অর্ডিনারি আইটি https://www.ordinaryit.com/2022/02/jonmo-nibondhon-online.html

জন্ম নিবন্ধন অনলাইন করার নিয়ম - পুরাতন জন্ম নিবন্ধন অনলাইন নিয়ম

 

আপনার জন্ম নিবন্ধন অনলাইন করা নেই? আপনি জানেন না জন্ম নিবন্ধন অনলাইন করার নিয়ম? আজকের পোস্টটিতে জন্ম নিবন্ধন অনলাইন করার নিয়ম নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা থাকবে। 

বর্তমান সবকিছু অনলাইন ভিত্তিক হয়ে যাচ্ছে। যার কারনে আগে যেসকল জন্ম নিবন্ধন রয়েছে তা বর্তমানে অকেজো হয়ে পড়েছে বলতে গেলে। জন্ম নিবন্ধন অনলাইন করতে গিয়ে অনেক সময় তথ্য ভুল হওয়াতে অনেকের জন্ম নিবন্ধন অনলাইন হয়নি যার কারণে অনেকে এখন জন্ম নিবন্ধন অনলাইন করার নিয়ম খুজছেন। বুঝতে পারছেন না কোথায় পাবেন জন্ম নিবন্ধন অনলাইন করার নিয়ম। আপনি যদি যারা জন্ম নিবন্ধন অনলাইন করার নিয়ম খুজছেন তাদের মধ্যে একজন হয়ে থাকেন তাহলে দেরি না করে আমাদের পুরো পোস্টটি পড়ুন এবং আমাদের সাথে থাকুন। পুরো পোস্টটি পড়া শুরু করার আগে এক নজরে দেখে নিন কি থাকছেঃ

পেজ সূচিপত্রঃ জন্ম নিবন্ধন অনলাইন করার নিয়মঃ

আপনি কিভাবে বুঝবেন আপনার জন্ম নিবন্ধন অনলাইন কিনা - জন্ম নিবন্ধন যাচাইঃ

আপনার জন্ম নিবন্ধন অনলাইন হয়েছে কিনা তা বুঝার জন্য আপনাকে আপনার তথ্যাবলি দিয়ে অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন খুঁজতে হবে। যদি না পাওয়া যায় তাহলে বুঝতে হবে আপনার জন্ম নিবন্ধন অনলাইন করা হয়নি। আপনার জন্ম নিবন্ধন অনলাইন না হওয়ার পিছনে কারণ হলো জন্ম নিবন্ধনগুলো যখন অনলাইন করার সিদ্বান্ত নেয়া হলো তখন তথ্যগুলো যখন ইনপুট দেয়া হয় অনলাইনে তখন অসতর্কতা বা ভুল বশত অনেকের তথ্য বাদ পড়ে যায়। যার কারণে অনেকর জন্ম নিবন্ধন অনলাইন হয়নি। তাই আপনি যদি আপনার জন্ম নিবন্ধন অনলাইন করতে চান তাহলে আপনাকে পুনরায় আবেদন করতে হবে। 

তো আপনি যদি আপনার জন্ম নিবন্ধন অনলাইন কিনা যাচাই করতে চান তাহলে আপনাকে  everify.bdris.gov.bd এই লিংকে ক্লিক করতে হবে। 

  • লিংকে ক্লিক করার পর একটি পেজ আসবে যেখানে আপনার জন্ম নিবন্ধন নম্বর এবং জন্ম তারিখ দিতে হবে। 
  • তথ্যগুলো দিয়ে সার্চ বারে ক্লিক করুন
  • কিভাবে আবেদন করবেন জন্ম নিবন্ধন অনলাইন করার জন্য – জন্ম নিবন্ধন অনলাইন করার নিয়মঃ
  •  যদি আপনার হাতে লেখা জন্ম নিবন্ধনটি অনলাইনে না পেয়ে থাকেন তাহলে আপনাকে আপনার জন্ম নিবন্ধনের ১৭ ডিজিট এবং আপনার ৪ ডিজিটের জন্ম সাল নিয়ে নিশ্চিত হতে হবে। এক্ষেত্রে হাতে লেখা জন্ম নিবন্ধন হয়ে থাকে ১৭ সংখ্যার এবং অন্যদিকে অনলাইন জন্ম নিবন্ধন নম্বর হয়ে থাকে ১৭ ডিজিটের। তাই আপনাকে আপনার ১৬ ডিজিটের জন্ম নিবন্ধনটিকে ১৭ ডিজিটের জন্ম নিবন্ধনে রুপান্তর করতে হবে। 

