অর্ডিনারি আইটি https://www.ordinaryit.com/2022/01/DMCA.html

DMCA কি - DMCA কেন ব্যবহার করা হয় তার বিস্তারিত

 

ইন্টারনেটে যেকোনো কিছু কপি করা খুবই সহজ। আজকের এই পোস্টটিতে থাকবে DMCA কি? DMCA কেন ব্যবহার করা হয়? এর মানে হচ্ছে আপনি আপনার পোস্টটি অন্য যেকোনো ওয়েবসাইট থেকে সম্পূর্নভাবে কিভাবে রিমুভ করবেন তার উপায় নিয়ে আলোচনা করা হবে।

Digital millennium copyright act (DMCA) একটি যুক্ত্রারাষ্ট্রের একটি নিয়ম। কেউ যদি আপনার পোস্ট কপি করে অন্য ওয়েবসাইটে পোস্ট করে এবং আপনি সেটা জানতে পারেন তখন আপনি DMCA ব্যবহার করে তার বিরুদ্ধে বৈধভাবে অ্যাকশন নিতে পারবেন। তো যারা DMCA কি? এবং DMCA কেন ব্যবহার করা হয়? এই দুইটি প্রশ্নের উত্তর খুঁজছেন তাঁরা এখুনি পড়া শুরু করে দিন। কারণ এই পোস্ট DMCA কি? DMCA কেন ব্যবহার করা হয়? এই দুইটি উত্তর নিয়ে সাজানো হয়েছে। বিস্তারিত শুরু করার আগে দেখে নিন কি কি থাকছে। 

পেজ সূচিপত্রঃ DMCA কি? DMCA কেন ব্যবহার করা হয়? ঃ

DMCA কি?

Digital millennium copyright act (DMCA) হচ্ছে ১৯৯৮ সালে যুক্তরাষ্ট্র কর্তৃক পাশ করা একটি আইন । এই আইনটি পাশ করেছিলেন প্রেসিডেন্ট বিল ক্লিনটন। মূলত এই আইনটি পাশ করা হয় একটি নিয়ম তৈরি করার জন্য। নিয়মটি হচ্ছে কন্টেন্ট রাইটার এবং কন্টের রিডার এর মধ্যে। কিভাবে এই দুজনের মধ্যে কপি রাইট ইস্যুটি ঠিক মত ব্যবহার করা যায় তার জন্য এই আইনটি পাশ হয়। 

বর্তমানে গ্লোবালাইজেশনের যুগে সব কিছু তথ্য প্রযুক্তি নির্ভয় হয়ে যাওয়াতে সবাই এখন সবকিছু ইন্টারনেট দুনিয়াতে পেয়ে যায়। এই ইন্টারনেট দুনিয়া বর্তমানে অনেকের কর্ম সংস্থানের ব্যবসাথে করে দিচ্ছে। কেউ কেউ অনলাইন বিজনেস করছে। আবার কেউ কেউ এমন কোন সাইট বানাচ্ছে যেখানে বিভিন্ন টপিক এর উপর কন্টেন্ট লিখে তা তাঁদের ওয়েবসাইটে প্রকাশ করছে যা এক দল গুরুত্বপূর্ণ তথ্যাবলী পেয়ে সুবিধা ভোগ করছে। আর এর উপর ভিত্তি করে কন্টেন্ট রাইটাররা গুগল এডসেন্স থেকে টাকা আয় করছে। এবং বর্তমানে এটি এমন একটি পর্যায়ে পৌছে গিয়েছে যেখান থেকে মানুষ চাকুরী থেকে বেশি আয় করছে ঘরে বসে। 

ধরুন আপনার কোনো একটি তথ্যের প্রয়োজন। আপনি তথ্যটি খুঁজতে গুগলে লিখে সার্চ দিলেন। সার্চ দেয়ার পর মনমতো অনেকগুলো সাইট পেয়ে গেলেন। এর মধ্যে থেকে আপনার কাছে যেটা ভালো মনে হয়েছে আপই সেটা বেছে নিলেন। এই যে সাইটটি বেছে নিলেন এবং আপনার প্রয়োজনিয় তথ্যটি নিলেন। আপনি তো চাইলে নিজে একটি ওয়েবসাইট খুলে সেখানে বিভিন্ন জনের পোস্ট কপি করে আপনি কন্টেন্ট ক্রিয়েটর হয়ে যেতে পারেন। 

