অর্ডিনারি আইটি https://www.ordinaryit.com/2022/03/blog-post_23.html

বঙ্গবন্ধু ও মেজর জিয়াউর রহমানের স্বাধীনতার ঘোষণা ইংরেজিতে

আপনি কি বঙ্গবন্ধুর স্বাধীনতার ঘোষণা ইংরেজিতে ও মেজর জিয়ার স্বাধীনতার ঘোষণা ইংরেজিতে জানতে চান? তাহলে আমাদের আজকের এই পোষ্ট টি আপনার জন্য। আজ আমরা আলোচনা করব বঙ্গবন্ধুর স্বাধীনতার ঘোষণা ইংরেজিতে ও মেজর জিয়ার স্বাধীনতার ঘোষণা ইংরেজিতে এগুলো নিয়ে।

চলুন আর দেরি না করে জেনে নেই বঙ্গবন্ধুর স্বাধীনতার ঘোষণা ইংরেজিতে ও মেজর জিয়ার স্বাধীনতার ঘোষণা ইংরেজিতে।

সূচিপত্রঃ বঙ্গবন্ধুর স্বাধীনতার ঘোষণা ইংরেজিতে ও মেজর জিয়ার স্বাধীনতার ঘোষণা ইংরেজিতে

বাংলাদেশের স্বাধীনতার ঘোষক

পাকিস্তান থেকে পূর্ব পাকিস্তানের স্বাধীনতার ঘোষণা যিনি দিয়েছিলেন তাকে বলা হয় বাংলাদেশের স্বাধীনতার ঘোষক। শেখ মুজিবুর রহমান বাংলাদেশের স্বাধীনতার ঘোষক। শেখ মুজিবুর রহমানের পর আওয়ামী লীগ নেতা এম.এ.হান্নান এবং তৎকালীন সময়ের মেজর জিয়াউর রহমান স্বাধীনতার ঘোষণাটি পাঠ করেছিলেন।

আরো পড়ুনঃ বঙ্গবন্ধুর জন্ম দিবস ও জাতীয় শিশু দিবস রচনা ২০২২

সে ক্ষেত্রে বাংলাদেশের স্বাধীনতার ঘোষক হিসেবে জিয়াউর রহমানকে দাবি করা হয় ইতিহাসের বিকৃতি হিসেবে সমালোচিত। বাংলাদেশের স্বাধীনতা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ১৯৭১ তৎকালীন রিচার্ড নিক্সনের শাসনামলে সকল কূটনৈতিক গোপন নথিতে শেখ মুজিবুর রহমানকে স্বাধীনতার ঘোষক বলা হয়েছে।

বঙ্গবন্ধুর স্বাধীনতার ঘোষণা

আমাদের মুক্তিযুদ্ধ ছিল জনযুদ্ধ। কৃষক, শ্রমিক, ছাত্রজনতা, সর্বস্তরের মানুষ তাতে অংশ নিয়েছিল। বিশেষ কোনো গোষ্ঠী বা সংগঠনের কোনো বিশেষ ভূমিকা বা অবদান এখানে নেই। তা এভাবেই দাবি করা হোক না কেন। ১৯৬৬ সালের ফেব্রুয়ারীতে বঙ্গবন্ধু বাঙালির মুক্তির সনদ 6 দফা উপস্থাপন করেন এবং এর সমর্থন আদায়ের জন্য বাংলার এক প্রান্ত থেকে আরেক প্রান্তে ছুটে বেড়াতেন। বাঙালিরা ভাষা আন্দোলনের ঘটনার মাধ্যমে বুঝিয়ে ছিলেন যে তাদের স্বাধীনতা বা মুক্তির কোনটাই হয়নি। তাদের সামনে বন্ধুর পথ। তারা ৬ দফাকে মনে করলো মুক্তির দিশারী।