জন্ম নিবন্ধন ১৭ ডিজিটের নম্বরে রূপান্তর করবেন কিভাবে - জন্ম নিবন্ধন নম্বর - জন্ম নিবন্ধন অনলাইন করার নিয়মঃ 

আপনি আপনার জন্ম সনদটি খেয়াল করলে দেখবেন সেটি ১৬ অক্ষরের। এই ১৬ ডিজিটের নম্বরকে ১৭ ডিজিটের নম্বরে রুপান্তরের জন্য আপনাকে খুব ছোট একটি কাজ করতে হবে এবং কাজটি খুব সহজ। সেটি হলো আপনাকে ১৬ ডিজিটের জন্ম নিবন্ধন নম্বরটির শেষ ৫ ডিজিটের পূর্বে একটি শূণ্য বসাতে হবে। 

আরেকটি বিষয় মাথায় রাখতে হবে তা হলো আপনার জন্মসাল যদি ২০০১ অথবা এর পরবর্তী কোনো সাল হয় তাহলে আপনার পিতা মাতার অনলাইন জন্ম নিবন্ধন প্রয়োজন হবে আপনার জন্ম নিবন্ধনটি অনলাইন করার জন্য। এজন্য আপনাকে আপনার জন্ম নিবন্ধন নিশ্চিত করার আগে নিশ্চিত করতে হবে আপনার পিতা মাতার জন্ম নিবন্ধন অনলাইন কিনা। 

জন্ম নিবন্ধন আবেদন করতে কি কি লাগবে - জন্ম নিবন্ধন অনলাইন আবেদন ২০২২ 

জন্ম নিবন্ধন অনলাইন করা হয়েছে বর্তমানে যেহেতু সবকিছু অনলাইন নির্ভর তাই জন্ম নিবন্ধন এর ও সকল তথ্য অনলাইনে করা হচ্ছে। জন্ম নিবন্ধন অনলাইন করতে গিয়ে অনেকে তথ্যবলীতে ভুল হয়েছে যার কারনে জন্ম নিবন্ধন অনলাইন হয় না। আবার অনেকে রয়েছেন যাদের জন্ম নিবন্ধনই নেই। জন্ম নিবন্ধন আবেদন করার জন্য প্রথমেই প্রয়োজন হয়ে থাকে বাবা মায়ের জন্ম নিবন্ধন অনলাইন করা। পিতা মাতার জন্ম নিবন্ধন অনলাইন করাটা বাধ্যতামূলক তাদের জন্য যাদের জন্ম ২০১৬ এবং তার পরে। ২০১৬ এর আগে যাদের জন্ম তাদে পিতা মাতার জন্ম নিবন্ধন অনলাইন না হলেও চলবে। এছাড়াও আরো অনেক সমস্যা থাকে। যেমনঃ 

  • পিতা মাতার জন্ম নিবন্ধন অনলাইন নেই
  • পিতা মাতা দুজনেই মৃত
  • পিতা / মাতা একজন মৃত

জন্ম নিবন্ধন অনলাইন করার নিয়ম – পিতা মাতার জন্ম নিবন্ধন অনলাইন করার নিয়মঃ

আপনি যদি আপনার জন্ম নিবন্ধন অনলাইন করার নিয়ম জানতে চান তাহলে আপনি সঠিক জায়গায় এসেছেন। জন্ম নিবন্ধন অনলাইন করার নিয়ম হলোঃ

  • জন্ম নিবন্ধন অনলাইন করতে হলে আপনাকে একটি ফরম পূরণ করতে হবে
  • ফরমটি পাওয়ার জন্য আপনাকে ক্লিক করতে হবে https://bdris.gov.bd/  লিংক এ। লিংক এ যাওয়ার পর আপনি প্রয়োজন অনুযায়ী সকল তথ্যাবলী পূরন করুন। পূরন করার পর আপনার কাছে কিছু তথ্যাবলী চাওয়া হবে। যেমনঃ

