অর্ডিনারি আইটি https://www.ordinaryit.com/2020/04/blogspot.html

ব্লগস্পট বা ব্লগার ব্লগ এড়িয়ে চলার ১০টি কারণ

জেনে নিন ব্লগস্পট বা ব্লগার ব্লগ এড়িয়ে চলার ১০টি উপযুক্ত কারণ। ব্লগস্পট বা ব্লগার ব্লগ হলো গুগলের একটি ফ্রি ব্লগিং প্লাটফর্ম। আপনি যদি একজন নতুন ব্লগার হয়ে থাকেন। কিংবা ব্লগিং পেশায় ঢুকবেন কিন্তু আপনি চাচ্ছেন সম্পূর্ণ ফ্রিতে শুরু করবেন কোন প্রকার ডোমেইন হোস্টিং ক্রয় ছাড়াই। তাহলে ব্লগস্পট বা ব্লগার ব্লগ আপনার জন্য।

ব্লগস্পট বা ব্লগার ব্লগ কি?

ব্লগস্পট বা ব্লগার ব্লগ সম্পূর্ণ ফ্রী একটি প্লাটফর্ম যেখানে আপনি ফ্রীতে একটি ব্লগস্পট এর সাব ডোমেইন পাবেন এবং সাথে ফ্রী হোস্টিং পাচ্ছেন যা ব্লগিং শুরু করার জন্য যথেষ্ট। তবে এর পরও কিছু বার্ধক্য থাকে। আজ আমরা আপনাদের কে ব্লগস্পট ডোমেইন এড়িয়ে চলার জন্য ১০ টি কারণ তুলে ধরব এই কন্টেন্টে। তো চলুন দেখে আসি কারণ গুলো।

১. ব্লগস্পট বা ব্লগার ব্লগ ইউজ করলে ব্র্যান্ডের ক্ষতি করবেন

আপনি যদি কোন একটি কোম্পানি বা সংস্থা জন্য কোন সাইট ডেভেলপ করতে চাচ্ছেন। তাও আবার ব্লগস্পটে, তাহলে এটি আপনার জন্য বড় ধরণের ভুল হবে। আর আপনার ব্র্যান্ড এর ব্র্যান্ডিংই ক্ষতি হবে।

কেননা আপনি যেই সাইটটি ব্লগস্পট থেকে নিবেন সেটি হচ্ছে একটি সাব ডোমেইন যা আপনার ব্র্যান্ডিং এর সাথে খাপ খায় না। তাছাড়াও আপনি আয় করার জন্য যদি ওয়েবসাইট করতে চান তাহলে অবশ্যই ব্লগস্পট বা ব্লগার ব্লগ ইউজ করা এড়িয়ে চলা শ্রেয় হবে বলে আমি মনে করি।

তাই চেষ্টা করুন কাস্টম ডোমেইন ক্রয় করার জন্য এবং একটি আলাদা হোস্টিং এ আপনার সাইট ডেভেলপ করার। আমি পার্সোনালি বলবো আপনি WordPress এ আপনার সাইট ডেভেলপ করার জন্য।

২. ব্লগস্পট সাইট গুগলে ভালো পারফর্ম করে না

আপনি যদি কোন বিষয়ে গুগলে সার্চ দিয়ে দেখেন তাহলে আপনি কোন ব্লগস্পট এর সাব ডোমেইন এর সাইট পাবেন না সহজে। কেননা ব্লগস্পট যদিও গুগলের প্লাটফর্ম, কিন্তু তারপরও ব্লগস্পট সাইটকে গুগল সহজে প্রাইয়োটি দেয় না।

বর্তমান সময়ে SEO হচ্ছে সবচেয়ে বড় একটি চ্যালেঞ্জিং বিষয়। আর ব্লগস্পটে ফ্রী সাইট তৈরি করে SEO করে নিজের সময় অযথা শেষ করা বোকামি।

৩. ব্লগস্পট বা ব্লগার ব্লগ ইউজ করলে ব্যাকলিঙ্ক অর্জন করা চ্যালেঞ্জিং

ব্যাকলিঙ্ক হলো SEO এর আরেকটি অন্যতম কাজ। আপনি যদি বড় ধরনের কোন সাইট থেকে ব্যাকলিঙ্ক নিতে চান, তাহলে আপনাকে রীতিমত যুদ্ধের সমুক্ষিন হতে হবে। কেননা কোন সাইট Owner আজকাল ব্লগস্পট সাইট গুলোকে ব্যাকলিঙ্ক দিতে চায় না।

৪. ব্লগস্পট বা ব্লগার ব্লগ ইউজ করলে অথরিটি তৈরি করতে পারবেন না

Link Building এবং SEO ক্ষেএে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হলো ওয়েবসাইট অথরিটি। কেননা একটি সাইটকে সহজে র‌্যাংকিং করা যায় তখনই, যখন ওয়েবসাইটের অথরিটি থাকে।

আপনি যদি বড় বড় ওয়েব সাইট গুলোর দিকে খেয়াল করেন তাহলে দেখতে পারবেন তারা পোস্ট পাবলিশ করার ঘন্টা অথবা ২ ঘন্টা পর তাদের পোস্ট র‌্যাংকিং করা শুরু করে দেয়। এটি হল ওয়েবসাইট এর গুড অথরিটি জন্য।

যে কারণে আমি ব্লগস্পট বা ব্লগার ব্লগ ইউজ করা থেকে এড়াতে বলছি তার প্রধান কারণ হলো SEO জন্য। তবে এতে আবার Non-SEO এর ও অনেক কারণ রয়েছে।

