অর্ডিনারি আইটি https://www.ordinaryit.com/2023/01/24-January.html

২৪ জানুয়ারি কি দিবস - ২৪ জানুয়ারি ইতিহাসের এই দিনে

২৪ জানুয়ারি কি দিবস? জানতে চান? তাহলে আপনাকে সম্পূর্ণ আর্টিকেল মনোযোগ সহকারে পড়তে হবে। কারণ এই আর্টিকেলে ২৪ জানুয়ারি কি দিবস? তা নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করা হবে। তাই বলছি আপনি যদি ২৪ জানুয়ারি কি দিবস? এছাড়া এ সম্পর্কে আরও অনেকগুলো বিষয় জানতে চান তাহলে শেষ পর্যন্ত আমাদের সঙ্গে থাকুন।

আপনি যদি শেষ পর্যন্ত আমাদের সঙ্গে থাকেন তাহলে ২৪ জানুয়ারি কি দিবস? বিস্তারিতভাবে জানতে পারবেন। তাহলে চলুন আর কথা না বাড়িয়ে ২৪ শে জানুয়ারি কি দিবস? তা জেনে নেওয়া যাক।

কনটেন্ট সূচিপত্রঃ ২৪ জানুয়ারি কি দিবস - ২৪ শে জানুয়ারি কি দিবস

২৪ জানুয়ারি কি দিবস - ২৪ শে জানুয়ারি কি দিবসঃ ভূমিকা

প্রিয় বন্ধুরা আমরা অনেকেই ২৪ জানুয়ারি কি দিবস? এই বিষয়টি সম্পর্কে জানি না। আমাদের স্বাধীনতার সাথে সম্পৃক্ত অনেকগুলো গুরুত্বপূর্ণ দিবস রয়েছে সেগুলোর মধ্যে এই দিবসটি অন্যতম একটি। আপনাদের আজকের এই আর্টিকেলে ২৪ জানুয়ারি কি দিবস এ বিষয়ে বিস্তারিত জানাবো। এছাড়া ২৪ জানুয়ারি কি দিবস? ২৪ জানুয়ারি ইতিহাসের এই দিনে, ২৪ জানুয়ারি ঐতিহাসিক গণঅভ্যুত্থান দিবস, ২৪ জানুয়ারি ১৯৬৯ নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করব।

২৪ শে জানুয়ারি কি দিবস

সর্বপ্রথম আমাদের আর্টিকেল এর মূল আলোচনার বিষয় ২৪ শে জানুয়ারি কি দিবস? তা জেনে নেওয়া যাক। আপনারা যারা আমাদের এই আর্টিকেল পড়ছেন তারা সাধারণত ২৪ জানুয়ারি কি দিবস? এ বিষয়টি সম্পর্কে জানার জন্যই আমাদের আর্টিকেল ওপেন করেছেন।

আরো পড়ুনঃ বাংলাদেশ সংবিধান প্রণয়নের ইতিহাস - সংবিধান প্রেরণের পদ্ধতি

প্রতিবছর ২৪ জানুয়ারি ঐতিহাসিক গণঅভ্যুত্থান দিবস পালন করা হয়। বাংলাদেশের স্বাধীনতার ইতিহাসের সূচনা হিসেবে মনে করা হয় ৬৯ এর গণঅবস্থান কে। ১৯৫২ সালের ভাষা আন্দোলন, বাঙালির মুক্তির সনদ ৬ দফা, পরবর্তীতে ১১ দফা ও ঊনসত্তরের গণঅভ্যুত্থান এর রক্তাক্ত সশস্ত্র মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে বাঙালি জাতির অর্জন করে স্বাধীন বাংলাদেশ।

গণঅভ্যুত্থান এর জন্য স্বাধীনতার আন্দোলনের গতি আরো বৃদ্ধি পায়। ২০ জানুয়ারি ১৯৬৯ সালে পাক-হানাদার পুলিশের গুলিতে শহীদ হন গণঅভ্যুত্থানের নায়ক শহীদ আসাদ। আসাদের আত্মদানের পর রক্তমাখা শার্ট নিয়ে তাৎক্ষণিক মিছিলে বের হয়ে যায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্ররা। শুরু হয়ে যায় তীব্র আন্দোলন। এরপরে ২১, ২২, ২৩ জানুয়ারি পালন করা হয় সারা দেশে।

২৪ জানুয়ারি ঢাকা সচিবালয়ের সামনে রাজপথে নবকুমার ইনস্টিটিউট নবম শ্রেণীর ছাত্র কিশোর মতিউর একজন শহীদ হয়েছিলেন। তাই প্রতিবছর বাংলাদেশের মানুষকে এবং আগামী প্রজন্মকে মনে করিয়ে দেওয়ার জন্য ২৪ জানুয়ারি গণঅভ্যুত্থান দিবস পালন করা হয়। আশা করি ২৪ জানুয়ারি কি দিবস বিষয়টি সম্পর্কে জানতে পেরেছেন।

২৪ জানুয়ারি ইতিহাসের এই দিনে

প্রিয় বন্ধুরা উপরের আলোচনা থেকে আমরা ২৪ জানুয়ারি কি দিবস? এ বিষয়টি সম্পর্কে জেনেছি এখন ২৪ জানুয়ারি ইতিহাসের এই দিনে কি হয়েছিল সেই বিষয়গুলো সম্পর্কে আপনাদের জানাবো। আপনি যদি ২৪ জানুয়ারি ইতিহাসের এই দিনে কি হয়েছিল জানতে চান তাহলে অবশ্যই সম্পূর্ণ আর্টিকেল মনোযোগ সহকারে পড়ুন।

