অর্ডিনারি আইটি https://www.ordinaryit.com/2020/06/birth-certificate-verify.html

জন্ম নিবন্ধন যাচাই | জন্ম নিবন্ধন অনলাইন কপি ডাউনলোড

জন্ম নিবন্ধন যাচাই বা অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন চেক করার নিয়ম নিয়ে সাজানো হয়েছে এই পোস্টটি। (bris.lgd.gov.bd) আপনি যদি অনলাইন জন্ম নিবন্ধন তথ্য যাচাই ব্যবস্থা সম্পর্কে না জেনে থাকেন তাহলে পড়তে থাকুন জন্ম নিবন্ধন অনলাইন কপি ডাউনলোড এর বিস্তারিত।


 
জন্ম নিবন্ধন যাচাই বা জন্ম নিবন্ধন অনলাইনে চেক করার নিয়ম খুবই সোজা। জন্ম নিবন্ধন অনলাইনে চেক করতে হলে যার জন্ম নিবন্ধন যাচাই করবেন তার জন্ম নিবন্ধন নাম্বার ও জন্ম তারিখ আপনাকে জানতে হবে।

জন্ম নিবন্ধন যাচাই অনলাইন | জন্ম নিবন্ধন অনলাইনে চেক করার নিয়ম

জন্ম নিবন্ধন অনলাইন কপি ডাউনলোড এর জন্য অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন যাচাই করতে হলে প্রথমেই আপনাকে বাংলাদেশ সরকারের অনলাইন জন্ম নিবন্ধন তথ্য ব্যবস্থা বা Online BRIS এর ওয়েবসাইটে প্রবেশ করতে হবে। Online BRIS এর ওয়েবসাইটে প্রবেশ করতে এই লিংকে ক্লিক করুন। তাহলে নিচের মত পেইজ আসবে।
এখন ১নং চিহ্নিত ঘরে যার জন্ম নিবন্ধন যাচাই করবেন তার ১৭ ডিজিটের জন্ম নিবন্ধন নাম্বার প্রবেশ করান। এরপর ২নং চিহ্নিত ঘরে ঐ ব্যক্তির জন্ম তারিখ প্রবেশ করান। উপরের চিত্রে দেখুন কীভাবে জন্ম তারিখ প্রবেশ করাতে হবে।
যদি উপরের চিত্রের মত জন্ম তারিখে বসান তাহলে নিচের ছবির মত এরর ম্যাসেজ দেখতে পাবেনঃ
উপরের ছবি দেখতে বুঝতেই পারছেন যে, সারা জীবন যেভাবে জন্ম তারিখে লিখে এসেছেন, জন্ম নিবন্ধন যাচাই করার সময় তা উলটো করে লিখতে হবে। মানে শুরুতে বছর এরপর মাস এরপর দিন লিখতে হবে। মানে 1995-12-31 এভাবে। জন্ম সনদ ডাউনলোড করতে সব শেষে ভেরিফাই বাটনে ক্লিক করুন। তাহলে নিচের মত পেইজ আসবে।
এখন উপরে দেখতে পাচ্ছেন যার জন্ম নিবন্ধন যাচাই করেছি তার সমস্ত তথ্য চলে এসেছে। তবে উপরের চিত্রের মত এখন আর তথ্য আসে না। এখন জন্ম নিবন্ধন যাচাই তথ্য আসে নিচের চিত্রের মতঃ
আর যদি Matching birth records not found লেখা দেখতে পান ভেরিফাই বাটনে ক্লিক করার পর, তাহলে বুঝবেন যার জন্ম নিবন্ধন তথ্য যাচাই করতে চাচ্ছেন তার জন্ম নিবন্ধন নাম্বার ও জন্ম তারিখ এ দুটির মধ্যে কোথাও ভুল আছে।
 
জন্ম নিবন্ধন অনলাইনে চেক করার নিয়ম জানতে পেরেছেন আশা করি। এভাবে online birth certificate check করতে পারেন। আশা করছি এখন আর how to check my birth certificate online লিখে গুগল সার্চ করতে হবে না আপনাকে। bangladesh digital birth certificate download করা সম্পর্কিত তথ্য নিচে দেওয়া আছে।

