অর্ডিনারি আইটি https://www.ordinaryit.com/2022/08/shok.html

জাতীয় শোক দিবস অনুচ্ছেদ - জাতীয় শোক দিবস রচনা

প্রিয় পাঠক আজকের এই পোস্টে আমরা জাতীয় শোক দিবস অনুচ্ছেদ - জাতীয় শোক দিবস রচনা নিয়ে আলোচনা করব। এখন চলছে শোকের মাস আগস্ট। এই মাস বাঙালি জাতির জন্য একটি কলঙ্কময় দিন। আগস্ট মাসের ১৫ তারিখে বাঙালির স্বাধীনতার নায়ক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও তার পরিবারকে নির্মমভাবে হত্যা করা হয়। তাই আজকের এই পোস্টে আমরা জাতীয় শোক দিবস অনুচ্ছেদ নিয়ে আলোচনা করব।

আপনি যদি জাতীয় শোক দিবস অনুচ্ছেদ - জাতীয় শোক দিবস রচনা জানতে চান তাহলে সম্পূর্ণ পোস্টটি মনোযোগ সহকারে পড়ুন। তাহলে চলুন জাতীয় শোক দিবস অনুচ্ছেদ - জাতীয় শোক দিবস রচনা জেনে আসি।

১৫ই আগষ্ট জাতীয় শোক দিবস নিয়ে আরো পোস্ট


পেজ সূচিপত্রঃ জাতীয় শোক দিবস অনুচ্ছেদ - জাতীয় শোক দিবস রচনা

জাতীয় শোক দিবস

প্রিয় পাঠক আপনারা যারা এই পোস্টটি পড়েছেন তারা নিশ্চয়ই জাতীয় শোক দিবস অনুচ্ছেদ - জাতীয় শোক দিবস রচনা সম্পর্কে জানার জন্য গুগলের সার্চ করে আমাদের এই পোস্টটি ওপেন করেছেন। তাহলে আপনি সঠিক জায়গায় সে জন্য আজকের এই পোস্টে আমরা জাতীয় শোক দিবস অনুচ্ছেদ - জাতীয় শোক দিবস রচনা নিয়ে বিস্তারিত ভাবে আলোচনা করব। তাহলে চলুন জাতীয় শোক দিবস অনুচ্ছেদ - জাতীয় শোক দিবস রচনা জেনে আসি।

আরো পড়ুনঃ ঈদ মোবারক স্ট্যাটাস

আমরা সকলেই জানি ১৫ ই আগস্ট বাংলাদেশের জাতীয় শোক দিবস পালন করা হয়। কারণ ১৯৭৫ সালের এই দিনে আমাদের স্বাধীনতার মহানায়ক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও তার পুরো পরিবারকে নির্মমভাবে হত্যা করা হয়। তাই সকল বাঙালি এদিনটি অনেক শ্রদ্ধা ও ভালবাসার সাথে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও তার পরিবারকে স্মরণ করে। এবং এটি বাংলাদেশের জাতীয় শোক দিবস হিসেবে পালিত হয়।

জাতীয় শোক দিবস অনুচ্ছেদ

আপনারা যারা এই পোস্টটি পড়েছেন তারা নিশ্চয়ই জাতীয় শোক দিবস অনুচ্ছেদ - জাতীয় শোক দিবস রচনা জানার জন্য এই পোস্টটি ওপেন করেছেন। আজকের এই পোস্টে আমরা জাতীয় শোক দিবস অনুচ্ছেদ নিয়ে আলোচনা করব। আপনি যদি জাতীয় শোক দিবস অনুচ্ছেদ সম্পর্কে ধারণা পেতে চান তাহলে সম্পূর্ন পোস্ট পড়ুন। তাহলে চলুন জাতীয় শোক দিবস অনুচ্ছেদ জেনে আসি।

জাতীয় শোক দিবস অনুচ্ছেদঃ

বাংলাদেশের ইতিহাসে সবচেয়ে জনপ্রিয় নেতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে বাংলাদেশের স্বাধীনতার অসাংবাদিত নেতা বলা হয়। বাংলাদেশসহ বিশ্বের দরবারে সাহসী এবং অনেক জনপ্রিয় নেতা হয়ে উঠেছিল বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। তার নেতৃত্বেই ১৯৭১ সালে সকল বাঙালি মুক্তিযুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়ে।

আরো পড়ুনঃ দশটি শুভ সকাল সোমবার এর ছবি

বাঙালির এই নেতাকে ১৯৭৫ সালের ১৫ ই আগস্ট সপরিবারে হত্যা করা হয়। তাই পুরো বাঙালি জাতি এ দিনটিকে শোকের দিন হিসেবে পালন করে। বাঙালি জাতি এ দিনটির যন্ত্রণা বয়ে বেড়াচ্ছে দীর্ঘদিন ধরে। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর হত্যার পর সামরিক ও বেসামরিক যে সরকারই এসেছে কোন সরকারের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের হত্যা কারীদের কোনরকম খোঁজার চেষ্টা করেনি।

