অর্ডিনারি আইটি https://www.ordinaryit.com/2022/07/kurbani.html

কোরবানি কার উপর ফরজ - কোরবানি কাদের উপর ফরজ

প্রিয় পাঠক আজকের এ পোস্টে আমরা আলোচনা করব কোরবানি কার উপর ফরজ - কোরবানি কাদের উপর ফরজ এই বিষয় নিয়ে। আমাদের মধ্যে অনেকেই আছে যারা জানেনা কোরবানি কার উপর ফরজ। তাদের জন্য আজকের এই পোস্টে আমরা আলোচনা করব কোরবানি কাদের উপর ফরজ।

আপনি যদি জানতে চান কোরবানি কার উপর ফরজ তাহলে পোস্টটি সম্পূর্ণ মনোযোগ সহকারে পড়ুন। তো চলুন জেনে আসি কোরবানি কার উপর ফরজ - কোরবানি কাদের উপর ফরজ।

পেজ সূচিপত্রঃ কোরবানি কার উপর ফরজ - কোরবানি কাদের উপর ফরজ 

কোরবানি কার উপর ফরজ

আমাদের সমাজে অনেকেই আছে যারা জানেনা কোরবানি কার উপর ফরজ। কোরবানি করা আদৌ ফরজ নাকি সুন্নত নাকি ওয়াজিব। তাই অনেকেই আছে জানতে চাই কোরবানি কার উপর ফরজ বা কোরবানি কাদের উপর ফরজ তাদের জন্য এই পোস্টটি উপকারী কারণ এই পোস্টে আমরা আলোচনা করব কোরবানি কার উপর ফরজ - কোরবানি কাদের উপর ফরজ।

আমাদের সমাজে এমন অনেক লোক আছে যাদের প্রশ্ন তাদের আই এর তেমন উৎস নেই কিন্তু ব্যাংকে কিছু টাকা জমা আছে। তার ওপর কি কোরবানি করা ফরজ? এই প্রশ্নটিই প্রায় অনেকেই করে থাকেন। কোরবানি করা ফরজ এই বক্তব্য কোন আলেমদের মধ্যে কেউ দেয়নি। এই নিয়ে মতবিরোধ রয়েছে কোরবানি কি সুন্নাহ নাকি ওয়াজিব।

আরো পড়ুনঃ 30টি কোরবানির মাসআলা

একদল ওলামায়ে কেরাম বলেন, কোরবানি করা সুন্নত, সুন্নাতে মুয়াক্কাদা। এটি অধিকাংশের মতামত আরেকদল ওলামায়ে কেরাম বলেন, কোরবানি ওয়াজিব। কোরবানি ওয়াজিব বলা ওলামায়ে কেরামের সংখ্যা অনেক কম। যাদের উপর কোরবানি বাধ্যতামূলক হয় তাদের মুসলিম হতে হবে, বিবেক সম্পন্ন হতে হবে, প্রাপ্তবয়স্ক হতে হবে।

আর একটি বিষয় হল যে ব্যাক্তি কোরবানির পশু জবাই করার সামর্থ্য রাখে তারওপর কোরবানি করা সুন্নাতে মুয়াক্কাদা। যা অধিকাংশ ওলামায়ে কেরামের মতামত।

কোরবানি করা ওয়াজিব যারা বলেছেন, তারা 2 টি শর্ত দিয়েছে তা হচ্ছে, নেসাব পরিমাণ সম্পদ থাকতে হবে আরেকটি হচ্ছে মুসাফির হওয়া যাবে না। এ দুইটি শর্ত করে বলা হয়েছে কুরবানী করা ওয়াজিব। তারা যে হাদীসটি সবার সামনে উল্লেখ করে তা হল রাসুলুল্লাহ (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম) বলেছেন," তোমাদের মধ্যে যে ব্যক্তি সামর্থ্য রাখে সে যেন কোরবানি করে"।

আরো পড়ুনঃ জিলহজ্ব মাসের 10 দিনের ফজিলত আমল ও রোজা

অন্য আরেকটি রেয়াতের মধ্যে এসেছে," সামর্থ্য থাকার পরও যদি সে কোরবানি না করে তাহলে সে যেন আমাদের ঈদগাহে না আসে" যারা বলে কুরবানী করা ওয়াজিব তারা এই সকল দলিল উপস্থাপন করেন। যেখানে নবীজি (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম) নেসাব পরিমাণ সম্পদের কথা মোটেও বলেননি, নেসাব পরিমাণ সম্পদ না থাকলেও চলবে। আপনার যদি ব্যাংকে কোরবানি দেওয়ার মত অর্থ থাকে তাহলে আপনি কোরবানি দিতে পারবেন।

