অর্ডিনারি আইটি https://www.ordinaryit.com/2022/04/roja-sompnodosh.html

রোজা অবস্থায় স্বপ্নদোষ হলে গোসলের নিয়ম - রমজানে স্বপ্নদোষ হলে করণীয়

অনেকেই আছেন যাদের প্রায়ই স্বপ্নদোষ হতেই থাকে। এরকম হলে আমাদের কি করতে হবে তা আমরা অনেকেই জানি। কিন্তু রোজা অবস্থায় স্বপ্নদোষ হলে গোসলের নিয়ম বা রমজানে স্বপ্নদোষ হলে করণীয় কি তা হয়তো আমরা জানি না। তাই আজ আমরা জানবো রোজা অবস্থায় স্বপ্নদোষ হলে গোসলের নিয়ম বা রমজানে স্বপ্নদোষ হলে করণীয় কি?

তাহলে চলুন দেরী না করে জেনে নিই রোজা অবস্থায় স্বপ্নদোষ হলে গোসলের নিয়ম ও রমজানে স্বপ্নদোষ হলে করণীয় কি?

সূচিপত্রঃ রোজা অবস্থায় স্বপ্নদোষ হলে গোসলের নিয়ম - রমজানে স্বপ্নদোষ হলে করণীয়

রোজা অবস্থায় স্বপ্নদোষ হলে গোসলের নিয়ম

রোজা রাখা অবস্থায় যদি স্বপ্নদোষ হয়ে থাকে তবে রোজা ভাঙ্গে না। তবে ফরজ গোসল করতে হয়। ফরজ গোসলের ৩ টি ফরজ। রোজা অবস্থায় স্বপ্নদোষ হলে গোসলের নিয়ম নিচে লেখা হলো -

১। কুলি করা (গড় গড়া সহ)

২। নাকে পানি দেয়া

৩। সমস্ত শরীর ধোয়া

আরো পড়ুনঃ রোজা থাকা অবস্থায় ফরজ গোসলের নিয়ম কি জেনে নিন

সে ক্ষেত্রে ফরজ গোসল করার সময় গড় গড়া সহ কুলি করতে হবে। তবে গড় গড়া সহ কুলি করার সময় মুখের ভিতর পানি চলে গেলে রোজা ভেঙ্গে যাবার সম্ভাবনা থাকে। তাই আপনি গড় গড়া সহ কুলি করার সময় খেয়াল রাখবেন যেন আপনার মুখের ভেতরে পানি চলে না যায়। তারপর আপনার দুই হাতের কব্জি পর্যন্ত ধুয়ে নিবেন। এরপর ডান হাতের পানি বাম হাতে নিয়ে বাম হাত দিয়ে নাপাক স্থান ধুয়ে নিবেন। তারপর অজু করে গোসল করে নিবেন।

রমজানে স্বপ্নদোষ হলে করণীয়

স্বপ্নদোষ হলে করণীয় কি কি তা অনেকেই জানতে লজ্জাবোধ করে থাকেন। তাই স্বপ্নদোষ হলে অনেকেই রোজা ভেঙে গেছে মনে করে দিনের বেলায় খেয়ে থাকে। আসলে এ বিষয়টি জেনে নেওয়া কোন লজ্জার কারণ নয়। রমজানে স্বপ্নদোষ হলে করণীয় গুলো তুলে ধরা হলো -

অনেকেই মনে করেন রমজানে রোজা অবস্থায় স্বপ্নদোষ হলে রোজা ভেঙ্গে যায়। তাদের এরকম ধারণা সঠিক নয়। কারণ স্বপ্নদোষের কারনে কখনো রোজা ভাঙ্গে না। হাদীসে এসেছে, তিনটি জিনিস রোজা ভঙ্গের কারণ নয় -

  • শিঙ্গা লাগানো
  • বমি
  • স্বপ্নদোষ

অর্থাৎ রমজানে রোজা অবস্থায় স্বপ্নদোষ হলে রোজা ভেঙ্গে গেছে বলে খাওয়া ঠিক নয়। তার চেয়ে রোজা করে সেটাকে পরিপূর্ণ করা। আল্লাহ তাআলা সকল মুসলিম উম্মাহকে ইসলামের সমস্ত বিষয় সমূহ এবং তা মেনে চলার তৌফিক দান করুন। আমিন।

রমজানে দিনের বেলা স্বপ্নদোষ হলে রোজা কি ভেঙ্গে যাবে?

