অর্ডিনারি আইটি https://www.ordinaryit.com/2021/12/tv.html

২০২২ সালে টিভি কেনার আগে যে ৬টি বিষয় জানা জরুরী

বর্তমান সময়ে টেলিভিশন হচ্ছে সময় কাটানোর জন্য সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ডিভাইস। বাসা-বাড়ি, অফিস-আদালত থেকে শুরু করে চায়ের দোকানে প্রায় সকল স্থানে এর ব্যবহার রয়েছে। প্রযুক্তির উন্নতির সাথে সাথে টিভির প্রযুক্তিরও ব্যাপক উন্নয়ন হয়েছে। 

কিছু দিন আগেও যেখানে টিভির প্রযুক্তি তেমন উন্নত ছিলো না কিন্তু বর্তমান সময়ে অনেক আধুনিক প্রযুক্তির টিভি বাজারে দেখা যায়। সময়ের সাথে ভবিষ্যতে আরো উন্নত টিভি বাজারে আসাটা স্বাভাবিক। আসছে ২০২২ সাল কে সামনে রেখে টিভি কেনার জন্য যে সকল প্রস্তুতি গ্রহণ করা উচিৎঃ-

টিভি কেনার আগে প্রযুক্তি সম্পর্কে যা জানতে হবে

টিভি কেনার আগে প্রযুক্তি নির্বাচন করতে হবে আপনি কোন প্রযুক্তির টিভি কিনবেন? বর্তমান বাজারে ৩ টি প্রযুক্তি ব্যপক জনপ্রিয় তা হচ্ছে – লেড টিভি, ওলেড টিভি এবং কিউলেড টিভি। আসুন সংক্ষিপ্তভাবে জেনে নেওয়া যাক টিভির প্রযুক্তি সম্পর্কেঃ-  

এলইডি টিভিঃ পূর্বের সকল টিভির চেয়ে এলইডি প্রযুক্তি টিভি উন্নত। এলইডি প্রযুক্তি টিভির জগৎ কে দিয়েছে নতুন এক জিবন আকৃতি হয়েছে ছোট এবং স্মার্ট টিভিতে পরিণত করেছে। এলইডি টিভির মূলতত্ব হচ্ছে ব্যাকলিট প্রযুক্তি। যা ব্যবহার করে যা ছবি তৈরিতে সমস্ত ক্রিস্টেলকে একটি প্যানেল হিসেবে ব্যবহার করে থাকে। পুর্বের টিভি এলসিডি এর চেয়ে এলইডি টিভির দাম বেশি।

ওলেড টিভিঃ এলইডি টিভি ও ওলেড টিভির মধ্যে খুব বেশি পার্থক্য খুজে পাওয়া যায় না। এই দুই প্রযুক্তির মধ্যে পার্থক্য হচ্ছে এলইডি টিভির আপডেট ভার্শন হচ্ছে ওলেড টিভি। অন্য পার্থক্য টি হচ্ছে ব্যাকলিট প্রযুক্তি ব্যবহার না করে প্রতিটি পিক্সেলকে আলাদা ভাবে লাইট আপ করে একসাথে ছবি তৈরী করে। এলইডি টিভির চেয়ে ওলেড টিভির দাম তুলনা মূলক বেশি হয়।  

কিউ লেড টিভিঃ এলইডি টিভির সর্বশেষ ভার্শনটি হচ্ছে কিলেড। এ ধরণের প্রযুক্তি শুধুমাত্র স্যামসাং তার এলইডি টিভিতে ব্যবহার হয়েছে।  

টিভি কেনার আগে রেজুলেশন প্রযুক্তি সম্পর্কে যা জানতে হবে

টিভি দেখার উপভোগ্য বিষয় হচ্ছে রেজুলেশন। টিভির রেজুলেশন যত বেশি হবে ভিডিও তত বেশি পরিষ্কার দেখা যাবে। বর্তমান সময়ে ৪কে ও ৮কে রেজুলেশনের টিভি বাজারে পাওয়া যায়। এই দুই ধরনের টিভিতে আল্ট্রা এইচডি ভিডিও দেখা যায়। তাই টিভি কিনতে হলে কমপক্ষে ৪কে রেজুলেশনের টিভি কেনার চেষ্টা করবেন। 

টিভি কেনার আগে অডিও সম্পর্কে যা জানতে হবে

টিভি দেখার আনন্দ যেমন ভিডিও রেজুলেশনের উপরে নির্ভর করে ঠিক তেমনি এটি পরিপূর্ণ উপভোগ করতে হলে অবশ্যই এর সাউন্ড কোয়ালিটি ভালো হতে হবে। কারণ যেকোনো অভিজ্ঞতার অর্ধেকই নির্ভর করে তার সাউন্ডের কোয়ালিটির উপরে। টিভি কেনার আগের টিভির সাউন্ড চেক করে কেনা উচিৎ।

টিভি কেনার আগে পোর্ট সম্পর্কে যা জানতে হবে

টিভি কেনার আগে দেখতে হবে এর পোর্টের সংখ্যা কারণ বর্তমানে একটি স্মার্ট টিভি অনেক কাজের জন্য ব্যবহার করা যায় যেমন, ডিস ক্যাবল, স্যাটেলাইট চ্যানেল, ওয়াফাই, এইচডিএমআই সহ আরো অনেক কিছু। এই সকল পোর্ট সঠিক আছে কিনা সেটা দেখে কিনলে আপনি উক্ত সুবিধাগুলো গ্রহণ করতে পারবেন।

টিভি কেনার আগে ওয়ারেন্টি সম্পর্কে যা জানতে হবে

টিভি এর ক্ষেত্রে ওয়ারেন্টি সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। বর্তমানে যে সকল স্মার্ট টিভি বাজারে পাওয়া যায় তার সবগুলো অনেক দাম দিয়ে কিনতে হয় তাই এর ওয়ারেন্টি থাকা আবশ্যক। টিভি দুই ধরনের ওয়ারেন্টি হয়ে থাকে একটি হচ্ছে পার্টস ওয়ারেন্টি অন্যটি হচ্ছে সার্ভিস ওয়ারেন্টি। যারা টিভির অথোরাইজড ডিলার একমাত্র তারা পার্টস এর ওয়ারেন্টি দিয়ে থাকেন। যেখানে পার্টস এর ওয়ারেন্টি দেয় সেখান থেকে টিভি কেনার চেষ্টা করুন এক্ষেত্রে টিভির দাম কিছুটা বেশি হতে পারে। তবে ভবিষ্যতে চিন্তা মুক্ত থাকা যায়।   

টিভি কেনার আগে দাম সম্পর্কে যা জানতে হবে

স্মার্ট টিভি বা এলইডি টিভির দাম নির্ভর করে অনেক গুলো বিষয়ের উপরে এর মধ্যে টিভির প্রযুক্তি, রেজ্যুলিউশন, সাইজ ও পার্টস এর ওয়ারেন্টির উপরে নির্ভর করে। এই বিষয় গুলো যত বেশি ভালো মানের পছন্দ করবেন টিভির দাম তত বেশি হবে। যেকোন ধরনের টিভির দাম সহজেই জেনে নিতে পারবেন বিডিস্টল ডট কম থেকে।

অন্যদের সাথে শেয়ার করুন

0 Comments

দয়া করে নীতিমালা মেনে মন্তব্য করুন ??

অর্ডিনারি আইটি কী?