কোরবানি কাদের উপর ফরজ

আমাদের সমাজে যারা জানেন না কোরবানি কাদের উপর ফরজ বাক কোরবানি কার উপর ফরজ ? তারা এই পোস্টটি সম্পন্ন পড়বেন। তাহলে বুঝতে পারবেন যে কোরবানি কার উপর ফরজ ? কোরবানি করা ফরজ নয় একদল আলেম বলে এটি সুন্নাতে মুয়াক্কাদা এবং অন্য দল আলেম বলে এটি ওয়াজিব।

কোরবানি ইসলামের একটি সুন্দর নিদর্শন। বিশুদ্ধ মত অনুযায়ী কোরবানি করা সুন্নাতে মুয়াক্কাদা। আল্লাহ তা'আলা বলেন," কাজেই আপনি আপনার রব এর উদ্দেশ্যে নামাজ আদায় করুন এবং কোরবানি করুন"।{ সূরা কাউছার, আয়াতঃ ২} আল্লাহ তা'আলা আরও বলেন," বলুন, আমার সালাত, আমার নুসুক (কোরবানি) আমার জীবন ও আমার মরন সৃষ্টিকুলের রব আল্লাহর জন্য"{ সূরা আনআম আয়াতঃ ১৬২}

আরো পড়ুনঃ জিলহজ মাসের চুল নখ কাটা যাবে কিনা তা জেনে নিন

আল্লাহ তাআলা বলেছেন," আমি প্রত্যেক উম্মাতের জন্য কোরবানির বিধান রেখেছি"{ সূরা হজ, আয়াতঃ ৩৪} তাই কোরবানি মুসলিম উম্মার একটি অতি গুরুত্বপূর্ণ এবাদাত। আমাদের প্রিয় নবী হযরত মুহাম্মদ(সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম) প্রতি বছর কোরবানি করতেন।

কোরবানি কাদের উপর ওয়াজিব

কোরবানি একটি অতি গুরুত্বপূর্ণ ইবাদত। আমাদের প্রিয় নবী প্রতি বছর কোরবানি করেছেন। যাদের উপর যাকাত ওয়াজিব তাদের উপর কোরবানি ও ওয়াজিব। প্রত্যেক প্রাপ্তবয়স্ক, বিবেক সম্পন্ন মুসলিম নর-নারী যার কোরবানির দিনগুলোতে সাড়ে সাত ভরি সোনা, সাড়ে 52 ভরি রুপা এর সমপরিমাণ নগদ অর্থ অর্থাৎ নিসাব পরিমাণ সম্পদ থাকে তাহলে তার ওপর কোরবানি করা ওয়াজিব।

কোন ব্যক্তি যদি স্বাবলম্বী হয় তার পরিবার কে ভালোমতো পরিচালনা করতে পারে তাহলে তার ওপর কোরবানি করা ওয়াজিব। তাহলে উপরের আলোচনা থেকে আমরা বুঝতে পারলাম যে কোরবানি কার উপর ওয়াজিব হবে।

আরো পড়ুনঃ কোরবানির গরু জবাই করার দোয়া

যেহেতু কুরবানি আল্লাহ তায়ালার সন্তুষ্টির জন্য করা হয়। এবং কোরবানি আমাদের শিক্ষা দেয় আল্লাহ তায়ালার সন্তুষ্টির জন্য আমরা যেকোনো জিনিস ত্যাগ করতে পারি। একমাত্র আল্লাহ তালা কে খুশি করার জন্য। উপরের আলোচনা থেকে আমরা বুঝলাম যে কোরবানি কার উপর ফরজ - কোরবানি কাদের উপর ফরজ।

শেষ কথাঃ কোরবানি কার উপর ফরজ - কোরবানি কাদের উপর ফরজ 

আপনারা যারা জানেন না কোরবানি কার উপর ফরজ বা কোরবানি কাদের উপর ফরজ। তাহলে উপরের আলোচনা গুলো মনোযোগ সহকারে পড়ুন। এখানে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়েছে যে কোরবানি কার উপর ফরজ - কোরবানি কাদের উপর ফরজ ।

এতক্ষন আমাদের সঙ্গে থাকার জন্য অসংখ্য ধন্যবাদ। এরকম পোস্ট আরও পড়তে নিয়মিত আমাদের ফেসবুক পেজ এবং ওয়েবসাইট ফলো করুন।

পরিচিতদেরকে জানাতে শেয়ার করুন

0 Comments

দয়া করে নীতিমালা মেনে মন্তব্য করুন ??

অর্ডিনারি আইটি কী?