অর্ডিনারি আইটি https://www.ordinaryit.com/2019/12/browser-location.html

ওয়েব ব্রাউজার আপনার লোকেশন কিভাবে জানতে পারে জেনে নিন

এই লেখা পড়ে আপনি জানতে পারবেন ওয়েব ব্রাউজার আসলেই আমাদের লোকেশন জানতে পারে কিনা। আর যদি জানতে পারে তাহলে কিভাবে জানতে পারে। আর আপনি যদি আপনার অবস্থান অন্য কাউকে জানাতে না চান তাহলে আপনার করনীয় কি? এইসকল প্রশ্নের উত্তর পেয়ে যাবেন আজকের এই লেখায়।

ওয়েব ব্রাউজার আমাদের লোকেশন কি জানতে পারে?

আপনি হয়ত জেনে অবাক হবেন যে আপনি যদি জিপিএস ব্যবহার না করে থাকেন এমনকি আপনার লোকেশন যদি বন্ধ করা থাকে তারপরও ওয়েব ব্রাউজার আপনার লোকেশন  জানতে পারবে।

ওয়েব ব্রাউজার আমাদের লোকেশন কিভাবে জানতে পারে?

মনে করুন আপনি কোনো একছুটির দিনে বন্ধুদের সাথে কোথাও দূরে ঘুরতে গেলেন। এখন আপনি এলাকার রাস্তাঘাট চিনেন না। আশে পাশে ভালো কোনো রেস্টুরেন্ট আছে কিনা আপনারা জানেন না। এখন এই সমস্যা থেকে কিভাবে মুক্তি পাবেন? জিপিএস ট্র্যাকিং সমৃদ্ধ যেকোন এন্ড্রয়েড ডিভাইস  যদি আপনার কাছে থাকে তাহলে আপনি জেনে যাবেন আপনার অবস্থান কোথায় এবং আপনার আশে পাশে কি কি ভালো রেস্টুরেন্ট আছে। 

কিন্তু যখন আপনার কাছে জিপিএস থাকে না তখন কিভাবে ওয়েব ব্রাউজার বুঝে আমাদের লোকেশন কোথায় এবং আমরা বর্তমানে কোথায় অবস্থান করছি!! লোকেশন শুধুমাত্র জিপিএস দিয়েই যে নির্ণয় করা সম্ভব তা নয়। আপনার আইপি এড্রেস থেকেও জিপিএস এর লোকেশন নির্ণয় করা সম্ভব। আপনি যখন কোনো সাইটে যান তখন হয়তো খেয়াল করে দেখবেন যে ওই সাইট আপনার লোকেশন জানতে চাচ্ছে। এভাবে বিভিন্ন সাইট আপনার লোকেশন জেনে যায় এবং তখন বোঝা যায় আপনি আসলে কোথায় অবস্থান করছেন।

এমনকি আপনার যদি এমন কোনো ডিভাইস থাকে যেটাতে ওয়াইফাই সাপোর্ট করে তাহলে আপনার সেই ডিভাইসের লোকেশন জানা সম্ভব। যদি আপনার রাউটার  কখনো কোনো জিপিএস সাপোর্টেড ডিভাইস যেমন আপনার মোবাইল ফোনের সাথে কানেক্ট করা হয় তাহলে সেই ফোনটি আপনার ওয়াইফাই এর ম্যাক  অ্যাড্রেস নিয়ে নিবে এবং আপনার সমস্ত ডাটাবেস গুগলকে হস্তান্তর করবে। আসলে এটা গুগলের একটি শক্তিশালী মারকেটিং টুল। এর মাধ্যমে আপনার লোকেশন সহ আপনার সমস্ত এক্টিভিটি ট্র্যাক করা হয়।

আপনি যদি  আপনার অবস্থান অন্য কাউকে জানাতে না চান তাহলে আপনার করনীয় কি?

আপনি যদি  আপনার অবস্থান অন্য কাউকে জানাতে না চান তাহলে আপনি ভিপিএন ব্যবহার করতে পারেন। এতে আপনি আপনার আইপি এড্রেস চেঞ্জ করতে পারবেন। আপনি যেকোনো দেশের আইপি এড্রেস ব্যবহার করতে পারবেন।

আপনি যেই দেশের আইপি এড্রেস ব্যবহার করবেন আপনার লোকেশন সেই দেশে দেখাবে। ফলে আপনি বাংলাদেশে বসেও অন্য দেশের আইপি এড্রেস ব্যবহার করে নিশ্চিন্তে যেকোন কাজ করতে পারবেন। কয়েকটি ভাল VPN সম্পর্কে জানতে আমাদের এই আর্টিকেলটি পড়ুন। তাহলে ভিপিএন সম্পর্কে আরো অনেক কিছু জানতে পারবেন।

ইন্টারনেট আমাদের অনেক কাজ সহজ করে দিয়েছে। কিন্তু এই ইন্টারনেট ব্যবহার করে আমাদের অনেকেই নানা অপরাধমূলক কাজ করে থাকি। এই অপরাধ যেন সহজেই ধরা যায় সেজন্য গুগলের এই প্রচেষ্টা। আমাদের কখনো এরকম অপরাধমূলক কাজ করা উচিত নয়। এ ব্যাপারে বেশি বেশি সচেতনতা আমাদের মাঝে তৈরি করতে হবে।

লেখাটি ভালো লাগলে শেয়ার করবেন আর কোনো প্রশ্ন থাকলে মন্তব্য করতে পারেন।

অন্যদের সাথে শেয়ার করুন

0 Comments

দয়া করে নীতিমালা মেনে মন্তব্য করুন ??

সর্বশেষ আপডেটেড অফার পেতে চান?

অর্ডিনারি আইটি কী?