জন্ম নিবন্ধন অনলাইন কপি ডাউনলোড

জন্ম নিবন্ধন অনলাইন কপি ডাউনলোড করার জন্য উপরের ছবিটি আপনার ডিভাইসের স্ক্রিনে আসার পর প্রিন্ট কমান্ড দিয়ে হার্ড কপি প্রিন্ট করে নি। এছাড়া জন্ম নিবন্ধন অনলাইন কপি ডাউনলোড করার আলাদা কোনো উপায় নেই এখন পর্যন্ত। এভাবে online birth certificate check ও সংরক্ষণ করতে পারেন।

অনলাইন জন্ম নিবন্ধন তথ্য যাচাই ওয়েবসাইটে কি কি তথ্য দেওয়া থাকে?

উপরের চিত্রে দেখতে পাচ্ছেন অনলাইন জন্ম নিবন্ধন তথ্য যাচাই ওয়েবসাইটে কোন ব্যাক্তির নাম, ঠিকানা, পিতা-মাতার নাম, লিঙ্গ, জাতীয়তা দেওয়া রয়েছে। এছাড়াও কবে এই জন্ম সনদ তৈরি করা হয়েছে, কোন জায়গা থেকে জন্ম সনদ তৈরি করা হয়েছে এসব তথ্যও দেখতে পাবেন।

ধরুন আজ আপনি আপনার জন্ম নিবন্ধন তথ্য অনলাইনে যাচাই করবেন তাহলে আজ পর্যন্ত আপনার বয়স কত বছর কত মাস কত দিন এসব তথ্যও দেখতে পাবেন অনলাইন জন্ম নিবন্ধন তথ্য যাচাই ওয়েবসাইটে।

জন্ম নিবন্ধন যাচাই করার ওয়েবসাইটের সমস্যা

জন্ম নিবন্ধন যাচাই করার ওয়েবসাইটে ঢোকার পর অনেক সময় নিচের চিত্রের মত পেজের দেখা পেতে পারেন। এরকমটা হয় SSL সার্টিফিকেট ওয়েবসাইটে ইনস্টল করা না থাকলে।
জন্ম নিবন্ধন যাচাই করতে গিয়ে যদি উপরের ছবির মত দেখতে পান তাহলে চিত্রে তীরচিহ্ন নির্দেশিত Advanced অপশনে চাপ দিন। এরপর পেজের নিচের দিকে চলে আসুন। তাহলে নিচের চিত্রের মত দেখতে পাবেন।
জন্ম নিবন্ধন যাচাই করতে গিয়ে যদি উপরের ছবির মত দেখতে পান তাহলে চিত্রে তীরচিহ্ন নির্দেশিত Accept the Risk and Continue অপশনে চাপ দিন। তাহলেই দেখতে পাবেন জন্ম নিবন্ধন যাচাই করার ফরম চলে এসেছে। আশা করছি অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন দেখব এমন প্রশ্ন আর আপনাকে করতে হবে না।

অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন আবেদন | জন্ম নিবন্ধন আবেদন ফরম পূরণ

এখন আপনি অনলাইনে জন্ম নিবন্ধনের আবেদন করতে পারবেন। চলু দেখি কিভাবে অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন আবেদন ফরম পূরণ করবেন। অনলাইনে জন্ম নিবন্ধনের আবেদন করতে এই বাটনে চাপ দিন। তাহলে নিচের ছবির মত পেজ আসবেঃ
উপরের পেজের নির্বাচন করুন ড্রপডাউন বাটনে চাপ দিয়ে আপনার বিভাগ নির্বাচন করে এরপর যেসব ঠিকানা আসবে সেগুলো সিলেক্ট করে পাশের নীল রঙের পরবর্তী বাটনে চাপ দিতে হবে। তাহলেই জন্ম নিবন্ধন আবেদন ফরম পূরণ এর পেজ চলে আসবে, সেটি পূরণ করে পরবর্তী বাটনে চাপ দিতে হবে। যদি সমস্ত ঠিকানা নির্বাচন করার পরে নির্বাচিত নিবন্ধক কার্যালয়ে অনলাইন আবেদন সম্ভব নয় এমন লিখা আসে তাহলে বুঝবেন আপনার ঠিকানা যেখানে, সেখানে অনলাইন জন্ম নিবন্ধন প্রক্রিয়া এখনও চালু হয় নি।

