অর্ডিনারি আইটি https://www.ordinaryit.com/2022/07/jilhoj-calender.html

জিলহজ্জ মাসের ১০ তারিখ ২০২২ - জিলহজ মাসের কত তারিখ আজ

জিলহজ মাস মুসলিমদের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ মাস। জিলহজ মাসের কত তারিখ আজ এবং জিলহজ মাসের কত তারিখে ঈদ সে সম্পর্কে আমাদের জেনে রাখা উচিত। নিচে জিলহজ্জ মাসের ১০ তারিখ ২০২২ এবং জিলহজ মাসের কত তারিখ আজ সে সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করা হলো।

পেজ সূচিপত্রঃ জিলহজ্জ মাসের ১০ তারিখ ২০২২ - জিলহজ মাসের কত তারিখ আজ

জিলহজ মাসের কত তারিখ আজ - জিলহজ মাসের কত তারিখে ঈদঃ প্রারম্ভিকা

বছর ঘুরে আবার চলে এলো ঈদুল আযহা। জিলহজ মাস মানেই কোরবানির মাস। এই মাস মুসলমানদের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ। কেননা এই মাসে মুসলমানদের বড় ইবাদত হজ অনুষ্ঠিত হয়ে থাকে এবং এ মাসে মুসলিমরা কোরবানি করে থাকে। আর এ কারণেই জিলহজ্জ মাস নিয়ে আমাদের অনেক কৌতুহল থাকে যে, জিলহজ মাসের কত তারিখ আজ?, জিলহজ মাসের কত তারিখে ঈদ? বা জিলহজ্জ মাসের ১০ তারিখ ২০২২ কবে? ইত্যাদি। 

চলুন দেখে নেই জিলহজ মাসের কত তারিখ আজ, জিলহজ মাসের কত তারিখে ঈদ বা জিলহজ্জ মাসের ১০ তারিখ ২০২২ কবে। নিচের জিলহজ্ব মাসের ক্যালেন্ডার সহ, জিলহজ মাস সম্পর্কিত বিষয়গুলো নিয়ে আলোচনা করা হলো।

জিলহজ্জ মাসের ১০ তারিখ ২০২২ঃ জিলহজ মাসের কত তারিখে ঈদ

আমরা সকলেই জানি যে ছিল আজ মাসের .১০ তারিখে কোরবানির ঈদ হয়ে থাকে। তাই এই দিবসটি এর মর্যাদা অনেক বেশি। এবং মুসলমানদের কাছে অন্যতম পবিত্র একটি দিন। জিলহজ্ব মাসের ১০ তারিখে বিভিন্ন ধরনের আমল রয়েছে যা মুসলমানরা করে থাকে। ফানিচার জিলহজ মাসের ফজিলত ও আমল সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করা হলো।

জিলহজ্জ মাসের ১০ তারিখ ২০২২ঃ প্রথম ১০ দিনের ফজিলত

জিলহজ্জ মাসের প্রথম ১০ দিনের গুরুত্ব ও ফজিলত সম্পর্কে হাদিসে বিভিন্ন রেফারেন্স রয়েছে। এই দশ দিনের আমল অন্যান্য ফলের চেয়ে অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ। এমনকি হাদিসে এ কথা উল্লেখ করা হয়েছে যে, জিলহজ মাসের প্রথম দশ দিনের আমল জিহাদের চেয়েও বেশি মর্যাদাবান। নিচে জিলহজ্জ মাসের ১০ তারিখ ২০২২, জিলহজ মাসের কত তারিখ আজ এবং জিলহজ মাসের কত তারিখে ঈদ সে সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করা হবে। 
পবিত্র হাদীসে এসেছে, হজরত ইবনে আব্বাস রাদিয়াল্লাহু আনহু বর্ণনা করেন, রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন, এ দিনগুলোর (জিলহজের প্রথম ১০ দিনের) আমলের তুলনায় কোনো আমল-ই অন্য কোনো সময় উত্তম নয় । তারা বলল : জিহাদও না ? তিনি বললেন : জিহাদও না, তবে যে ব্যক্তি নিজের জানের শঙ্কা ও সম্পদ নিয়ে বের হয়েছে, অতঃপর কিছু নিয়েই ফিরে আসেনি।’ (বুখারি)

জিলহজ মাস এত গুরুত্বপূর্ণ হওয়ার পেছনে দুইটি কারণ রয়েছে। প্রথম কারণটি হলো এই মাসেই হজ অনুষ্ঠিত হয়। অর্থাৎ এই মাসেই হাজিরা আরাফার ময়দানে সমবেত হয়ে থাকে। হজ্জের সবচাইতে গুরুত্বপূর্ণ কাজ হল আরাফার ময়দানে অবস্থান করা।

