অর্ডিনারি আইটি https://www.ordinaryit.com/2021/11/blog-post.html

তাবারাকাল্লাহ অর্থ কি - ফা তাবারাকাল্লাহ অর্থ কি

তাবারাকাল্লাহ অর্থ কি অনেকে জানেন না। যেসব ব্যক্তি তাবারাকাল্লাহ অর্থ কি জানেন না তাঁদের জন্য এই পোস্ট। এই পোস্টে থাকবে তাবারাকাল্লাহ অর্থ কি ছাড়াও ফা তাবারাকাল্লাহ অর্থ কি ।

ফা তাবারাকাল্লাহ অর্থ কি জানুন। পোস্টটি পড়লে তাবারাকাল্লাহ অর্থ কি এবং ফা তাবারাকাল্লাহ অর্থ কি জানতে পারবেন।

পেজ সূচিপত্রঃ তাবারাকাল্লাহ অর্থ কি 

তাবারাকাল্লাহ অর্থ কি - TabarakAllah meaning in bengali 

তাবারাকাল্লাহ অর্থ কি অনেকে প্রশ্ন করেন। তাবারাকাল্লাহ অর্থ কি খুজতে থাকুন। তাবারাকাল্লাহ অর্থ কি সঠিক ভাবে না জানার কারণে অনেক সময় তাবারাকাল্লাহ সঠিক ভাবে ব্যবহার করা হয়ে উঠে না অনেকের। তাবারাকাল্লাহ অর্থ কি জানতে চাচ্ছেন? কিন্তু তাবারাকাল্লাহ অর্থ কি তার উত্তর কোথাও ঠিক মতো পাচ্ছেন না? তাবারাকাল্লাহ অর্থ কি সে সম্পর্কে সংক্ষেপে জানার জন্য আমাদের এই পোস্ট। তাবারাকাল্লাহ অর্থ হলোঃ আল্লাহ আপনার মঙ্গল করুন।

তাবারাকাল্লাহ কখন পড়তে হয় - MashaAllah TabarakAllah 

তাবারাকাল্লাহ অর্থ কি তা নিশ্চয় এতক্ষনে বুঝতে পেরেছেন। তাবারাকাল্লাহ অর্থ কি জানার পর মনে প্রশ্ন উঁকি দিচ্ছে কোথায় কখন কিভাবে তাবারাকাল্লাহ বলবেন। তাবারাকাল্লাহ অর্থ হলো আল্লাহ আপনার মঙ্গল করুন। অর্থ্যাৎ কারো মঙ্গল কামনা অর্থে তাবারাকাল্লাহ ব্যবহার করা হয়। যখন কোনো কিছু সুন্দর বা অবাক করা কিছু দেখেন তখন সাধারণত আপনি মাশাআল্লাহ বলে থাকেন। কিন্তু আপনি হয়ত জানেন না মাশাআল্লাহ বলা ছাড়াও আপনি যখন কোন কিছু সুন্দর এবং অবাক করা দেখবেন তখন আল্লাহ এর কাছে শুকরিয়া জানানোর উদ্দশ্যে মাশাআল্লাহ বলা ছাড়াও তাবারাকাল্লাহ বলতে পারেন। তাবারাকাল্লাহ বলা হয়ে থাকে আল্লাহ এর প্রতি কৃতজ্ঞতা পোষন করার উদ্দেশ্যে। আশা করি আপনারা বুঝতে পেরেছে কিভাবে কখন কোথায় তাবারাকাল্লাহ ব্যবহার করতে হয়। 

ফা তাবারাকাল্লাহ অর্থ কি - Fa TabarakAllah 

ফা তাবারাকাল্লাহ অর্থ কি নিয়ে যাদের সংশয় তাঁদের জন্য এই পোস্টটি। ফা তাবারাকাল্লাহ অর্থ কি তা না জেনে ব্যবহার করলে আপনার কোন কাজে আসবেনা। বরং আপনি যদি এক মিনিট সময় নিয়ে এই পোস্টটি পড়ে ফা তাবারাকাল্লাহ অর্থ কি তা জেনে তারপর ব্যবহার করেন তাহলে আপনার বেশি কাজে লাগবে। ফা তাবারাকাল্লাহ অর্থ কি তা অনেকেই সঠিক ভাবে বলতে পারবেন না। ফা তাবারাকাল্লাহ অর্থ কি তার সঠিক উত্তর খুঁজে পাওয়া দুষ্কর। 

