অর্ডিনারি আইটি https://www.ordinaryit.com/2022/11/diabetis.html

বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবস ২০২২ প্রতিপাদ্য - ডায়াবেটিস দিবস কর্মসূচি

বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবস ২০২২ প্রতিপাদ্য নিয়ে আজকের এই আর্টিকেল। ডায়াবেটিস সম্পর্কে মানুষকে সচেতন করতে বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবস পালন করা হয়। প্রতিবছর ডায়াবেটিস দিবসে একটি প্রতিপাদ্য বিষয় থাকে। বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবস ২০২২ প্রতিপাদ্য রয়েছে। আজকের আর্টিকেলে আমরা বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবস ২০২২ প্রতিপাদ্য বিষয় সম্পর্কে জানব।

আপনি যদি বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবস ২০২২ প্রতিপাদ্য সম্পর্কে জানতে চান তাহলে সম্পূর্ণ আর্টিকেল জুড়ে আমাদের সঙ্গে থাকুন। তো চলুন আর দেরি না করে বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবস ২০২২ প্রতিপাদ্য বিষয় সম্পর্কে আলোচনা শুরু করা যাক।

পেজ সূচিপত্রঃ বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবস ২০২২ প্রতিপাদ্য

বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবস ২০২২ প্রতিপাদ্যঃ উপস্থাপনা

আমরা কমবেশি সকলেই জানি যে ডায়াবেটিস একটি মারাত্মক রোগ। একবার ডায়াবেটিস হলে আর কখনো পুরোপুরি ভালো করা সম্ভব নয়। সাধারণত মানুষকে ডায়াবেটিস সম্পর্কে বেশি সচেতন করতে প্রতিবছর একটি নির্দিষ্ট দিনে বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবস পালন করা হয়। কারণ বর্তমানে ডায়াবেটিস রোগীর সংখ্যা দিন দিন বেড়ে চলেছে।

আরো পড়ুনঃ সকালে ব্যায়াম করার ১০ উপকারিতা - সকালে ব্যায়াম করার ১০ নিয়ম

তাই আজকের এই আর্টিকেলে আমরা বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবস ২০২২ প্রতিপাদ্য বিষয় সম্পর্কে আলোচনা করব। বিশ্বের সাথে তাল মিলিয়ে বাংলাদেশে প্রতিবছর বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবস পালন করে থাকে। এইবারের বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবস ২০২২ প্রতিপাদ্য বিষয় সম্পর্কে জেনে নেওয়া যাক।

বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবস কত তারিখ?

বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবস মানুষের কাছে আরো ভালোভাবে এবং আকর্ষণীয় করে তোলার জন্য একটি প্রতিপাদ্য রাখা হয়। প্রতিবারের মত বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবস ২০২২ প্রতিপাদ্য রয়েছে। বিশ্বজুড়ে ডায়াবেটিস রোগ সম্পর্কে সচেতনতা বৃদ্ধি করার লক্ষে বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবস পালন করা। বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবস প্রতিবছর ১৪ নভেম্বর বিভিন্ন কর্মসূচির দিবসটি পালন করা হয়

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা ১৯৯১ সালের ১৪ নভেম্বর থেকে ডায়াবেটিস দিবস পালন করার ঘোষণা দিয়েছিলেন। তখন থেকেই প্রতিবছর সারাবিশ্বে বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবস পালন হয়ে আসছে। সারা বিশ্বের সাথে তাল মিলিয়ে বাংলাদেশ ও বিভিন্ন কর্মসূচির মধ্য দিয়ে বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবস পালন করে থাকে। বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবস হল ১৪ নভেম্বর।

বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবস কর্মসূচি

বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবস এর একমাত্র উদ্দেশ্য এবং লক্ষ্য হলো ডায়াবেটিস রোগ সম্পর্কে মানুষকে সচেতন করা। প্রতিবছর ১৪ নভেম্বর সারাবিশ্বে ডায়াবেটিস দিবস পালন করা হয়। সারা বিশ্বের সাথে তাল মিলিয়ে বাংলাদেশেও বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবস কর্মসূচি পালন করা হয়। এই আর্টিকেলে আমরা বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবস ২০২২ প্রতিপাদ্য বিষয় সম্পর্কে আলোচনা করছি।

আমাদের বাংলাদেশ ১৪ নভেম্বর অর্থাৎ বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবস উপলক্ষে বিভিন্ন রকম কর্মসূচি পালন করা হয়। দেশের বিভিন্ন জায়গাতে ডায়াবেটিস দিবস উপলক্ষে ক্যাম্পেইন করা হয়। ক্যাম্পেইন গুলোতে ডায়াবেটিস সম্পর্কে মানুষকে সচেতন করা হয়। ডায়াবেটিস পরীক্ষা করা হয়। যদি কারো ডায়াবেটিস থাকে তাহলে তাকে সচেতন মূলক উপদেশ দেওয়া হয়।

আরো পড়ুনঃ আদা খাওয়ার ১৫ টি উপকারিতা - আদা খাওয়ার ৭ টি ক্ষতিকর দিক

কি করলে ডায়াবেটিস হবে না? এবং ডায়াবেটিস হয়ে গেলে কিভাবে চলাফেরা করলে কি খেলে ডায়াবেটিস সব সময় নিয়ন্ত্রণে থাকবে এ বিষয়ে মানুষকে তথ্য দেওয়া হয়। কারণ ডায়াবেটিস একবার কারো হয়ে গেলে সেটিকে পুরোপুরি ভাবে কখনোই ভালো করা যায় না ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে রাখতে হয়। সাধারণত বিভিন্ন রকম সচেতনমূলক কর্মসূচির মধ্য দিয়ে এ দিনটি পালন করা হয়।

বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবস ২০২২ প্রতিপাদ্য

২০০৭ সাল থেকে বিশ্ব ডায়াবেটিস উপলক্ষে প্রতিপাদ্য নির্ধারিত করা হয়। সেইবছর ডায়াবেটিস দিবস উপলক্ষে প্রতিপাদ্য বিষয় ছিল "শিশু ও তরুণদের মধ্যে ডায়াবেটিস" এরপর থেকে প্রতি বছর বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবস উপলক্ষে প্রতিপাদ্য ঘোষণা করা হয়। আজকের এই আর্টিকেলে আমরা বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবস ২০২২ প্রতিপাদ্য সম্পর্কে জানব।

ডায়াবেটিস রোগ একটি জটিল ও কঠিন রোগ। শিশুদের মধ্যে টাইপ-২ ডায়াবেটিস প্রতিরোধের জন্য স্বাস্থ্যকর জীবনযাপন আরও জনপ্রিয় করে তোলে। ডায়াবেটিস দিবস বিশ্বব্যাপী লক্ষ্য হলো কিভাবে ডায়াবেটিস থেকে মুক্তি পাওয়া যায়। পৃথিবীতে কোন শিশু যেন ডায়াবেটিসে মারা না যায়। একটি পরিবার পরিবেশ এবং দেশকে ডায়াবেটিস মুক্ত করে তোলা যায় কিভাবে?

এই বিষয়ে সচেতন করার জন্য বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবস পালন করা হয়। ২০২১ সালের ডায়াবেটিস দিবস এর প্রতিপাদ্য ছিল "ডায়াবেটিস সেবা নিতে আর দেরি নয়" প্রতিবছর ডায়াবেটিস দিবস উপলক্ষে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী এবং বাংলাদেশের রাষ্ট্রপতি তাদের মূল্যবান বক্তব্য দিয়ে থাকেন। মানুষকে ডায়াবেটিস থেকে সচেতন করে থাকেন।

বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবস ২০২২

১৪ নভেম্বর বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবস। মানুষকে ডায়াবেটিস রোগ সম্পর্কে সচেতন করতে বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবস পালন করা হয়। বিশেষ করে বাংলাদেশের গ্রাম অঞ্চলের মানুষদের ডায়াবেটিস রোগ সম্পর্কে তেমন কোন ধারণা থাকে না। তাই প্রতিবছর ডায়াবেটিস দিবস উপলক্ষে গ্রামে বিভিন্ন রকম ডায়াবেটিস ক্যাম্পেইন করা হয়।

প্রতিবছর সারাবিশ্বে যেমন বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবস উপলক্ষে বিভিন্ন রকম কর্মসূচি পালন করা হয় ঠিক তেমন বাংলাদেশেও বিভিন্ন রকম কর্মসূচির মধ্য দিয়ে ডায়াবেটিস দিবসটি পালন করা হয়। এ কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে বিনামূল্যে ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণ নির্ণয় করা, সচেতনতামূলক পোস্টার, কেউ যদি ডায়াবেটিস পজিটিভ হয় তাহলে তাকে বিভিন্ন রকম তথ্য দেওয়া কিভাবে ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণ করা যায় এই বিষয়ে।

যেহেতু ডায়াবেটিস মহামারী আকারে ছড়িয়ে পড়ছে তাই মানুষকে একটু বেশি সচেতন করতে হবে সেই লক্ষ্যে বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবস পালন করা হয়। বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবস ২০২২ অনেক কর্মসূচির মধ্য দিয়ে বাংলাদেশে পালন করা হবে। এ উপলক্ষে আমরা দেশের বিভিন্ন জায়গায় ক্যাম্পেইন দেখতে পাবো। র‍্যালি, সমাবেশ ইত্যাদি এই দিনে দেখা যায়।

আরো পড়ুনঃ মসুর ডালের দশটি উপকারিতা ও অপকারিতা বিস্তারিত জানুন

ডায়াবেটিস প্রতিরোধে সুশৃঙ্খল জীবন যাপন করতে হবে এ বিষয়ে মানুষকে ধারণা দেওয়া হয়। কারণ ডায়াবেটিস একবার হয়ে গেলে সেটি কখনোই পুরোপুরি ভালো করা যায়না তা নিয়ন্ত্রণ করতে হয়। নিয়ন্ত্রণ করার জন্য কিভাবে জীবন যাপন করতে হবে সেগুলো মানুষকে শিক্ষা দেওয়া হয় বিশেষ করে যারা ডায়াবেটিস সম্পর্কে কোনো ধরনের ধারণা রাখে না তাদের।

বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবস ২০২২ প্রতিপাদ্যঃ শেষ কথা

বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবস ২০২২ প্রতিপাদ্য এছাড়া বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবস কত তারিখ এই বিষয় সর্ম্পকে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়েছে আশা করি আপনি আজকের আর্টিকেল থেকে উপরের আলোচনায় বিস্তারিতভাবে জানতে পেরেছেন। যদি না জেনে থাকেন তাহলে সম্পূর্ণ আর্টিকেল মনোযোগ সহকারে পড়ে নিন। এতক্ষন আমাদের সঙ্গে থাকার জন্য অসংখ্য ধন্যবাদ। এরকম পোস্ট আরও পড়তে নিয়মিত আমাদের ওয়েবসাইট ফলো করুন।১৬৮৩০

পরিচিতদেরকে জানাতে শেয়ার করুন

0 Comments

দয়া করে নীতিমালা মেনে মন্তব্য করুন ??

অর্ডিনারি আইটি কী?