জন্ম নিবন্ধন অনলাইন আবেদনের বর্তমান অবস্থা

যদি আপনি অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন আবেদন ফরম পূরণ করে থাকেন তাহলে আপনার জন্ম নিবন্ধন অনলাইন আবেদনের বর্তমান অবস্থা দেখতে পারবেন। এজন্য আপনাকে এই লিংকে চাপ দিতে হবে। তাহলে নিচের মত পেজ আসবেঃ
উপরের চিত্রের বক্সের মধ্যে জন্ম সনদ রেজিস্ট্রেশন অ্যাপ্লিকেশন নাম্বার দিয়ে Get Status বাটনে চাপ দিলে জন্ম নিবন্ধন অনলাইন আবেদনের বর্তমান অবস্থা দেখতে পারবেন।

অরজিন্যাল জন্ম নিবন্ধন দেখব কিভাবে? জন্ম নিবন্ধন সনদ ডাউনলোড

আপনি কি নিচের চিত্রের মত অরজিন্যাল জন্ম নিবন্ধন অনলাইন কপি ডাউনলোড ডাউনলোড করতে চাচ্ছেন?
খুবই দুঃখের সাথে জানাচ্ছি যে, এরকম অরজিন্যাল জন্ম নিবন্ধন অনলাইন কপি ডাউনলোড করার কোনো উপায় নেই। এটি নিতে হলে আপনাকে ইউনিয়ন পরিষদে বা কাউন্সিলরের অফিসে যোগাযোগ করতে হবে। আশা করছি অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন দেখব এমন প্রশ্ন আর আপনাকে করতে হবে না। ভুয়া জন্ম নিবন্ধন তৈরি করবেন না, এটি শাস্তিমূলক অপরাধ।

F.A.Q. জন্ম নিবন্ধন কি? [তথ্যসূত্র]

জন্ম নিবন্ধন হলো জন্ম ও মৃত্যু নিবন্ধন আইন, ২০০৪ (২০০৪ সনের ২৯ নং আইন) এর আওতায় একজন মানুষের নাম, লিঙ্গ, জন্মের তারিখ ও স্থান, মা-বাবার নাম, তাদের জাতীয়তা ও স্থায়ী ঠিকানা নির্ধারিত ব্যক্তি কর্তৃক রেজিস্টারে লেখা বা কম্পিউটারে এন্ট্রি প্রদান এবং জন্ম সনদ প্রদান করা হয়।

জন্ম নিবন্ধন কোথায় করতে হবে? [তথ্যসূত্র]

ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান, পৌরসভা/সিটি কর্পোরেশন এর মেয়র বা মেয়র কর্তৃক ক্ষমতাপ্রাপ্ত কোন কাউন্সিলর বা অন্য কোন কর্মকর্তা, ক্যান্টনমেন্ট বোর্ড এর এক্সিকিউটিভ অফিসার এবং দূতাবাসসমূহের ক্ষমতাপ্রাপ্ত কোন অফিসার জন্ম ও মৃত্যু নিবন্ধন করে থাকেন। এই পোস্টটি শুরু থেকে পড়ুন jonmo nibondhon tottho jachai করতে।

জন্ম নিবন্ধন এর জন্য কি কি কাগজপত্র প্রদান করতে হয়?

যদি কোন হাসপাতাল বা ক্লিনিকে জন্মগ্রহণ করে থাকে তবে সেখানকার সার্টিফিকেট/ছাড়পত্র। অথবাএস.এস.সি সনদ এর ফটোকপি/ পাসপোর্টের ফটোকপি/আইডি কার্ডের ফটোকপি এবং এলাকার জনপ্রতিনিধী যেমন-ওয়ার্ড কমিশনার/ ইউনিয়ন পরিষদ/ পৌরসভার চেয়ারম্যান কর্তৃক নাগরিকত্ব সনদ এর ফটোকপি।

জন্ম ও মৃত্যু নিবন্ধন আবেদন ফরম কোথায় পাওয়া যাবে?