ফা তাবারাকাল্লাহ কখন পড়তে হয় - When to say tabarakAllah 

তবে কথিত আছে, আমাদের প্রিয় নবী হযরত মুহাম্মদ (সাঃ)  বিপদে আপদে বা কোন সুসংবাদ পেলে আল্লাহ দরবারে সিজদা করে শুকরিয়া আদায় করতেন। তিনি সবসময় সিজদায় একটি দোয়া পাঠ করতেন। দোয়াটি হলোঃ

اللهم  لك سجدت وبك آمنت و لك أسلمت سجدا وجهي للذي خلقه و صوره وشق سمعه تبارك الله احسن الخالقين

উচ্চারণ : ‘আল্লাহুম্মা লাকা সাজাদতু ওয়া বিকা আমানতু ওয়া লাকা আসলামতু সাজাদা ওয়াজহিয়া লিল্লাজি খালাকাহু ওয়া চাওয়ারাহু ওয়া শাক্কা সামআ’হু ওয়া বাচারাহু তাবারাকাল্লাহু আহসানুল খালিক্বিন।

অর্থ : হে আল্লাহ! তোমার জন্যই সিজদা করছি। একমাত্র তোমার প্রতিই ঈমান এনেছি এবং তোমার কাছেই আত্মসমর্পন করেছি। আমার মুখমণ্ডল ঐ সত্ত্বার জন্য সিজদাবনত হয়েছে, যিনি উহাকে সৃষ্টি করেছেন, সুসমন্বিত আকৃতি দিয়েছেন এবং তাতে কান ও চক্ষু স্থাপন করেছেন। নিপুনতম সৃষ্টিকর্তা আল্লাহ তাআলা কত কল্যাণময়!

রাসূল (সাঃ) সিজদায় এই দোয়া করে আল্লাহ এর নিকট শুকরিয়া আদায় করতেন । জীবনে ভালো মন্দ যাই হোক না কেন সবসময় আল্লাহ এর শুকরিয়া আদায় করা জরুরী। আল্লাহ ই একমাত্র বলতে পারবেন আমাদের জন্য কোনটি বেশি জরুরি। কি ভালো হবে সবচেয়ে বেশি একজন বান্দার জন্য। কেননা বান্দার ভালো মন্দ অতীত বর্তমান এবং ভবিষ্যত সম্পর্কে আল্লাহ তায়ালা অবগত। 

প্রত্যেক মুহুর্তে আল্লাহ এর জিকর করা একজন বান্দার প্রথম দায়িত্ব। আর এজন্য বেশি বেশি তাবারাকাল্লাহ এবং ফা তাবারাকাল্লাহ বলতে হবে। তাবারাকাল্লাহ অর্থ কি এবং ফা তাবারাকাল্লাহ অর্থ কি জানা না থাকলে এখুনি পোস্টটি পড়ে ফেলুন। কেননা যেসব ব্যক্তি তাবারাকাল্লাহ অর্থ কি এবং ফা তাবারাকাল্লাহ অর্থ কি জানেন না তাঁদের জন্যই এই পোস্ট। 

তাবারাকাল্লাহ অর্থ কি তা না জানা অস্বাভাবিক কিছু নয়। আপনি চাইলে এখুনি জেনে ফেলতে পারেন। আর ফাবারাকাল্লাহ অর্থ কি এবং তাবারাকাল্লাহ অর্থ কি এখুন জেনে ব্যবহার শুরু করে দিতে পারবেন। আশা করি তাবারাকাল্লাহ অর্থ কি এবং ফা তাবারাকাল্লাহ অর্থ কি নিয়ে যত সংশয় ছিল তা কেটেছে। যদি আরো কারো কিছু জানার থাকেতাহলে কমেন্ট সেকশনে জানাতে ভুলবেন না। সবাইকে ধন্যবাদ।

অন্যদের সাথে শেয়ার করুন

0 Comments

দয়া করে নীতিমালা মেনে মন্তব্য করুন ??

অর্ডিনারি আইটি কী?