৫. ব্লগস্পট বা ব্লগার ব্লগ ইউজ করলে ব্লগের প্রকৃত মালিক হতে পারবেন না

আপনি Blogger.com এর সুধু মাএ কন্টেন্ট এর মালিক। আপনি বছরের পর বছর কষ্ট করে SEO করলেন হাজারো কন্টেন্ট লিখলেন, কিন্তু এসকল কিছুই সেকেন্ডে নিমিষেই শেষ করা যায়।

কিন্তু আপনি যদি একটি কাস্টম ডোমেইন এ মাধ্যমে কাজ শুরু করেন, এটির মালিক আপনি সব কিছু আপনার মতো করে চলবে এখানে।

অর্থাৎ আপনি কোন তৃতীয় পক্ষের কাছে বা তাদের শর্তাবলীর কাছে সীমাবদ্ধ নন।

৬. ব্লগস্পট বা ব্লগার ব্লগ ইউজ করলে ব্লগস্পটের শর্তাবলি মানতে হবে

যেহেতু blogger.com আপনার ব্লগ এবং সমস্ত কিছুর ই মালিক। তাই আপনাকে তাদের সকল বিধি নিষেধ মানতে হবে। মূল কথা হলো আপনি blogger.com এ সাইন আপ করার পর থেকে তাদের সকল কিছুর সম্মতি প্রদান করছেন।

যদি কোন কারণে ভুলে ক্রমে আপনি কোন শর্ত ভঙ্গ করে ফেলেন। এতে তারা তাতক্ষণিকভাবে আপনার ব্লগ সাইটি ডিলেট করে দিতে পারে।

৭. ব্লগস্পট বা ব্লগার ব্লগ ইউজ করলে মনিটাইজেশন করতে পারবেন না

আপনি আপনার ব্লগস্পট সাইটি মনিটাইজেশন করতে পারবেন কিন্তু তা অনেক সীমাবদ্ধতা মধ্য। অ্যাডসেন্স ব্যবহার করতে পারেন কিন্তু এতে অনেক বিধিনিষেধ রয়েছে।

আপনার সাইটি এক প্রকার বিধিনিষেধ এর মধ্য দিয়ে সব সময় যেতে হয়। নিজের খুশি মত কিছুই আপনার হাতে থাকে না।

৮. কাস্টমাইজেশন সীমিত পাবেন ব্লগস্পট বা ব্লগার ব্লগ ইউজ করলে

একটি ওয়ার্ডপ্রেস সাইটে আপনার খুশি মতো UX ডিজাইন, কাস্টমাইজেশন করতে পারলেও, একটি ব্লগার সাইটে সেটি কখনো করা যায় না। ব্লগারে যে থিম গুলো রায়েছে সব গুলোই অনেক সীমিত ডিজাইন। 

আপনি যদি একজন প্রোগ্রামার না হন তাহলে আপনাকে অনেক ভোগান্তি পোহাতে হবে।

৯. অনেক ব্লগস্পট সাইট স্প্যামের সাথে জড়িত

লিঙ্ক বিল্ডিং করার উদ্দেশ্য ব্লগার রা 2.0 ওয়েব ব্যাকলিঙ্ক নিয়ে থাকে যেটি Grey Hat Method বলা হয়।
এর অর্থ তারা অনেক গুলো সাইট তৈরি করবে ব্লগস্পটে ফ্রীতে এবং সেখানে কিছু কন্টেন্ট পাবলিশ করে লিঙ্ক বিল্ডিং করে। যেগুলো আসলে Grey Hat এর আওতায় পরে। যা সুধু মাএ ব্যাকলিঙ্ক স্কোর বৃদ্ধি করার ক্ষেএে কৌশল গুলো ব্যবহৃত হয়। এটি সঠিক পথ না।

তাই আপনি কি এমন একটি প্লাটফর্মে আপনার সাইটি হোস্ট করবেন? যেখানে স্প্যামিং এর কার্যকালাপ বেশি হয়?

১০. ব্লগস্পট বা ব্লগার ব্লগ ইউজ  করা মানেই আপিনি প্রতিশ্রুতিবদ্ধ নন

যদি আপনি একটি ডোমেইন ক্রয় করেন এবং হোস্টিং ক্রয় করেন। তাহলে আপনার সকল মনোভাব পরিবর্তন হয়ে যাবে। আপনার একটি প্রতিশ্রুতিবদ্ধতা সৃষ্টি হবে। প্রত্যেক বছর আপনি এই ডোমেইনের এবং হোস্টিং এর টাকা রিনিউ করা লাগবে এই জিনিস টি যখন আপনার মাথায় কাজ করা শুরু করবে। তখন আপনার কাজ করার মানষিকতা সৃষ্টি হয়ে যায়।

কিন্তু ফ্রীতে ব্লগ সাইটে এই প্রতিশ্রুতিবদ্ধতা থাকেনা। যার কারণে আপনার মাঝে অলসতা কাজ করে। যেটি আপনার ব্লগিং ক্যারিয়ারে অসফলতার মূল কারণ।

ব্লগস্পট বা ব্লগার ব্লগ এড়িয়ে চলার ১০টি কারণ

আশা করি ব্লগিং এ আসার আগে অন্ততপক্ষে এসব কিছু মাথায় রাখুন। আর ব্লগস্পটে সাইট করার আগে অন্তত একটু ভেবে চিন্তে করবেন।

আশা করি আমাদের আজকের টিউটোরিয়াল আপনাদের ভালো লেগেছে। যদি ভালো লাগে আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন। কিছু জানার থাকলে অবশ্যই কমেন্ট করবেন। ভালো থাকবেন। আমাদের Ordinary It সাথেই থাকুন।

অন্যদের সাথে শেয়ার করুন

0 Comments

দয়া করে নীতিমালা মেনে মন্তব্য করুন ??

সর্বশেষ আপডেটেড অফার পেতে চান?

অর্ডিনারি আইটি কী?