সংশ্লিষ্ট নিবন্ধকের কার্যালয়ে বা br.lgd.gov.bd ওয়েব সাইটে প্রবেশ করে বা এখানে ক্লিক করে ফরম ডাউনলোড করা যাবে। জন্ম নিবন্ধন অনলাইনে চেক করার নিয়ম জানতে এই পোস্টটি শুরু থেকে পড়ুন।

অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন করা যাবে কি?

br.lgd.gov.bd ওয়েব সাইটে প্রবেশ করে সংশ্লিষ্ট নিবন্ধকের কার্যালয় বরাবর অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন আবেদন করতে পারবেন। আবেদনের প্রিন্ট কপি নিবন্ধন অফিসে দাখিল করলে নিবন্ধক জন্ম নিবন্ধন করতে পারবেন। এই পোস্টটি শুরু থেকে পড়ুন জন্ম নিবন্ধন সনদ ডাউনলোড করতে। এই পোস্টটি শুরু থেকে পড়ুন jonmo nibondhon tottho jachai করতে।

জন্ম নিবন্ধন ফির হার কত?

বিষয়

ফিসের হার

দেশে বিদেশে
জন্ম বা মৃত্যুর ৪৫ (পঁয়তাল্লিশ) দিন পর্যন্ত কোন ব্যক্তির জন্ম বা মৃত্যু নিবন্ধন
 
বিনা ফিসে
 
বিনা ফিসে
জন্ম বা মৃত্যুর ৪৫ (পঁয়তাল্লিশ) দিন পর হইতে ৫ (পাঁচ) বৎসর পর্যন্ত কোন ব্যক্তির জন্ম বা মৃত্যু নিবন্ধন (সাকুল্যে)
 
২৫/- টাকা
 
১ মার্কিন ডলার
জন্ম বা মৃত্যুর ৫ (পাঁচ) বৎসর পর কোন ব্যক্তির জন্ম বা মৃত্যু নিবন্ধন (সাকুল্যে)
 
৫০/- টাকা
 
১ মার্কিন ডলার
জন্ম তারিখ সংশোধনের জন্য আবেদন ফি
 
১০০/- টাকা
 
২ মার্কিন ডলার
জন্ম তারিখ ব্যতীত নাম, পিতার নাম, মাতার নাম, ঠিকানা ইত্যাদি অন্যান্য তথ্য সংশোধনের জন্য আবেদন ফি
 
৫০/- টাকা
 
১ মার্কিন ডলার
বাংলা ও ইংরেজি উভয় ভাষায় মূল সনদ বা তথ্য সংশোধনের পর সনদের কপি সরবরাহ
 
বিনা ফিসে
 
বিনা ফিসে
বাংলা ও ইংরেজি উভয় ভাষায় সনদের নকল সরবরাহ
 
৫০/- টাকা
 
১ মার্কিন ডলার
*রসিদ ছাড়া নির্ধারিত কোন ফিস আদায় করা যাবে না। jonmo nibondhon tottho jachai করতে এই পোস্টটি শুরু থেকে পড়ুন।

বিদেশে জন্ম হলে দেশে জন্ম নিবন্ধন করা যাবে কি?

জন্ম ও মৃত্যু নিবন্ধন আইনের ধারা-৪ অনুসারে নিবন্ধকের কার্যালয়ের অধীনে জন্ম গ্রহণকারী বা মৃত্যু বরণকারী অথবা স্থায়ীভাবে বসবাসকারীদের জন্ম বা মৃত্যু নিবন্ধন করা যায়। জন্ম সনদ ডাউনলোড করতে এই পোস্টটি শুরু থেকে পড়ুন। সুতরাং বিদেশে জন্ম গ্রহণ/মৃত্যু বরণকারী বাংলাদেশের স্থায়ী নাগরিক হিসেবে বিদেশে জন্ম বা মৃত্যুর যথাযথ প্রমাণ দাখিল করে দেশে স্থায়ী ঠিকানায় নিবন্ধকের নিকট হতে জন্ম/মৃত্যু নিবন্ধন করতে পারবেন। তদ্রুপ প্রবাসী বাংলাদেশীগণ ২০১৬ সালের ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত দেশের জন্ম ও স্থায়ী ঠিকানা উল্লেখ করে দূতাবাসে জন্ম নিবন্ধন করতে পারবেন। jonmo nibondhon tottho jachai করতে এই পোস্টটি শুরু থেকে পড়ুন।

নতুন জন্ম নিবন্ধন কি ম্যানুয়াল খাতায় লিখতে হবে?