কিন্তু ব্যাপারটি আসলে এত সহজ ও নয়। এসব কাজ মানুষ আগে করতো বলে এই DMCA আইনটি পাশ করা হয় ১৯৯৮ সালে। এরপর থেকে DMCA আইনের মাধ্যমে কেউ যদি কারো পোস্ট চুরি করে তাহলে সে আইনি ব্যবস্থা নিতে পারে। তবে শুধু যে পোস্ট কপি করা হয় ব্যাপারটি এমন নয়। হতে পারে কোনো ছবি, কোনো মিউজিক অথবা মিউজিক ভিডিও বা যেকোনো কিছু যা ইন্টারনেটে আপলোড করা হয়েছে। আশা করি DMCA কি এতক্ষণে বুঝে গিয়েছেন।

আরো পড়ুনঃ ইউটিউবে কি কি বিষয় নিয়ে কাজ করা যায় তার ২১ টি উপায় 

DMCA কেন ব্যবহার করা হয়? 

DMCA কি তা আপনাদের সুবিধার্থে ছোট করে আবারো বলছি এটি হলো এমন একটি আইন যা আপনি আপনার কন্টেন্ট বা যেকোনো কিছু অনলাইন থেকে কেউ যদি কপি করে তখন আপনি আপনার কন্টেন্টটির জন্য আইনিভাবে পদক্ষেপ নিতে পারবেন। 

DMCA কেন ব্যবহার করা হয় তা আশা করি একটু আধটু বুঝতে পারছেন। যাদের প্রশ্ন DMCA কেন ব্যবহার করা হয় তাঁদের জন্য উত্তর হলো DMCA ব্যবহার করা হয় আপনার কন্টেন্ট টি যেন চুরি হওয়া  থেকে বাচাতে পারেন। 

DMCA ব্যবহার করে কিভাবে চুরি হওয়া থেকে বাঁচাবেন আপনার কন্টেন্টটি – DMCA কেন ব্যবহার করা হয় 

DMCA এমন একটি আইন যে আইনের মধ্যে সকল ধরণের ডিজিটাল কন্টেন্ট অন্তর্ভুক্তে থাকবে। যেমন আপনার ওয়েবসাইটের কোনো একটি পোস্ট কেউ কপি করে নিজের ওয়েবসাইটে পাবলিশ করে টাকা আয় করছে। আপনি বুঝতে পারছেন ব্যাপারটি। কিন্তু আপনি আপনার অভিযোগটি কোথায় করবেন বুঝে উঠতে পারছেন না। সবার আগে আপনি যে কাজটি করতে পারেন সেটি হলো আপনি তাকে একটি মেইল করলেন । মেইলে তাকে বললেন আপনার কন্টেন্টটি রিমুভ করে দিতে। এরপরেও সে যদি কন্টেন্ট রিমুভ না করে তখন আপনি কি করবেন। এরকম পরিস্থিতিতে আপনি গুগলে গিয়ে মেইল করতে পারেন। 

আপনি গুগলে গিয়ে DMCA আবেদন করতে পারেন পোস্টটি উল্লেখ করে। তখন গুগল আপনার কন্টেন্ট রিমুভ করে দিবে। কিন্তু আপনি চাইলে নিজেই এই সার্ভিসটি নিতে পারেন। DMCA সার্ভিসটি আপনি যদি ব্যবহার করেন তাহলে কে কখন কিভাবে আপনার কন্টেন্টটি ব্যবহার করছে আপনি তার খোঁজ পেয়ে যাবেন। এবং সাথে সাথে আপনি আইনি ভাবে পদক্ষেপে নিতে পারবেন। তবে DMCA সার্ভিসটি একটি পেইড সার্ভিস। DMCA এর এই সার্ভিসটি আপনার কন্টেন্টটি ফিল্টার করবে। এই সার্ভিসটি চালু করলে আপনার কন্টেন্টটি যখন কেউ পড়তে আসবে তখন তার কাছে কন্টেন্ট কপি না করার জন্য একটি নোটিফিকেশন যাবে।

