অর্ডিনারি আইটি https://www.ordinaryit.com/2022/01/bismillah.html

বিসমিল্লাহ বলতে ভুলে গেলে কি পড়তে হয় জানুন

কাজের শুরুতে বিসমিল্লাহ বলতে ভুলে গেলে কি বলতে হয় তা অনেকেই জানে না। খাওয়ার শুরুতে বিসমিল্লাহ বলতে ভুলে গেলে কি করনীয় আপনাকে জানতে হবে। কাজের শুরুতে বিসমিল্লাহ বলতে ভুলে গেলে থবা খাওয়ার শুরুতে দোয়া ভুলে গেলে কি বলতে হবে জানুন পোস্টের মাধ্যমে।

অনেক সময় তাড়াহুড়ার কারণে আমরা খাওয়ার শুরতে অথবা কাজের শুরুতে বিসমিল্লাহ বলতে ভুলে যায়। মানুষ মাত্রই ভুল। এটা ভুল হয়ে যেতেই পারে। এটা নিয়ে ঘাবড়ানোর কিছু নেই। বিসমিল্লাহ বলতে ভুলে গেলে কি বলতে হয় তা জেনে নিতে হবে এজন্য। খাওয়ার শুরুতে বিসমিল্লাহ বলতে ভুলে গেলে কি করতে হবে অনেকে জানেন না। তাই দেখা যায় তাঁরা খাওয়ার মাঝেখানে আবার বিসমিল্লাহ বলেন। কিন্তু এটা উচিত না। 

কেননা খাওয়ার শুরুতে দোয়া ভুলে গেলে তার জন্য নতুন দোয়া রয়েচে যা শুধু এজন্য ব্যবহৃত হবে। হয় আপনাকে শুরুতেই বিসমিল্লাহ বলতে হবে আর না হয় বিসমিল্লাহ বলতে ভুলে গেলে কি বলতে হয় তা জেনে রাখতে হবে। আপনি যদি সেরকমই একজন হয়ে থাকেন যে কিনা বিসমিল্লাহ বলতে ভুলে গেলে কি বলতে হয় তা উত্তর খুঁজছেন তাহলে এই পোস্টটি আপনার জন্য। এই পোস্টে থাকবে বিসমিল্লাহ বলতে ভুলে গেলে কি বলতে হয় তার উত্তর। 

এছাড়াও থাকবে খাওয়ার শুরুতে বিসমিল্লাহ বলতে ভুলে গেলেবা খাওয়ার শুরুতে দোয়া ভুলে গেলে এবং কাজের শুরুতে বিসমিল্লাহ বলতে ভুলে গেলে কি বলতে হয় তা নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা। বিস্তারিত শুরু করার আগে দেখে নিন কি কি থাকছেঃ

পেজ সূচিপত্রঃ বিসমিল্লাহ বলতে ভুলে গেলে কি বলতে হয়ঃ

বিসমিল্লাহ বলতে ভুলে গেলে কি বলতে হয় – বিসমিল্লাহ না বললে শয়তান কি করে 

বিসমিল্লাহ বলতে ভুলে গেলে কি বলতে হয় তা জানার আগে জানতে হবে বিসমিল্লাহ এর তাৎপর্য। কেন বিসমিল্লাহ বলতে হয়।

বিসমিল্লাহ এমন একটি গুরুত্বপূর্ন শব্দ যার ফজিলত বলা শুরু করলে শেষ করা যাবেনা। বিসমিল্লাহ অর্থ পরম করুণাময় আল্লাহ এর নামে শুরু করছি। যেকোন হালাল বা ভালো কাজের শুরুতে আপনাকে বিসমিল্লাহ বলতে হবে। আপনি যদি যেকোও ভালো কাজের শুরুতে বিসমিল্লাহ বলেন তাহলে আল্লাহ আপনার কাজে বরকত দিবেন। বিসমিল্লাহ বলে কাজ শুরু করার অর্থ হচ্ছে আপনি আপনার কাজটি শুরু করার জন্য আল্লাহ এর কাছে মঙ্গল এবং সাহায্য কামনা করছেন। একটি ঘটনা পড়লে আপনারা বুঝতে পারবেন।

ঘটনাটি হলোঃ

হজরত জাফর ইবন মুহাম্মদ (রাঃ) তে উল্লেখিত রয়েছে , ‘তোমরা যখন নিজ ভাইদের সাথে দস্তরখানায় একসাথে খেতে বসো, তখন সেই বৈঠক দীর্ঘায়িত করতে পারো। কারণ এই সময়টা তোমাদের জীবনের মধ্যে এমন একটি সময় যার হিসাব তোমাদেরকে দিতে হবে না।’