যেহেতু এই মাসেই গুরুত্বপূর্ণ এই কাজটি করতে হয় একারণে জিলহজ মাসে খুবই মর্যাদাপূর্ণ। কোন কারনে কোন ব্যক্তি যদি আরাফার ময়দানে অবস্থান করতে সক্ষম না হয়, তাহলে তার হজ বাতিল বলে গণ্য হবে এবং পরবর্তী বছরে তাকে পুনরায় হজ করতে হবে। 

আর এই মাস গুরুত্বপূর্ণ হওয়ার দ্বিতীয় আরেকটি কারণ হলো কোরবানি। এই মাসে যেহেতু কোরবানি করতে হয় তাই এই মাসটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ। উপরোল্লিখিত এই দুইটি  গুরুত্বপূর্ণ ইসলামের বিধান এই মাসে পালন করতে হয় আর এ কারণেই এ মাসটি এতটা গুরুত্বপূর্ণ।

জিলহজ্জ মাসের ১০ তারিখ ২০২২ঃ প্রথম ১০ দিনের আমল-১

এখন দেখে নেয়া যাক, এই মাসে কোন কোন আমল করতে হয়। এ মাসের আমল সম্পর্কে পবিত্র হাদীস সময়ে বিভিন্ন বর্ণনা রয়েছে এবং অনেক মর্যাদার কথা উল্লেখ করা হয়েছে। যেমন পবিত্র বুখারী শরীফ, নাসায়ী শরীফ মুসলিম শরীফ অতিথি মিরমিজি শরীফের বিভিন্ন বর্ণনায় জিলহজ মাসের প্রথম দশ দিন রোযা পালন করার ব্যাপারে খুবই গুরুত্ব প্রদান করা হয়েছে এবং বলা হয়েছে এই সময়ে রোজা পালন করা খুবই সওয়াবের কাজ এবং অধিক ফজিলতপূর্ণ। 


৯ জিলহজ পবিত্র আরাফার দিনের রোজা রাখার বিশেষ মর্যাদা হাদিস দ্বারা প্রমাণিত। আর এই আমল যিলহজ মাসের সবচাইতে গুরুত্বপূর্ণ আমল হিসেবে বিবেচনা করা হয়ে থাকে। হাদীসে এসেছে, রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেন ‘যে ব্যক্তি আরাফার দিনের রোজা রাখবে আল্লাহ তাআলা তার এক বছর আগের এবং এক বছর পরের সব ছোট গোনাহ মাফ করে দেবেন।’ (মুসলিম, মিশকাত)

জিলহজ্জ মাসের ১০ তারিখ ২০২২ঃ প্রথম ১০ দিনের আমল-২

এই মাসের সবচাইতে গুরুত্বপূর্ণ আমল সেটা হল পবিত্র হজ পালন করা। একমাত্র আমল যিলহজ মাসের করতে হবে অন্য কোন মাসে এই আমলটি করার কোনো সুযোগ নেই। হজ পালন করার জন্য বিশেষভাবে জিলহজ মাস নির্ধারণ করা হয়েছে। তাই যারা সামর্থ্যবান রয়েছে অবশ্যই তাদের উচিত হলো এই মাসে হজ পালন করতে যাওয়া।

জিলহজ্জ মাসের ১০ তারিখ ২০২২ঃ প্রথম ১০ দিনের আমল-৩

এই মাসের আরেকটি গুরুত্বপূর্ণ আমল হলো কোরবানি করা। যাদের উপর কুরবানী ওয়াজিব হয়েছে অবশ্যই তাদের উচিত কুরবানী আদায় করা। আর যাদের উপর কুরবানী ওয়াজিব নয় তারাও এই মাসে কুরবানী করে অশেষ সওয়াবের অধিকারী হতে পারেন। 

জিলহজ্জ মাসের ১০ তারিখ ২০২২ঃ প্রথম ১০ দিনের আমল-৪

জিলহজ্ব মাসের আমল গুলোর মধ্যে আরেকটি আমাদের রয়েছে আর সেটি হল কোরবানির চাঁদ উঠার পর থেকে, কুরবানীর সম্পাদনের আগ পর্যন্ত নখ, চুল ইত্যাদি না কাটা। কেউ যদি এই কাজগুলো করে তাহলে সে কোরবানির সওয়াব পাবে। হাদীসে এ সম্পর্কে এসেছে, হজরত উম্মে সালমা রাদিয়াল্লাহু আনহা থেকে বর্ণিত,রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন, ‘যখন তোমরা জিলহজ মাসের চাঁদ দেখতে পাবে, এবং তোমাদের কেউ কুরবানি করার ইচ্ছা করে তবে সে যেন চুল নখ কাটা থেকে বিরত থাকে। (মুসলিম, ইবনে হিব্বান)