আপনি যদি ওয়েবসাইটের মালিক হয়ে থাকেন তাহলে আপনার নিশ্চয় সারাক্ষণ মাথায় ঘুরতে থাকে যে কেউ যদি আপনার কন্টেন্ট অথবা ইমেজ চুরি করে নি। কেউ যদি আপনার কন্টেন্টের অপব্যবহার করে ফেলে। আপনি যদি এসব নিয়ে দুশ্চিন্তায় থাকেন তাহলে আপনাকে বলছি এগুলো নিয়ে চিন্তা করার কিছু নেই। কারণ ইন্টারনেট দুইনিয়া যেরকম দিন দিন উন্নত হচ্ছে সেরকম তার পাশপাশি ইন্টারনেট দুনিয়াকে সুরক্ষিত রাখতে তৈরি হচ্ছে নানা রকমের আইন কানুন। আপনি যদি কোনো আবে প্রমাণ করতে পারেন কন্টেন্ট বা ইমেজ বা গান বা ভিডিওটির মালিক আপনি তাহলে সেটি যদি কেউ চুরি করে তার ওয়েবসাইটে পাবলিশ করে তাহলে আপনি তার ওয়েবসাইট থেকে আওইনি পদক্ষেপে অনুসরণ করে কন্টেন্টটি রিমুভ করতে পারবেন। 

এজন্য আপনাকে শুধু খুঁজে বের করতে হবে আপনার কন্টেন্টটি কোথায় কোথায় এবং কিভাবে ব্যবহার করা হচ্ছে। এখন আপনার মনে প্রশ্ন আসতেই পারে আপনার কন্টেন্টটি যদি অনেক জায়গায় ব্যবহার করা হয় তখন আপনি এত গুলো জায়গা খুজবেন কিভাবে। এরকম পরিস্থিতে আপনার জন্য ইন্টারনেটে অনেক টুলস রয়েছে যা আপনাকে খুজতে সাহায্য করবে আপনার পোস্টটি কোথায় কোথায় ব্যবহার করা হচ্ছে। টুলসগুলো আপনাকে সাহায্য করবে আপনার কন্টেন্টটি কোন কোন ওয়েবসাইটের কোন কোন পেজে ব্যবহার করা হচ্ছে সব কিছু। 

এসব জানার পর আপনি আপনার কন্টেন্টের জন্য DMCA এর মাধ্যমে আইনিভাবে পদক্ষেপ নিতে পারবেন। 

আশা করি এতক্ষনে DMCA কি এবং DMCA কেন ব্যবহার করা হয় তা পুরোপুরি ভাবে আপনাদের মাথায় গেঁথে গিয়েছে। DMCA কি এটা মোটামুটি সবাই জানে। কিন্তু এটা জানে না DMCA কেন ব্যবহার করা হয়। তাহলে আপনি এখন থেকে যখনি কোনো কন্টেন্ট পরবেন তখনি সচেতন হয়ে যাবেন কোনো কিছু অপব্যবহার করার আগে। DMCA এর মাধ্যমে যে কন্টেন্ট চুরি করবে তার কঠিনতর শাস্তি হতে পারে। তাই এখন থেকে নিজে সচেতন এবং DMCA কি DMCA কেন ব্যবহার করা হয় এসব জেনে নিজের ওয়েবসাইটকে সুরক্ষিত রাখুন। কারো যদি কিছু জাআন্র থাকে তাহলে কমেন্ট সেকশনে জানাতে ভুল্বেন না।

পরিচিতদেরকে জানাতে শেয়ার করুন

0 Comments

দয়া করে নীতিমালা মেনে মন্তব্য করুন ??

অর্ডিনারি আইটি কী?