অর্ডিনারি আইটি https://www.ordinaryit.com/2019/12/google-photos-google-drive.html

গুগল ফটোস নাকি গুগল ড্রাইভ? কোনটি কেন ব্যবহার করবেন?

আমরা সবাই গুগল ফটোস এবং গুগল ড্রাইভের সাথে কম বেশি পরিচিত। আমরা অনেকেই আমাদের প্রয়োজনীয় ফাইল এবং ছবি বা ভিডিও এখানে সংরক্ষণ করে রাখি। আজ আমি আপনাদের জানাবো ফটো, ভিডিও বা ফাইল সংরক্ষণের ক্ষেত্রে গুগল ফটোস এবং গুগল ড্রাইভের মধ্যে কোনটি ব্যবহার করা সুবিধাজনক।


গুগল ফটোস এবং গুগল ড্রাইভের মধ্যে তুলামূলক আলোচনা থেকে আমরা সজজেই বুঝতে পারবো গুগল ফটোস এবং গুগল ড্রাইভের মধ্যে কোনটির ব্যবহার অধিকতর সুবিধাজনক। তাই এখানে গুগল ফটোস এবং গুগল ড্রাইভের মধ্যে তুলামূলক আলোচনা করা হলোঃ

ধারণ ক্ষমতা

গুগল ড্রাইভে আমাদের মাত্র ১৫ জিবি ফ্রী স্পেস দেওয়া হয়। মানে আপনি আপনার সকল ডকুমেন্ট, ছবি বা ভিডিও রাখার জন্য মাত্র এই ১৫ জিবি জায়গা পাবেন।
এই ১৫ জিবি স্পেস শেষ হয়ে গেলে কি হবে জানেন? তখন আপনাকে আবার স্পেস কিনতে হবে।
  • ১০০ জিবি - ১৫০ টাকা প্রতি মাস বা ১৬০০ টাকা প্রতি বছর।
  • ২০০ জিবি - ২৫০ টাকা প্রতিমাস বা ২৫০০ টাকা প্রতি বছর।
  • ২ টেরাবাইট- ৮০০ টাকা প্রতিমাস বা ৮১০০ টাকা প্রতি বছর।
কিন্তু গুগল ফটোসে আমাদের আনলিমিটেড ফ্রী স্পেস দেওয়া হয়। গুগল ফটোস্‌ ব্যবহার করে আপনি আপনার সকল ছবি বা ভিডিও সংরক্ষণ করে রাখতে পারবেন এবং এটির স্পেস কখনো শেষ হবে না, অর্থাৎ গুগল ফটোস্‌ আপনাকে আনলিমিটেড স্টোরেজ সরবারহ করে, তবে শর্ত হলো, মূল ফাইলের সাইজ যদি বেশি হয় তাহলেঃ
  • আপনার ছবিগুলোর সাইজ সর্বোচ্চ ৬০ মেগাপিক্সেল হয়ে যাবে।
  • ভিডিওগুলোর সাইজ সর্বোচ্চ ১০৮০ পি হয়ে যাবে।
তবে যদি কেউ তার প্রকৃত সাইজের ছবি, ভিডিও সংরক্ষণ করতে চায় তাহলে সে ১৫ জিবি স্পেস পাবে।

অ্যালবাম তৈরি করা

গুগল ড্রাইভে আপনি কোনো অ্যালবাম তৈরি করতে পারবেন না। আপনার সকল ছবি ফোল্ডারে বা ফাইলে সংরক্ষণ করে রাখতে পারবেন। উদাহরণস্বরুপ নিচের ছবিতে দেখতে পাবেন যে আমার সকল ছবি নির্দিষ্ট ফাইলে জমা হয়েছে।


