অর্ডিনারি আইটি https://www.ordinaryit.com/2022/05/eid-namaz.html

মহিলাদের ঈদুল ফিতরের নামাজ পড়ার নিয়ম

ইসলাম ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব দুইটির মধ্যে একটি হল পবিত্র ঈদুল ফিতর। প্রতি বছর রমজান মাসের রোজা শেষে সারা বিশ্বে পালিত হয় পবিত্র ঈদুল ফিতর। মহান আল্লাহ্‌ তায়ালা তার বান্দাদের জন্য দীর্ঘ একমাস রোজার পরে দিয়েছেন এই পবিত্র ঈদুল ফিতর একে রোজার ঈদও বলা হয়। ঈদে পুরুষ ও মহিলাদের জন্য ২ রাকাত ঈদের নামাজ রয়েছে। আজ আমরা মহিলাদের ঈদুল ফিতরের নামাজ পড়ার নিয়ম সম্পর্কে জানব।
চলুন আর দেরি না কর জেনে নেই মহিলাদের ঈদুল ফিতরের নামাজ পড়ার নিয়ম।

পেজ সূচিপত্রঃ মহিলাদের ঈদুল ফিতরের নামাজ পড়ার নিয়ম

মহিলারা কি ঈদের নামাজ আদায় করতে পারবে?

হ্যাঁ, মহিলারাও ঈদের নামাজ আদায় করতে পারবে। এবং দোয়া করতে পারবে। ঈদের নামাজ মহিলাদের জন্য আদায় করা বাধ্যতামূলক না কিন্তু ঈদের নামাজ সকলের জন্য আদায় করা সুন্নাত।

মহিলাদের জন্য ঈদের নামাজ কি? | মহিলাদের ঈদুল ফিতরের নামাজ পড়ার নিয়ম

মহিলাদের জন্য ঈদের নামাজ আদায় করা সুন্নাত। মহিলারা জামায়াতের সাথে ঈদের নামাজ আদায় করতে পারবেন কিন্তু মহিলাদের নামাজ আদায়ের জন্য আলাদা স্থান ও পর্দার ব্যাবস্থা থাকতে হবে। যদি মহিলাদের নামাজের স্থানে পর্দার সহিত নামাজ আদায়ের ব্যাবস্থা না থাকে তাহলে মহিলাদের অংশগ্রহনের থেকে বেশি ক্ষতি হবে।
এই প্রসঙ্গে মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সাঃ) নির্দেশ দিয়েছেন- প্রাপ্ত বয়স্ক কুমারী মেয়ে, অন্তপুরবাসিনী তরুনী ও ঋতুবতী নারীরা যেন বের হয় এবং ঈদের নামাযে ও মুসলমানদের দোয়াতে হাযির হয়। ঋতুবতী নারীরা যেন নামাযের জায়গা থেকে দূরে থাকে।”[সহিহ বুখারী (১/৮৪)]

তিরমিযির বর্ণনায় এসেছে- “মহানবী (সাঃ) অবিবাহিত নারী, প্রাপ্তবয়স্ক কুমারী মেয়ে, অন্তপুরবাসিনী তরুনী, ঋতুবতী নারীদেরকে দুই ঈদের সময় ঈদগাহে হাজির হতে বলতেন। তবে, ঋতুবতী নারীরা ঈদগাহ থেকে দূরে থাকত এবং সবার সাথে দোয়ায় শরীক হত।

মহিলাদের ঈদের নামাজ আদায়ের বিধান কি?

মহিলাদের দুই ঈদে (ঈদুল ফিতর ও ঈদুল আযহা) ঈদ্গাহে নামাজে অংশগ্রহন করতে পারবে এমন টাই রাসূলুল্লাহ (সাঃ) বলেছেন। হযরত উম্মে হাতিয়া (রাঃ) এই প্রসঙ্গে বর্ণনা করেছেন- নবী কারিম (সাঃ) আমাদের আদেশ দিয়েছেন- আমরা যেন ঈদের দিনে মহিলাদের নিয়ে নামাজের জন্য বের হই এবং মহিলারা যেন ঈদের নামাজে অংশগ্রহন করে।

এখানে বোঝা যায়, পরিণত বয়স্কা, বিবাহিত-অবিহিত মহিলা, গৃহবাসী মহিলারা যেন ঈদের দিনে ঈদ্গাহে উপস্থিত থাকে এবং ঈদের নামাজ জামায়াতের সাথে আদায় করে এবং ঋতুবর্তী মেয়েরাও যেন সেখানে উপস্থিত থাকে এবং নামাজের জায়গা থেকে বিরত থাকে কিন্তু সকল কল্যাণ ও দোয়ায় যেন অংশগ্রহন করে। রাসূলুল্লাহ (সাঃ) আরও বলেছেন- যদি কোন মহিলার পর্দা করার মত যথেষ্ট পরিমান কাপড় না থাকে তাহলে যেন সে তার অন্য বোনের থেকে কাপড় নিয়ে পর্দা করে।