১৩২৮ সালের ২৪ জানুয়ারি - ইংল্যান্ডের রাজা তিতীয় এডওয়ার্ড বিয়ে করেন।

১৪৫৮ সালের ২৪ জানুয়ারি - প্রথম ম্যাথিয়াস হাঙ্গেরির রাজা হিসেবে অভিষিক্ত হন।

১৫৫৬ সালের ২৪ জানুয়ারি - চীনে বড় ধরনের ভূমিকম্প হয়।

১৯০৮ সালের ২৪ জানুয়ারি - ইংল্যান্ডের বয় স্কাউট আন্দোলনের সূচনা হয়।

আরো পড়ুনঃ সংবিধান সংরক্ষন দিবস - বাংলাদেশের সংবিধানের ধারা কয়টি

১৯৪১ সালের ২৪ জানুয়ারি - ব্রিটিশ সেনাবাহিনী আবিসিনিয়া অভিযান শুরু করে।

১৯৫০ সালের ২৪ জানুয়ারি - ডক্টর রাজেন্দ্র প্রসাদ ভারতের প্রথম রাষ্ট্রপতি নির্বাচিত হন।

১৯৫২ সালের ২৪ জানুয়ারি - বোম্বেতে সর্বপ্রথম আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব শুরু হয়।

১৯৬৯ সালের ২৪ জানুয়ারি - পাকিস্তানের অপশাসনের বিরুদ্ধে ঢাকায় গণ অভ্যুত্থান ঘটে এবং এতে কিশোর মতিউর পুলিশের গুলিতে নিহত হয়েছিলেন।

১৯৭২ সালের ২৪ জানুয়ারি - সোভিয়েত ইউনিয়ন বাংলাদেশকে স্বীকৃতি দেয়।

১৯৭৪ সালের ২৪ জানুয়ারি - সংসদে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় মোহাম্মদ উল্লাহ বাংলাদেশের তৃতীয় রাষ্ট্রপতি নির্বাচিত হন।

১৯৮৮ সালের ২৪ জানুয়ারি - চট্টগ্রামে শেখ হাসিনার সমাবেশ পুলিশের হাতে নির্বিচারে গণহত্যা সংঘটিত হয়।

২৪ জানুয়ারি ঐতিহাসিক গণঅভ্যুত্থান দিবস - ২৪ জানুয়ারি ১৯৬৯

প্রিয় বন্ধুরা আজকের এই আর্টিকেলে আমরা এখন ২৪ জানুয়ারি ১৯৬৯ সালে কি ঘটেছিল অর্থাৎ ২৪ জানুয়ারি ঐতিহাসিক গণঅভ্যুত্থান দিবস সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করব। এই আর্টিকেল থেকে আপনি ২৪ জানুয়ারি ঐতিহাসিক গণঅভ্যুত্থান দিবস সম্পর্কে জানতে পারবেন চলুন ২৪ জানুয়ারি ১৯৬৯ সালে কি হয়েছিল তা জেনে নেওয়া যাক।

১৯৬৯ সালের আগে পর্যন্ত আইয়ুব বিরোধী আন্দোলন ছিল মূলত ছাত্র শিক্ষক কেন্দ্রিক। কিন্তু এটি এক সময় কৃষক-শ্রমিক রাজনৈতিক কর্মী এমনকি সারা বাংলাদেশের মানুষের আন্দোলন হয়ে ওঠে। বাংলাদেশের সকল মানুষ সামরিক শাসনের বিরুদ্ধে। ফলে আইয়ুববিরোধী আন্দোলনে রূপ নিয়েছিল এক সময় এই আন্দোলন।

আরো পড়ুনঃ জেল হত্যা দিবসের ইতিহাস - ৩ নভেম্বর জেল হত্যার পূর্বাপর

তৎকালীন পাকিস্তান সরকার ছাত্রসমাজের ১১ দফা এবং জনতার ৬ দফা দাবিকে রাষ্ট্রবিরোধী দাবি বলে ঘোষণা করে এবং আগরতলা ষড়যন্ত্রমূলক মামলা সাজিয়ে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে গ্রেপ্তার করেন। যার ফলে সম্পূর্ণ বাংলাদেশের ছাত্র জনতা আন্দোলনে ফেটে পড়ে ধীরে ধীরে ছাত্র-জনতার ১১ দফা ও আওয়ামী লীগ সরকারের ছয় দফা উপেক্ষিত হলে ১৯৬৯ সালে বাংলাদেশ বাসি তীব্র আন্দোলনে বের হয়ে যায়।

২৪ জানুয়ারি কি দিবস - ২৪ শে জানুয়ারি কি দিবসঃ উপসংহার

২৪ জানুয়ারি ১৯৬৯, ২৪ জানুয়ারি ঐতিহাসিক গণঅভ্যুত্থান দিবস, ২৪ জানুয়ারি ইতিহাসের এই দিনে, ২৪ জানুয়ারি কি দিবস? বিষয়টি সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়েছে। প্রিয় বন্ধুরা আশাকরি আপনারাও বিষয়গুলো সম্পর্কে জানতে পেরেছেন। আপনাকে বিষয়গুলো জানাতে পেরে আমরা আনন্দিত। আপনার এবং আপনার পরিবারের সুস্থতা কামনা করে আজকের মত এখানেই শেষ করছি ধন্যবাদ। ২০৮৭৬

পরিচিতদেরকে জানাতে শেয়ার করুন

0 Comments

দয়া করে নীতিমালা মেনে মন্তব্য করুন ??

অর্ডিনারি আইটি কী?