোরআন এবং হাদিসে নেই এ ধরনের কোন আমল করবো না। কেননা সওয়াব এর উদ্দেশ্যে কুরআন এবং হাদীসের উপর আমল করা বেদাত। 

তাই যেকোনো ধরনের আমল করার পূর্বে অবশ্যই আমাদেরকে যাচাই করে নিতে হবে যে তা কুরআন এবং হাদীস সম্মত কিনা? কোরআন এবং হাদিস সম্মত হলে নির্দ্বিধায় সেটা মেনে নেব। কিন্তু কোরান এবং হাদিস সম্মত না হলে কখনোই আমাদেরকে সেটা পালন করা যাবে না। ১৬৪১৩

পরিচিতদেরকে জানাতে শেয়ার করুন

0 Comments

দয়া করে নীতিমালা মেনে মন্তব্য করুন ??

অর্ডিনারি আইটি কী?