অবশ্যই না!নতুন জন্ম নিবন্ধন করার জন্য ‘টুল’-এ ‘নতুনজন্ম নিবন্ধন’-বাটনে ক্লিক করলে যে পাতা পাওয়া যাবে তাতে বাংলা বা ইংরেজী বা উভয় ভাবে এন্ট্রি করে সংরক্ষণ করলেই নতুন জন্ম নিবন্ধনের পৃথক একটি করে তালিকাযুক্ত হয়ে যাবে। যে কয়টি ম্যানুয়াল খাতা অনলাইনে তৈরী করা হয়েছে তার পরের নম্বরে একটি বই সৃষ্টি হবে। এই বহির ২০০ পাতা ও প্রতি পাতায় ১২ লাইন, ২৪০০টি ডাটা এন্ট্রি হওয়ার পর সয়ংক্রিয়ভাবে পরবর্তী নম্বরের বই তৈরী হবে। jonmo nibondhon verify করতে এই পোস্টটি শুরু থেকে পড়ুন।

একই ব্যক্তি একাধিকবার জন্ম নিবন্ধন করতে পারবে কি?

একই ব্যক্তির অনুকূলে একাধিকবার জন্ম নিবন্ধন করা যাবে না। এটি জন্ম ও মৃত্যু নিবন্ধন আইন, ২০০৪ এর ২১ ধারা অনুযায়ী দন্ডনীয় অপরাধ। জন্ম নিবন্ধন অনলাইনে চেক করার নিয়ম জানতে এই পোস্টটি শুরু থেকে পড়ুন।

একজন ব্যক্তি জন্ম নিবন্ধন হয়েছে কিনা তা কিভাবে পরীক্ষা করবে?

জন্ম নিবন্ধন অনলাইনে চেক করার নিয়ম জানতে এই পোস্টটি শুরু থেকে পড়ুন। জন্ম নিবন্ধন সনদ ডাউনলোড করতেও আপনি এই পোস্টটি শুরু থেকে পড়ুন।

জন্ম বা মৃত্যু তথ্য সংশোধনের নিয়ম কি?

আইনের ১৫ ধারায় বর্ণিত বিধানসমূহ অনুসরণপূর্বক নিদিষ্ট ফরম পূরণ করে রেজিস্ট্রার জেনারেল অথবা তার পক্ষে অন্য কোন ক্ষমতাসম্পন্ন কর্মকর্তা/কর্মচারী নিকট হইতে কারিগরী সহায়তা গ্রহণ করিয়া জন্ম ও মৃত্যু তথ্য সংশোধন করা যাবে।

বিবাহিত নারীর জন্ম নিবন্ধন-এ স্বামীর নাম লিখা যাবে কি বা তার স্থায়ী ঠিকানা কীভাবে লিখতে হবে?

যে কোন জন্ম নিবন্ধনের ক্ষেত্রে পিতা ও মাতার নাম লিখতে হবে। কোন অবস্থাতে স্বামীর নাম লেখার সুযোগ নাই। বিবাহিত মহিলার স্থায়ী ঠিকানা বিবাহের পূর্বে যে ঠিকানা ছিল সেটি লিখতে হবে। জন্ম নিবন্ধন সনদ ডাউনলোড করতে এই পোস্টটি শুরু থেকে পড়ুন।

বাংলা ও ইংরেজী সনদ একসাথে প্রদান করা যাবে কিনা?

বাংলা ও ইংরেজী সনদ একসাথে প্রদান করা যাবে। প্রয়োজনে কাগজের একপিঠে বাংলা ও অপরপিঠে ইংরেজী সনদ প্রদান করা যাবে। এই পোস্টটি শুরু থেকে পড়ুন জন্ম নিবন্ধন অনলাইনে চেক করার নিয়ম জানতে।

মৃত্যু নিবন্ধন কিভাবে করতে হবে?