আরো পড়ুনঃ বঙ্গবন্ধুর স্বাধীনতার ঘোষণা কোন ভাষায়

তাইতো ১৯৭০ বঙ্গবন্ধু যখন পাকিস্তানের অনুষ্ঠিতব্য প্রথম সাধারণ নির্বাচন ঘোষণা করলেন, যে তিনি জনগণের কাছে ছয় দফা বাস্তবায়নের ম্যান্ডেট চাইছেন, তখন জনগণ সেই ম্যান্ডেট দিলেন। এরপর ১৯৭১ সালের ১ মার্চ যখন পাকিস্তানের সামরিক সরকার ৩ মার্চ অনুষ্ঠিতব্য জাতীয় পরিষদের অধিবেশন অনির্দিষ্টকালের জন্য স্থগিত ঘোষণা দিল, সেদিন বাংলার জনগণ বিক্ষোভের ফেটে পড়লেন এবং স্বতঃস্ফূর্তভাবে রাস্তায় নেমে এলেন। তখন পাকিস্তান শব্দটা তাদের হৃদয় থেকে মুছে ফেলে ছিলেন। দেখা হল একটা, সেটা হল বাংলার স্বাধীনতা। এরপর ৭ মার্চ বঙ্গবন্ধু ঐতিহাসিক রেসকোর্স ময়দানের সরাসরি স্বাধীনতার ডাক দিলেন। বঙ্গবন্ধুর আহবানে অসহযোগ আন্দোলন চলল।

বঙ্গবন্ধুর স্বাধীনতার ঘোষণা ইংরেজিতে

১৯৭১ সালের ২৫ মার্চের শেষ প্রহরে পাকবাহিনী বাংলাদেশে গণহত্যা শুরু করে এবং গ্রেফতারের আগেই। ধানমন্ডির ৩২ নম্বর বাড়িতে শেখ মুজিবুর রহমান ২৫ মার্চ রাত ১২ টা ২০ মিনিটে আনুষ্ঠানিকভাবে বাংলাদেশের স্বাধীনতা ঘোষণা করেন। বঙ্গবন্ধুর স্বাধীনতার ঘোষণা ইংরেজিতে-

This may be my last message, from today Bangladesh is Independent. I Call upon the people of Bangladesh wherever you might be and with whatever you have, to resist the army of occupation to the last. Your fight Must go on until the last soldier of the Pakistan occupation army is the expelled from the soil of Bangladesh and final victory in achieved.

যার অর্থঃ" এটাই হয়তো আমার শেষ বার্তা, আজ থেকে বাংলাদেশ স্বাধীন। আমি বাংলাদেশের মানুষকে আহ্বান জানাই, আপনারা যেখানেই থাকুন, আপনাদের সর্বস্ব দিয়ে দখলদার সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে শেষ পর্যন্ত প্রতিরোধ চালিয়ে যান। বাংলাদেশের মাটি থেকে সর্বশেষ পাকিস্তানি সৈন্যটিকে উত্খাত করা এবং চূড়ান্ত বিজয় অর্জনের আগ পর্যন্ত আপনাদের যুদ্ধ অব্যাহত থাকুক"

একই সময়ে শেখ মুজিবুর রহমান আরও একটি বার্তা পাঠিয়ে ছিল, তা হল-

" Today Bangladesh is a sovereign and Independent state. On Thursday night vest Pakistan armed forces suddenly attacked the police barracks at Rajarbagh and the EPR the headquarters at peelkhana in Dacca. Many innocent and unarmed people have been killed in Dacca city and other places of Bangladesh. Violent clashes between the East Pakistan Rifles and Police on the one hand and the armed forces off Pindi on the other, are going on. The Bengalis are fighting the enemy with great courage for an Independent Bangladesh. Resist the treacherous enemy in every corner of Bangladesh. May God aid us in our fight for freedom."" JOY BANGLA "

যার অর্থঃ"আজ বাংলাদেশে একটি সার্বভৌম ও স্বাধীন রাষ্ট্র। বৃহস্পতিবার রাতে পশ্চিম পাকিস্তানের সশস্ত্রবাহিনী হঠাৎ ঢাকার পিলখানায় রাজারবাগ এবং ইপিআর সদর দপ্তরে হামলা চালায়। ঢাকা শহর এবং বাংলাদেশের অন্যান্য স্থানে, অনেক নিরাপদ ও নিরস্ত্র মানুষ নিহত হয়েছে। একদিকে পূর্ব পাকিস্তান রাইফেলস এবং পুলিশের মধ্যে সহিংস সংঘর্ষ এবং অন্যদিকে পিন্ডি থেকে সশস্ত্র বাহিনীর মধ্যে সহিংস সংঘর্ষ চলছে। বাঙালিরা স্বাধীন বাংলাদেশের জন্য অত্যান্ত সাহস নিয়ে শত্রুর সাথে লড়াই করেছে। বাংলাদেশের প্রতিটি কোনায় বিশ্বাসঘাতক শত্রুদের প্রতিরোধ করুন। আল্লাহ আমাদের স্বাধীনতার জন্য লড়াই সাহায্য করুন।"" জয় বাংলা"