    • চিকিৎসক কর্তৃক প্রত্যায়ন পত্র ( বাংলাদেশ মেডিক্যাল এন্ড ডেন্টাল কাউন্সিল কর্তৃক এমবিবিএস বা তদুর্ধ্ব ডিগ্রিধারী) বা সরকার কর্তৃক পরিচালিত প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী , জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট এবং শিক্ষা বোর্ড কর্তৃক পরিচালিত মাধ্যমিক স্কুল সার্টফিকেট। 
    • পিতা/মাতা/পিতামহ /পিতামহির দ্বারা স্বনামে স্থায়ী ঠিকানা হিসেবে ধোষিত আবাস স্থলের বিপরীতে হালনাগাদ কর পরিশোধের প্রমানপত্র বা পিতা/মাতা / পিতামহ/পিতামহীর জাতীয় পরিচয়পত্র বা পাসপোর্ট ঘোষিত স্থায়ী ঠিকানা বা জমি অথবা বাড়ি ক্রয়ের দলিল, খাজনা ও কর পরিশোদ রশিদ

  • এসকল ডুকুমেন্ট চেয়ে একটি পেজ আসবে সেখানে আপনাকে আমার কাছে এই ডকুমেন্টস আছে এই অপশনে ক্লিক করতে হবে। 
  • এরপর আপনাকে প্রয়োজনী তথ্যাবলী দিতে হবে
  • এরপর পিতামাতার তথ্য চেয়ে একটি পেজ আসবে । সেখানে তথ্যগুলো পূরন করুন
  • সব তথ্য দেয়ার পর পরবর্তী বাটনে ক্লিক করলে একটি পেজ আসবে যেখানে আপনি আপনার তথ্যগুলো দেখে সাবমিট করে দিবেন

এখন প্রশ্ন হলে যাদের পিতামাতা মৃত তারা কি করবেন – জন্ম নিবন্ধন অনলাইন করার নিয়ম - জন্ম নিবন্ধন অনলাইন আবেদন ২০২২ 

যাদের পিতা মাতা মৃত তারাও অন্য সবার মত একইভাবে জন্ম নিবন্ধন এর জন্য আবেদন করবেন। আপনার পিতা বা মাতার জাতীয় পরিচয়পত্র নম্বর দেয়ার অপশনটি খালি রাখবেন। আর আপনার পিতা/মাতা যদি অনেক আগে মারা যান এবং ওনাদের যদি মৃত সনদ না থাকে তাহলে আপনি আপনার ইউপি চেয়্যারমান অথবা মেম্বার থেকে একটি প্রত্যয়নপত্র নিয়ে নিবেন। ঠিক একই ভাবে যদি আপনার পিতা / মাতা এর মধ্যে একজন মৃত থাকেন তাহলে ঠিক একইভাবে আপনি আপনার জন্ম নিবন্ধন আবেদন ফরমটি পূরণ করবেন। 

আশা করি জন্ম নিবন্ধন অনলাইন করার নিয়ম নিয়ে আপনাদের মধ্যে আর কনো সংশয় নেই। বুঝে গিয়েছেন কিভাবে জন্ম নিবন্ধন অনলাইন করার নিয়ম মেনে চলে আপনি আপনার জন্ম নিবন্ধনটি অনলাইন করতে পারবেন। জন্ম নিবন্ধন অনলাইন করা বর্তমানে বাধ্যতামূলক হয়ে গিয়েছে। জন্ম নিবন্ধন অনলাইন না করলে আপনি অনেক কিছুতে বাধাগ্রস্ত হবেন। আপনি ঝামেলায় পড়তে পারেন নানা রকমের। তাই দেরি না করে এখুনি উপরোক্ত জন্ম নিবন্ধন অনলাইন করার নিয়ম মেনে নিয়ে জন্ম নিবন্ধনটি এখুনি অনলাইন করে ফেলুন।

পরিচিতদেরকে জানাতে শেয়ার করুন

0 Comments

দয়া করে নীতিমালা মেনে মন্তব্য করুন ??

অর্ডিনারি আইটি কী?