আর আপনি যদি বিসমিল্লাহ না বলেন তাহলে আপনার কাজ বরকত ময় হবেনা তা তো নিশ্চয় বুঝতে পারছেন। এখন প্রশ্ন হলো বিসমিল্লাহ বলতে হয় প্রতিটি কাজে এটা আপনি জানেন । কিন্তু কোনো কারণে যদি বিসমিল্লাহ বলতে ভুলে যান তখন আপনি কি করবেন? যখন মনে পড়বে আপনার তো বিসমিল্লাহ বলা উচিত ছিল। জ্বি । আল্লাহ তায়ালা এজন্য ও সমাধান রেখেছেন। কতটা মহান আমাদের সৃষ্টিকর্থা। আলহামদুলিল্লাহ। 

বিসমিল্লাহ বলতে ভুলে গেলে কি বলতে হয় তার উত্তর হলো কোনো কারণ বশত বিসমিল্লাহ বলতে ভুলে গেলে আপনাকে একটি দোয়া পড়তে হবে। দোয়াটি হলোঃ

বিসমিল্লাহি আওয়ালাহু ওয়া আখিরাহু

অর্থঃ পরম করুনাময় আল্লাহর নামে শুরু করছি, শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত

খাওয়ার শুরুতে বিসমিল্লাহ বলতে ভুলে গেলে কি করতে হবে – খাবার সামনে আসলে কোন দোয়া পড়তে হয়

খাওয়ার শুরুতে বিসমিল্লাহ বলতে ভুলে গেলে কি করতে হবে তা অনেকের প্রশ্ন থাকে। খাওয়ার সময় প্রায় এটা ভুল হয়ে থাকে সবার। খিদের তাড়ায় প্রায় ভুলে যায় বিসমিল্লাহ পড়তে। তাই খাওয়ার শুরুতে বিসমিল্লাহ বলতে ভুলে গেলে কি বলতে হবে তা সবার জেনে নেয়া উচিত। কারণ খেতে খেতে মনে পড়ে যেতেই পারে খাওয়ার শুরুতে বিসমিল্লাহ বলতে ভুলে গিয়েছেন। খাওয়ার সময় বিসমিল্লাহ বলা কতটা গুরুত্বপূর্ন তা নিয়ে অনেক ধরনের বার্তা এবং ঘটা রয়েছে। তার মধ্যে অন্যতম হলোঃ 

‘তোমরা পরস্পর মিলেমিশে একসাথে খাবার গ্রহণ করো এবং আল্লাহর নাম নিয়ে খাবার খাওয়া শুরু করো। কেননা, তাতে তোমাদের জন্য বরকত-কল্যাণ নিহিত রয়েছে।’ (আবু দাউদ)

আবার পরিবারের সবাই একসাথে খাবার খাওয়া নিয়ে কোরআন শরীফে বেশি আগ্রহ দেখানো হয়েছে। কেননা সবাই যখন একসাথে খাবার খেতে বসবেন তখন আপনার পরিবারের সদস্যের মধ্যে যেমন ভালোবাসার সৃষ্টী হবে ঠিক তেমন খাবার নষ্ট কম হয়। কারণ সবাই মিলে ভাগাভাগি করে খাবার খেলে খাবারে বরকত এবং স্বাদ দুইটিই বৃদ্ধি পায়। খাবার ভাগ করে নেয়ার পাশপাশি এখানে ত্যাগ করার একটি অভ্যাস গড়ে উঠে। সবার মধ্যে খাবার ভাগ করে দেয়ার আনন্দ খুঁজে পাওয়া যায়। একটি ঘটা বললে আপনারা বুঝতে পারবেন। ঘটনাটি হলোঃ 

সাহাবিরা রাসূল (সঃ) কে একদিন প্রশ্ন করলেন, আমরা খাবার খাই কিন্তু আমরা তৃপ্তি পাই না খাবার খেয়ে, কেন?  তখন রাসূল (সঃ) উত্তর দিলেন , ‘সম্ভবত তোমরা সবাই আলাদা খাবার গ্রহণ কর। সাহাবিরা উত্তরে বললেন, জি। রাসূল (সঃ) বললেন, তোমরা এখন থেকে একসাথে বসে খাবার খাবে এবং ‘বিসমিল্লাহ’ বলে খাবার খাওয়া শুরু করবে। এভাবে খাবার খেলে খাবারে বরকত হবে।’

এখন প্রশ্ন হলে বিসমিল্লাহ বলতে ভুলে গেলে কি বলতে হয়। খাওয়া শুরুতে বিসমিল্লাহ বলতে ভুলে গেলে নিম্নোক্ত দোয়াটি পড়তে হয়। দোয়াটি হলোঃ

বিসমিল্লাহি আউয়্যালাহু ওয়া আখিরাহু

খাওয়ার শুরুতে দোয়া ভুলে গেলে কি বলতে হয় – বিসমিল্লাহ কখন বলতে হয়

একজন মুসলিম আর অমসুলিমের মধ্যে পার্থক্য এখানে হবে যে কিনা তার প্রত্যেক কাজের শুরুতে আল্লাহ এর নাম স্মরণ করবে। আর অন্যদিকে অমুসলিম এটা করবেনা। এভাবেই মুসলিম এবং অমুসলিমের মধ্যে পার্থক্য করা হবে। একজন মুসলিম হিসেবে আপনার উচিত প্রতিটি ক্ষণে ক্ষণে আল্লাহকে স্মরণ করা। এজন্য খাওয়ার আগে বিসমিল্লাহ বলে খাওয়া শুরু করুন। খাওয়া ছাড়াও যেকোনো কাজে বিসমিল্লহা পড়া সুন্নত। খাওয়ার শুরুতে আপনাকে এই দোয়াটি পরতে হবে। দোয়াটি হলোঃ