আরো পড়ুনঃ স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী ৫০ বছর রচনা

এই ঘোষণা দুটি বাংলায় অনুবাদ করে প্রচার করা হয়েছিল বলে বিভিন্ন মাধ্যমে এগুলোর মধ্যে কিছুটা তারতম্য দেখা যায়। এইগুলো পূর্ব প্রস্তুতি এবং অনেক আগেই টেপ করে রাখা হয়েছিল বলে ধারণা করা হয়

মেজর জিয়ার স্বাধীনতার ঘোষণা ইংরেজিতে

এখন আমরা মেজর জিয়ার স্বাধীনতার ঘোষণা ইংরেজিতে এ বিষয়ে জানব। মেজর জিয়ার আরেকটি নাম হচ্ছে শহীদ রাষ্ট্রপতি লেফটেন্যান্ট জেনারেল। বাংলাদেশের নতুন যুগের সূচনা একটি নতুন অধ্যায়। মেজর জিয়া ছিলেন বাংলাদেশের সপ্তম রাষ্ট্রপতি, একজন সেনাপ্রধান এবং একজন বীর মুক্তিযোদ্ধা। আজ আমাদের প্রাণপ্রিয় স্বাধীনতা দিবসে আমি তাকে বিশেষভাবে স্মরণ করে আমার হৃদয় ও শ্রদ্ধা নিবেদন করছি। ২৭ মার্চ মেজর জিয়াউর রহমান চট্টগ্রামের কালুরঘাট বেতারকেন্দ্র থেকে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর পক্ষ থেকে সকাল ১১ টায় স্বাধীনতার আরেকটি ঘোষণাপত্র পাঠ করেন। নিম্নে মেজর জিয়ার স্বাধীনতার ঘোষণা ইংরেজিতে দেয়া হল-

"This is Swadhin Bangla Betar Kendro. I, Major Ziaur Rahman, at the direction of Bangobondhu Sheikh Mujibur Rahman, hereby declare that Independent Paople's Republic of Bangladesh has been established . At his direction, I have taken the command as the temporary Head of the Republic. In the name of Sheikh Mujibur Rahman, I call upon all Bengalees to rise against the attack by the West Pakistan Army. We shall fight to the last to free our motherland. Victory is, by the Grace of Allah, ours. Joy Bangla.

যার অর্থ-এটি একটি স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্র। আমি, মেজর জিয়াউর রহমান, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের পক্ষে বাংলাদেশের স্বাধীনতা ঘোষণা করছি। আমি আরো ঘোষণা করছি যে, আমি শেখ মুজিবুর রহমানের অধীনে একটি সার্বভৌম ও আইনসিদ্ধ সরকার গঠন করেছি যা আইন ও সংবিধান অনুযায়ী কর্মকাণ্ড চালিয়ে যেতে প্রতিজ্ঞাবদ্ধ। শেখ মুজিবুর রহমানের নামে, আমি এই সমস্ত বাঙালিকে পশ্চিম পাকিস্তান সেনাবাহিনীর আক্রমণের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানোর আহ্বান জানায়। মাতৃভূমিকে মুক্ত করতে আমরা শেষ পর্যন্ত লড়াই করব। আল্লাহর রহমতে বিজয় আমাদের। "জয় বাংলা"

শেষ কথাঃ বঙ্গবন্ধুর স্বাধীনতার ঘোষণা ইংরেজিতে-মেজর জিয়ার স্বাধীনতার ঘোষণা ইংরেজিতে

বন্ধুরা আজ আমরা বঙ্গবন্ধুর স্বাধীনতার ঘোষণা ইংরেজিতে ও মেজর জিয়ার স্বাধীনতার ঘোষণা ইংরেজিতে লিখেছি। আমাদের এই বঙ্গবন্ধুর স্বাধীনতার ঘোষণা ইংরেজিতে ও মেজর জিয়ার স্বাধীনতার ঘোষণা ইংরেজিতে পোস্টটি আপনাদের ভালো লাগবে। আশা করি বঙ্গবন্ধু্র স্বাধীনতার ঘোষণা ইংরেজিতে ও মেজর জিয়ার স্বাধীনতার ঘোষণা ইংরেজিতে পোস্টটি পড়ে আপনারা উপকৃত হবেন। আমাদের পোস্টটি ভাল লেগে থাকলে আপনার ফেসবুক ইনস্টাগ্রাম প্রোফাইলে শেয়ার করতে পারেন। এরকম আরো পোস্ট পেতে আমাদের সাথেই থাকুন।

আপনার জন্য এই ধরণের আরো কিছু পোস্ট

পরিচিতদেরকে জানাতে শেয়ার করুন

0 Comments

দয়া করে নীতিমালা মেনে মন্তব্য করুন ??

অর্ডিনারি আইটি কী?