রমজান মাসে রোজা থাকা অবস্থায় দুপুরবেলায় ঘুমানো কারণ নেয়। দুপুর বেলা ঘুমালে রোজা ভাঙ্গে না। এমনকি দুপুর বেলা ঘুমের মধ্যে স্বপ্নদোষ হলে সেটার কারণে রোজা নষ্ট হয় না। তবে স্বপ্নদোষ হলে গোসল করা ফরজ হয়ে যায়। উম্মুল মুমিনীন হযরত উম্মে সালমা (রাঃ) বলেন, আবু তালহা (রাঃ) এর স্ত্রী উম্মে সুলাইম (রাঃ) হযরত মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের কাছে এসে বললেন, ইয়া রাসুলুল্লাহ! আল্লাহ তাআলা ছিলেন সত্যের বিষয়ে নিঃসঙ্কোচ।

তিনি জিজ্ঞাসা করেন কোন নারীর যদি স্বপ্নদোষ হয় তাহলে কি তার ওপর গোসল করা ফরজ হয়ে যায়? আল্লাহর রাসূল (সাঃ) উত্তরে বলেছিলেন," হ্যাঁ" তবে সে যদি পানি বা ভেজা দেখতে পান। (সহিহ বুখারী ১/৪২)


অর্থাৎ এই হাদিস থেকে বোঝা যাচ্ছে যে, মেয়েদের ও ছেলেদের মতোই স্বপ্নদোষ হয়। আর স্বপ্নদোষ হলে উভয়ের (ছেলে এবং মেয়ে) গোসল করা ফরজ হয়ে যায়।

রমজানে সহবাস করা যাবে কিনা

সিয়ামের রাতে তোমাদের স্ত্রীদের তোমাদের  জন্য গমন হালাল করেছেন। তোমরা তাদের জন্য পরিচ্ছদ এবং তারাও তোমাদের জন্য পরিচ্ছদ। আল্লাহ তায়ালা জেনেছেন, তোমরা নিজেদের নিকট খেয়াল করছিলে। অতঃপর তোমাদের তওবা তিনি কবুল করেছেন এবং তোমাদেরকে ক্ষমা ও করে দিয়েছেন। সুতরাং তোমরা এখন তাদের সাথে মিলিত হওয়া। এবং আল্লাহ যা লিখে দিয়েছেন তোমাদের জন্য তার খোঁজ করো। (বাকারা ১৮৭)

আল্লাহতালা বলেছেন রমজান মাসে ইফতারের পর থেকে সেহরির আগমুহূর্ত পর্যন্ত স্ত্রীর সাথে সহবাস হালাল করেছেন। তবে রমজান মাসে সহবাসের ক্ষেত্রে অবশ্যই সাবধানতা অবলম্বন করতে হবে। কারণ রমজান মাসে কেউ যদি রোজা থাকা অবস্থায় দিনের বেলায় সহবাসে লিপ্ত হয় তার জন্য নিম্নের বিষয়গুলো বর্ধিত হবে -

  • সে গুনাহগার হবে
  • তার সেই দিনের রোজা টা নষ্ট হবে
  • সেদিনের রোজার কাযা ওয়াজিব করা হবে
  • সেদিনের বাকি অংশ পানাহার এবং যৌন মিলন থেকে বিরত থাকবে
  • সেদিনের রোজার কাফফারা ওয়াজিব হবে অর্থাৎ একনাগাড়ে ষাট দিন রোজা রাখতে হবে

ফরজ গোসল না করে সেহেরী খাওয়া যাবে কি না

ইসলামের সমস্ত আদেশ-নির্দেশ, হুকুম আহকাম পালন সবকিছু পবিত্রতার উপর নির্ভর করে। সেজন্য পবিত্রতাকে বলা হয়েছে ঈমানের অঙ্গ। এখানে পবিত্রতা বলতে বাতেনী ও জাহেরী সকল প্রকার নাপাকি হতে পবিত্র হবার কথা বুঝানো হয়েছে। পবিত্রতার উপকারিতা এবং ফজিলত অনেক। রোজা অবস্থায় স্বপ্নদোষ হলে গোসলের নিয়ম ও রমজানে স্বপ্নদোষ হলে করণীয় হল ফরজ গোসল করা।