১৯৯৩ সালে আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতায় এসে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের হত্যার বিচারের কার্যক্রম শুরু করেন। এবং ১৫ ই আগস্ট জাতীয় শোক দিবস হিসেবে ঘোষণা করেন। এই দিন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কবরে সমাধি ও মিলাদ মাহফিল আয়োজন করা হয়।

জাতীয় শোক দিবস রচনা

আপনারা যারা এই পোস্টটি পড়েছেন তারা নিশ্চয় বিভিন্ন জায়গায় জাতীয় শোক দিবস রচনা প্রতিযোগিতা কিংবা পরীক্ষায় লেখার জন্য আমাদের এই পোস্টে ওপেন করেছেন। তাহলে আপনি সঠিক জায়গায় এসেছেন। আজকের এই পোস্টে আমরা ইতিমধ্যে জাতীয় শোক দিবস অনুচ্ছেদ নিয়ে আলোচনা করেছি এখন জাতীয় শোক দিবস রচনা দেখব।

জাতীয় শোক দিবস রচনাঃ

একটি প্রজাতি কে সংগঠিত করে স্বাধীনতার মন্ত্র তাদের মনে উজ্জীবিত করা এবং সামনে থেকে নেতৃত্ব দেওয়া সহজ কাজ নয় কিন্তু এই কঠিন কাজটি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান খুব সহজে করেছিলেন। বাংলাদেশ স্বাধীন করার লক্ষ্যে প্রথম থেকে স্বাধীনতা অর্জন এবং স্বাধীনতা সংগ্রাম সবকিছু দক্ষতার সাথে পরিচালনা করেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান।

আরো পড়ুনঃ জুম্মা মোবারক স্ট্যাটাস 2022

১৫ আগস্ট বাঙালি জাতির জীবনে একটি কলঙ্কময় দিন। বাঙালি জাতি এই দিনটিকে জাতীয় শোক দিবস হিসেবে পালন করে। বাঙালি জাতির জীবনে ইতিহাসে করেছিলেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। তার আহবানে জেগে উঠেছিল বাঙালি জাতি। 30 লক্ষ শহীদের বিনিময়ে বাংলাদেশ পেয়েছি তার পেছনে সবচেয়ে গুরুত্ব বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের।

মানুষকে স্বাধীনতা সংগ্রামের প্রতি জাগ্রত করার মত অসাধারণ বজ্রকন্ঠ ছিল শেখ মুজিবুর রহমানের। অথচ সবার সেরা বাঙালির প্রাণপ্রিয় নেতা কে ঘাতকেরা নিষ্ঠুরভাবে হত্যা করেছেন। এই নিষ্ঠুর ঘাতকেরা শুধু একজন মানুষকে হত্যা করেনি করেছেন বাঙালি স্বাধীনতা সংগ্রামের মহানায়ককে। ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে হত্যা করে বাংলাদেশের ইতিহাসে সবচেয়ে কালো অধ্যায় রচিত করেন।

১৫ ই আগস্ট বঙ্গবন্ধু ও তার পরিবারকে হত্যা করা বাঙালির জাতির জন্য কলঙ্কময় একটি দিন। আপনারা জানেন হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে বাঙালি জাতি একত্রিত হয়ে পশ্চিম পাকিস্তান হানাদার বাহিনীর বিরুদ্ধে জীবন বাজি রেখে স্বাধীনতার সংগ্রাম করে। তিনি পুরো বাঙালি জাতি কে সাথে নিয়ে আজকের বাংলাদেশ গড়ে তুলেছে।

বাংলাদেশের মানুষের কাছে তিনি মুক্তির প্রতীক হয়ে উঠেছিলেন সকল প্রেরণার উৎস। পৃথিবীর খুব কম রাজনৈতিক নেতা আছে যারা এত জনপ্রিয়তা লাভ করতে পেরেছিল। অথচ তাকে কে নির্মমভাবে হত্যা করা হয়। এজন্য এ দিনটিকে বাংলাদেশের ইতিহাসে সবচেয়ে কলঙ্কিত দিন বলা হয়।

শেষ কথাঃ জাতীয় শোক দিবস অনুচ্ছেদ - জাতীয় শোক দিবস রচনা

আপনারা যারা এই পোস্টটি পড়ছেন তাদের জন্য উপরে জাতীয় শোক দিবস অনুচ্ছেদ - জাতীয় শোক দিবস রচনা উল্লেখ করা হয়েছে আপনি যদি জানতে চান তাহলে সম্পূর্ণ পোস্টটি মনোযোগ সহকারে পড়তে হবে। কারণ 15 আগস্ট জাতীয় শোক দিবস হিসেবে বিভিন্ন জায়গায় রচনা প্রতিযোগিতা তার জন্য এই পোস্টটি আপনাদের অনেক সাহায্য করবে।

এতক্ষন আমাদের সঙ্গে থাকার জন্য অসংখ্য ধন্যবাদ। এরকম পোস্ট আরও পড়তে নিয়মিত আমাদের ওয়েবসাইট ফলো করুন।

পরিচিতদেরকে জানাতে শেয়ার করুন

0 Comments

দয়া করে নীতিমালা মেনে মন্তব্য করুন ??

অর্ডিনারি আইটি কী?