‘টুল’-এ মৃত্যু লিংকে প্রবেশ করলে প্রাপ্ত জন্ম তথ্য অনুসন্ধান পাতাটির মাধ্যমে মৃত ব্যক্তির জন্ম তথ্য অনুসন্ধান করে মৃত্যু নিবন্ধন করা যাবে। জন্ম সনদ ডাউনলোড করতে এই পোস্টটি শুরু থেকে পড়ুন। মৃত ব্যক্তির যদি জন্ম নিবন্ধন করা না থাকে তাহলে প্রথমে জন্ম নিবন্ধন করে নিতে হবে অথবা ম্যানুয়াল খাতায় জন্ম নিবন্ধন থাকলে তা অনলাইনভূক্ত করে নিতে হবে। মৃত ব্যক্তির জন্ম নিবন্ধন করানো সম্ভব না হলে জন্ম তথ্য অনুসন্ধান পৃষ্টার নিচের অংশে ‘অজ্ঞাত/বিদেশী’ বাটনে ক্লিক করে প্রাপ্ত ফরম পূরণ করে মৃত্যু নিবন্ধন করতে হবে। jonmo nibondhon verify করতে এই পোস্টটি শুরু থেকে পড়ুন। মৃত্যু নিবন্ধন এর জন্য অনলাইনে সয়ংক্রিয়ভাবে বই তৈরী হয়ে যাবে যা টুলের ‘মৃত্যু নিবন্ধন বই’ লিংকে ক্লিক করে দেখা যায়।

জন্ম নিবন্ধন হেল্পলাইন

জন্ম নিবন্ধন হেল্পলাইন ইমেইলঃ onlinebris.@gmail.com, যোগাযোগ ফরম। ঢাকা সিটি কর্পোরেশন এর জন্ম ও মৃত্যু নিবন্ধন কার্যালয়ের তালিকা। জন্ম নিবন্ধন সনদ ডাউনলোড করতে এই পোস্টটি শুরু থেকে পড়ুন।

জন্ম নিবন্ধন কি কি কাজে লাগে?

  • পাসপোর্ট ইস্যু 
  • বিবাহ নিবন্ধন
  • শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ভর্তি
  • সরকারী, বেসরকারী বা স্বায়ত্বশাসিত সংস্থায় নিয়োগদান
  • ড্রাইভিং লাইসেন্স ইস্যু
  • ভোটার তালিকা প্রণয়ন 
  • জমি রেজিষ্ট্রেশন 
  • ব্যাংক হিসাব খোলা 
  • আমদানি ও রপ্তানী লাইসেন্স প্রাপ্তি
  • গ্যাস, পানি, টেলিফোন ও বিদ্যুৎ সংযোগ প্রাপ্তি
  • ট্যাক্স আইডেন্টিফিকেশন নম্বর (টিআইএন) প্রাপ্তি 
  • ঠিকাদারী লাইসেন্স প্রাপ্তি 
  • বাড়ির নক্সা অনুমোদন প্রাপ্তি 
  • গাড়ির রেজিষ্ট্রেশন প্রাপ্তি 
  • ট্রেড লাইসেন্স প্রাপ্তি ও 
  • জাতীয় পরিচয়পত্র প্রাপ্তি।

জন্ম ও মৃত্যু নিবন্ধন সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন লিংক

তো এই হলো অনলাইন জন্ম নিবন্ধন যাচাই ব্যবস্থা। কোন কিছু বুঝতে না পারলে নিচের কমেন্ট বক্সে অবশ্যই মন্তব্য করবেন। আর পোস্টটি উপকারী মনে হলে ফেসবুক বা অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করতে ভুলবেন না যেন।

অন্যদের সাথে শেয়ার করুন

6 Comments

দয়া করে নীতিমালা মেনে মন্তব্য করুন ??

  1. উত্তরগুলি
    1. জন্ম নিবন্ধন চেক করার জন্য সরকারি ওয়েবসাইটের লিংক কাজ না করলে সেই ব্যাপারে আসলে আমরা ওয়াকিবহাল না।

      মুছুন
  2. উত্তরগুলি
    1. জন্ম নিবন্ধন যাচাই করতে পেরেছেন নিশ্চয়। ধন্যবাদ স্যার।

      মুছুন
  3. জন্ম নিবন্ধন চেক করার জন্য যে লিঙ্কটা দিয়েছেন,, সেটাতে ক্লিক করলে রিলোড দেখাচ্ছে,,
    জন্ম নিবন্ধন চেক করা যাচ্ছে না

    উত্তর দিনমুছুন

সর্বশেষ আপডেটেড অফার পেতে চান?

অর্ডিনারি আইটি কী?