আরো পড়ুনঃ রোজা থাকা অবস্থায় মিলনের নিয়ম

ফরজ গোসল না করে সেহরি খাওয়া যাবে কি না? গোসল ফরজ হওয়া অবস্থায় তাওয়াফ, নামাজ, মসজিদে যাওয়া এবং কোরআন তেলাওয়াত ও স্পর্শ করা ছাড়া বাকি সবগুলো কাজ করা যাবে। এমনকি সেহরি ও খেতে পারবেন। তবে একটা কথা মনে রাখতে হবে যে, গোসল ফরজ হওয়ার পরও বিনা কারণে অপবিত্র অবস্থায় এক অক্ত নামাজের সময় পার হয়ে যাওয়া মারাত্মক গুনাহ। (বাদায়ে ১/১৫১)

ফরজ গোসল সম্পর্কে বিস্তারিত

যে গোসল করা অপরিহার্য তাকে ফরজ গোসল বলে। ঘুমের মধ্যে কারো স্বপ্নদোষ হলে স্বামী স্ত্রীর মিলনে ফরজ গোসল করতে হয়। আর সেটা থেকে পবিত্রতা অর্জনের জন্য আল্লাহ তাআলা বলেন, তোমরা যদি নাপাক হয়ে থাক, তাহলে গোসল করো।[ সূরা মায়েদাহঃ ৬]

মহান আল্লাহ তা'আলা বলেন - হে ঈমানদারগণ! তোমরা যখন মাতাল অবস্থায় থাকো তখন তোমরা নামাজের ধারের কাছে যেও না। যতক্ষণ পর্যন্ত তোমরা না বুঝতে পারবে তোমরা কি বলছো। আবার যৌন সঙ্গম করার পরে যতক্ষণ না গোসল করছ। [ সূরা আন নিসাঃ ৪৩]

যেসব কারণে ফরজ গোসল করতে হয়

  • স্বপ্নদোষ বা উত্তেজনাবশত বীর্যপাত হলে
  • নারী-পুরুষ মিলনে সহবাসে বীর্যপাত হোক বা না হোক
  • ইসলাম গ্রহণ করলে (নব মুসলিম হলে)
  • স্বপ্নের কথা মনেই থাকুক বা না থাকুক শরীর, কাপড় বা বিছানায় বীর্যের কোন চিহ্ন দেখতে পেলে
  • নিফাস (সন্তান প্রসবের পর যে রক্ত স্রাব হয়) শেষ হলে
  • মহিলাদের মাসিক ঋতুস্রাব বন্ধ হলে
  • স্ত্রী-পুরুষ কারো উত্তেজনার সাথে বীর্যপাত বের হলে ফরজ গোসল ছাড়া নামাজ হবে না

শেষ কথাঃ রোজা অবস্থায় স্বপ্নদোষ হলে গোসলের নিয়ম - রমজানে স্বপ্নদোষ হলে করণীয়

রোজা অবস্থায় স্বপ্নদোষ হলে গোসলের নিয়ম ও রমজানে স্বপ্নদোষ হলে করণীয় সম্পর্কে জানতে হলে আমাদের পুরো পোস্টটি পড়ুন। রোজা অবস্থায় স্বপ্নদোষ হলে গোসলের নিয়ম ও রমজানে স্বপ্নদোষ হলে করণীয় সম্পর্কে সবার আগে জানতে হলে আমাদের সাথে থাকুন। রোজা অবস্থায় স্বপ্নদোষ হলে গোসলের নিয়ম ও রমজানে স্বপ্নদোষ হলে করণীয় সম্পর্কে জানতে হলে আমাদের পুরো আর্টিকেলটি ভালভাবে পড়ুন, আশা করি সবকিছু ভালোভাবে বুঝতে পারবেন।

আজ আর নয়, রোজা অবস্থায় স্বপ্নদোষ হলে গোসলের নিয়ম ও রমজানে স্বপ্নদোষ হলে করণীয় সম্পর্কে যদি আপনার কিছু জানার থাকে, তাহলে আমাদের কমেন্ট বক্সে জানাতে পারেন। আশা করছি আমরা আপনার উত্তরটি দিয়ে দিব। তাহলে আমাদের আজকের এই রোজা অবস্থায় স্বপ্নদোষ হলে গোসলের নিয়ম ও রমজানে স্বপ্নদোষ হলে করণীয় পোস্টটি যদি আপনাদের ভালো লেগে থাকে, তাহলে আপনাদের ফেসবুক ইনস্টাগ্রাম প্রোফাইল নিয়ে আমাদের পোস্টটি শেয়ার করতে পারেন, ধন্যবাদ।

পরিচিতদেরকে জানাতে শেয়ার করুন

0 Comments

দয়া করে নীতিমালা মেনে মন্তব্য করুন ??

অর্ডিনারি আইটি কী?