জিলহজ্জ মাসের ১০ তারিখ ২০২২ঃ প্রথম ১০ দিনের আমল-৫

জিলহজ মাসের প্রথম পাঁচ দিন তাকবিরে তাশরিক আদায় করা জিলহজ্জ মাসের আমল সমূহের মধ্যে অন্যতম একটি আমল। অবশ্যই পালন করতে হবে। আর তাকবিরে তাশরিক আদায় করার সময়সীমা হল ৯ জিলহজ ফজর নামাজের পর থেকে তাকবীরে তাশরীক শুরু করতে হবে। এবং এই এটি পড়তে হবে .১৩ তারিখ জিলহজ আসর নামাজের সময় পর্যন্ত। তাকবীরে তাশরীক হলোঃ ‘আল্লাহু আকবার আল্লাহু আকবার লা ইলাহা ইল্লাল্লাহু আল্লাহু আকবার ওয়া লিল্লাহিল হামদ।’
উপরোল্লিখিত আমলগুলো ছাড়াও জিলহজ মাসে আরো অনেক আমল রয়েছে। ছোটখাটো সকল আমল যদি আমরা জিলহজ মাসে পালন করতে পারে তাহলে অবশ্যই এটি আমাদের জন্যে কল্যাণকর হবে। তাই আমরা সর্বদাই চেষ্টা করব জিলহজ্জ মাসের আমল করার। জিলহজ্জ মাসের ১০ তারিখ ২০২২, জিলহজ মাসের কত তারিখ আজ এবং জিলহজ মাসের কত তারিখে ঈদ সে বিষয় সম্পর্কে সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়েছে। 

জিলহজ মাসের কত তারিখ আজ?

যেহেতু আমাদের সামনে কোরবানির ঈদ আসন্ন তাই জিলহজ্জ মাসের কত তারিখ আজ? এ বিষয়টি জানা আমাদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ। জিলহজ্ব মাসের কত তারিখ আজ সেটি যদি আমরা জানতে পারি তাহলে কোরবানির আর কতদিন বাকি রয়েছে সেই হিসাবে খুব সহজে আমরা করে ফেলতে পারব।
তাছাড়া জিলহজ্ব মাসের কত তারিখ আজ এই সম্পর্কে জানলে জিলহজ্ব মাসের আমল গুলো করতে পারব। নিচে জিলহজ মাসের কত তারিখ আজ তা উল্লেখ করা হলো। তো চলুন দেখে নিই জিলহজ্ব মাসের কত তারিখ আজ।

উপরে জিলহজ মাসের ক্যালেন্ডার দেয়া হয়েছে সেখান থেকে খুব সহজেই জিলহজ্জ মাসের কত তারিখ আজ তা বের করে নিতে পারবেন। আপনি যদি এই পোস্ট টি ১ জুলাই রোজ শুক্রবার দেখে থাকেন তাহলে আজ জিলহজ মাসের এক তারিখ। সেই হিসেবে জিলহজ্ব মাসের ১০ তারিখ ২০২২ অর্থাৎ ২০২২ সালের কোরবানির ঈদ হবে ১০ জুলাই ২০২২ রোজ রবিবার। তারিখ টি ক্যালেন্ডারে সবুজ রং দিয়ে মার্ক করা আছে। 

জিলহজ মাসের কত তারিখ আজ - জিলহজ মাসের কত তারিখে ঈদঃ উপসংহার

উপরে জিলহজ্জ মাসের ১০ তারিখ ২০২২, জিলহজ মাসের কত তারিখ আজ, এবং জিলহজ মাসের কত তারিখে ঈদ সেই সম্পর্কে সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়েছে। আশা করি এই আলোচনাটি আপনার উপকারে আসবে। জিলহজ্ব মাসের আমল এবং জিলহজ মাসের গুরুত্ব সম্পর্কে আমাদের সকলেরই জানা থাকা উচিত। যদি আমরা এই মাসের গুরুত্ব উপলব্ধি করতে সক্ষম হই তাহলে আমরা এই মাসের আমল গুলো ভালোভাবে পালন করে সফলকাম হতে পারব।

পরিচিতদেরকে জানাতে শেয়ার করুন

0 Comments

দয়া করে নীতিমালা মেনে মন্তব্য করুন ??

অর্ডিনারি আইটি কী?