মহিলাদের ঈদুল ফিতরের নামাজ পড়ার নিয়ম

ঈদের নামাজ আদায় করা সকলের জন্য সুন্নত। মহিলারাও ঈদের নামাজ আদায় করতে পারবে। কিন্তু পর্দার সহিত তা আদায় করতে হবে। মহিলাদের ঈদুল ফিতরের নামাজ পড়ার নিয়ম হল-
প্রথমত মহিলাদের ঈদের নামাজ জামায়াতের সহিত আদায় করতে হবে। একা একা ঈদের সালাত আদায় করা যাবে না। আর কেউ যদি একা ঈদের সালাত আদায় করতে চায় তাহলে তার নামাজ হবে না।
দ্বিতীয়ত মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সাঃ) ঈদের নামাজে মহিলাদের অংশগ্রহনের অনুমতি দেয়নি বরং ঈদের সালাত আদায় করে বলেছেন। এবং তা ওয়াজিব হিসেবে না বরং তাগিদ হিসেবে দেওয়া হয়েছে।

ঈদুল ফিতরের নামাজের নিয়ম কি? | মহিলাদের ঈদুল ফিতরের নামাজ পড়ার নিয়ম

ঈদুল ফিতরের নামাজের কিছু নির্দিষ্ট নিয়ম কানুন রয়েছে। চলুন পবিত্র ঈদুল ফিতরের নামাজের নিয়ম জেনে নেই।
প্রথমে ঈদুল ফিতরের নামাজের নিয়ত করে “আল্লাহু আকবার” বলে কান পর্যন্ত হাত তুলে তাহরিমা বাধতে হবে। তারপর “সুবহানাকা আল্লাহুম্মা ওয়া বিহামদিকা ওয়া তাবারাকাসমুকা ওয়াতাআলা যাদ্দুকা ওয়া লা ইলাহা গাইরুকা।” ছানা পড়তে হবে।

৩ বার “আল্লা্‌হু আকবার” বলে তাকবির বলতে হবে। তারপর প্রথম দুইবারে কান পর্যন্ত হাত তুলে ছেড়ে দিতে হবে এবং ৩য় বারে হাত বাধতে হবে। এবং প্রতি তাকবিরের পর ৩ বার “সুবাহানাল্লাহ” বলার সময় থামতে হবে।

তারপর সূরা ফাতিহার সাথে যেকোন একটি সূরা পড়তে হবে। তারপর স্বাভাবিক নামাজের মতো করেই রুকু ও সিজদা করে দ্বিতীয় রাকাতের জন্য উঠে দাড়াতে হবে। তারপর আবার দ্বিতীয় রাকাতে জন্য সূরা ফাতিহার সাথে অন্য একটি সূরা মিলিয়ে পড়ে ৩ বার "আল্লাহু আকবার" পড়ে ৩টি তাকবির সম্পন্ন করতে হবে। প্রতিটি তাকবিরের জন্য হাত ছেড়ে দিতে হবে এবং ৪র্থ তাকবিরে "আল্লাহু আকবার" বলে হাত না বেঁধে রুকু করতে হবে। এবার সেজদা, তাশাহহুদ, দরূদ, দোয়া মাসুরা পড়ে সালাম ফিরিয়ে ঈদের নামাজ শেষ করতে হবে।

ঈদের নামাজ শেষে ইমাম সাহেব মিম্বারে বসে ২টি খুতবা পাঠ করেন। ঈদের খুতবা শোনা ওয়াজিব।

ঈদুল ফিতরের নামাজের নিয়ত | মহিলাদের ঈদুল ফিতরের নামাজ পড়ার নিয়ম | মহিলাদের ঈদের নামাজ পড়ার নিয়ম ও নিয়ত

উচ্চারন- নাওয়াইতু আন উসাল্লিয়া লিল্লাহি তায়ালা রাকয়াতা সালাতি ঈদিল ফিতর, মায়া ছিত্তাতি তাকবীরাতি ওয়াজিবুল্লাহি তায়ালা ইকতাদাইতু বিহাযাল ইমাম, মুতাওয়াজ্জিহান ইলা জিহাতিল কাবাতিশ শারীফাতি আল্লাহু আকবার।

অর্থ- আমি কাবামুখী হয়ে আল্লাহ্‌র (সন্তুষ্টির) জন্য অতিরিক্ত ছয় তাকবীরের সঙ্গে ঈদুল ফিতরের দুই রাকআত ওয়াজিব নামাজ এই ইমামের পিছনে আদায়ের নিয়ত করলাম- আল্লাহু আকবর।

শেষ কথাঃ মহিলাদের ঈদুল ফিতরের নামাজ পড়ার নিয়ম

বন্ধুরা, আজ আমরা মহিলাদের ঈদুল ফিতরের নামাজ পড়ার নিয়ম নিয়ে আলোচনা করেছি। আমাদের এই মহিলাদের ঈদুল ফিতরের নামাজ পড়ার নিয়ম পোস্টটিতে মহিলাদের ঈদের নামাজের বিধান, নিয়ম ও নিয়ত নিয়ে আলোচনা করা হয়েছে।
আশাকরি,আমাদের এই মহিলাদের ঈদুল ফিতরের নামাজ পড়ার নিয়ম পোস্টটি দ্বারা আপনার উপকৃত হবেন। আপনাদের যদি আমাদের এই মহিলাদের ঈদুল ফিতরের নামাজ পড়ার নিয়ম পোস্টটি ভালো লাগে তাহলে কমেন্ট ও শেয়ার করে আমাদের পাশেই থাকুন, ধন্যবাদ।

পরিচিতদেরকে জানাতে শেয়ার করুন

0 Comments

দয়া করে নীতিমালা মেনে মন্তব্য করুন ??

অর্ডিনারি আইটি কী?