বিসমিল্লাহি ওয়া আলা বারকাতিল্লাহ

আর আপনি খাওয়া শুরুতে দোয়া ভুলে গেলে কি বলতে হয় তা জেনে না থাকলে জেনে নিন। খাওয়ার শুরুতে দোয়া ভুলে গেলে আপনাকে নিম্নোক্ত দোয়াটি পড়তে হবে। 

বিসমিল্লাহি আওয়ালাহু ওয়া আখেরাহ

এখন চলুন খাওয়ার শুরতে বিসমিল্লহা বলা কতটা গুরুত্বপূর্ন তার একটি ঘটনা জেনে নিন। 

ঘটনা হলোঃ 

মহানবী (সঃ) বলেছেন , ‘ফেরেশতা তোমাদের প্রত্যেকের জন্য ওই সময় পর্যন্ত রহমতের দোয়া করতে থাকে, যে সময় পর্যন্ত তার সামনে দস্তরখানা বিছানো থাকে। এ দোয়া দস্তরখানা উঠানো পর্যন্ত চলতে থাকে।’

হজরত হাসান বসরি (র.) বলেছেন, ‘যেসব খুরচ পাতি নিজের উদ্দ্যেশ্য করা হয় তার জবাবদিহি কেয়ামতের মাঠে দিতে হবে। কিন্তু এর মধ্যে থেকে যে খরচ আমরা আমাদের নিজ ভাইবোন ও অন্যদের দাওয়াত করে খাওয়ানো জন্য করা হয়, সে সম্পর্কে জিজ্ঞাসাবাদ করতে মহান আল্লাহ লজ্জিতবোধ করেন।’ 

অনেক আলেম উল্লেখ করেছে যে, তাঁরা তাঁদের পরিবার এবং আত্মীয় স্বজনদের দাওয়াত করে তাঁদের জন্য বড় দস্তরখানায় অনেক খাবার ও ফলফলাদি রেখে দিতেন। এ বিষয়ে উনাদের প্রশ্ন করা হলে উত্তরে বলেন , ‘আমাদের কাছে রাসূল সা: থেকে হাদিস পৌঁছেছে যে, মুসলমান ভাইয়েরা যখন আহারান্তে ওই দস্তরখানা থেকে হাত গুটিয়ে নেন, তখন আর অবশিষ্ট খাবারের বেলায় জবাবদিহিতা থাকে না।’ অর্থাৎ বাকি খাবার আমরা এবং আমাদের পরিবারস্থরা হিসাব দানের ভয় ব্যতীত, নির্ভয়ে খেয়ে নেই।

তাহলে বুঝে নিন একসাথে খাবার খাওয়া এবং বিসমিল্লাহ বলে খাবার খাওয়া শুরু করা কতটা ফজিলতপূর্ণ।

কাজের শুরুতে বিসমিল্লাহ বলতে ভুলে গেলে কি বলতে হয় – বিসমিল্লাহ বলতে ভুলে গেলে কি বলতে হয় 

যেকোনো কাজের শুরু বিসমিল্লাহ পাঠ করে শুরু করতে হয়। এতে কাজটি বরকত্ময় হয়। অনেক সময় বিসমিল্লহা না বলার কারণে আশানুরূপ ফলাফল পাওয়া যায় না। কাজের শুরুতে বিসমিল্লাহ বলতে ভুলে গেলে কি বলতে হয় তাও জেনে রাখতে হবে। কাজের শুরুতে তো বিসমিল্লাহ বলবেন। কিন্তু যদি ভুলে যান তখন? কাজের শুরুতে বিসমিল্লাহ বলতে ভুলে গেলে " বিসমিল্লাহি আওয়ালাহু ওয়া আখিরাহু" অর্থাৎ পরম করুনাময় আল্লাহর নামে শুরু করছি, শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত পড়ুন। 

তাহলে নিশ্চয় বিসমিল্লাহ বলতে ভুলে গেলে কি বলতে হয় বুঝতে পেরেছেন। এছাড়া পোস্টে আরো ছিল খাওয়ার শুরুতে বিসমিল্লাহ বলতে ভুলে গেলে অথবা খাওয়ার শুরুতে দোয়া ভুলে গেলে অথবা কাজের শুরুতে দোয়া বলতে ভুলে গেলে কি বলতে হয় তা নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা। 

পরিচিতদেরকে জানাতে শেয়ার করুন

0 Comments

দয়া করে নীতিমালা মেনে মন্তব্য করুন ??

অর্ডিনারি আইটি কী?