কিন্তু গুগল ফটোসে আপনি আপানার নির্দিষ্ট ক্যাটাগরির ছবি নির্দিষ্ট অ্যালবামে সংরক্ষণ করে রাখতে পারবেন। যেমন নিচের ছবিতে দেখতে পারবেন আমি আমার বিড়ালের ছবিগুলো My Cat নামক অ্যালবামে এবং সকল যন্ত্রপাতি ও কাজ করার ছবিগুলো Ruet Life নামক অ্যালবামে সংরক্ষণ করে রেখেছি।

এখন আপনি চিন্তা করুন যে আপনি আপনার পরিবারের সাথে কোথাও ঘুরতে গেছেন এবং ছবিগুলো আপনি অনলাইন স্টোরেজে সেইভ করে রাখলেন। আপনি আপনার ছবিগুলো কিভাবে দেখতে পছন্দ করবেন? অ্যালবাম আকারে নাকি ফোল্ডারে ফাইল করা আকারে? নিশ্চয় অ্যালবাম হিসেবে। গুগল ফটোস আপনাকে এ সুবিধাটি দিবে কিন্তু গুগল ড্রাইভে এটি পাবেন না।

ফটো সার্চ

যদি আপনার লক্ষ লক্ষ ছবি থাকে এবং আপনি একটি নির্দিষ্ট ছবি খুঁজতে চান, তাহলে সেই ছবিটি খোঁজা আপনার জন্য অনেক কষ্টসাধ্য হয়ে যাবে। কিন্তু গুগল ফটোস ব্যবহার করে ছবির বিষয়টি লিখে সার্চ দিলে সেই বিষয় সম্পর্কিত সকল ছবি আপনার সামনে উপস্থিত হবে। উদাহরণস্বরূপ নিচের ছবিতে দেখতে পাবেন যে আমি Cat লিখে সার্চ দিয়েছিলাম এবং আমার বিড়ালের সকল ছবিগুলো সামনে চলে এসেছে। এর কারণ হলো গুগল ফটোজে ফেস রেকগনেশন সিস্টেম চালু আছে।
কিন্তু গুগল ড্রাইভে আপনি এরকম কোনো সুবিধা পাবেন না।

গুগল ফটো অ্যাসিস্ট্যান্ট

গুগল ফটোসে গুগল ফটো অ্যাসিস্ট্যান্ট ব্যবহার করে আপনার সকল ছবিগুলোর জন্য স্বয়ংক্রিয় ভাবে আপনি এনিমেশন, কলেজ, মুভি পেয়ে যাবেন। আপনি চাইলে সেইভ করে রাখতে পারেন বা ডিলিট করে দিতে পারেন। কিন্তু গুগল ড্রাইভে আপনি এরকম কোনো সুবিধা পাবেন না।ক

ফাইল সংরক্ষণ

গুগল ফটোজে শুধু ছবি বা ভিডিও রাখতে পারবেন। অন্যদিকে গুগল ড্রাইভে আপনি যে কোন ফাইল রাখতে পারবেন। আপনার ল্যাপটপের হার্ডডিক্সে যা রাখতে পারবেন সেটাই গুগল ড্রাইভে রাখা সম্ভব।

উপরের আলোচনা থেকে আমরা জানতে পারলাম যে গুগল ফটোস আমাদের অনেকগুলো সুবিধা দেয় যা গুগল ড্রাইভ দেয় না। তাই আমার ব্যক্তিগত মতামত অনুযায়ী ফটো বা ভিডিও স্টোরেজের জন্য গুগল ফটোস ব্যবহার করা বেশি সুবিধাজনক আর ফাইল সংরক্ষণের জন্য গুগল ড্রাইভ ব্যবহার করা বেশি সুবিধাজনক। আপনাদের কোনটি সুবিধাজনক মনে হয়েছে নিচে কমেন্ট করে অবশ্যই জানাবেন।

অন্যদের সাথে শেয়ার করুন

1 Comments

দয়া করে নীতিমালা মেনে মন্তব্য করুন ??

সর্বশেষ আপডেটেড অফার পেতে চান?

অর্ডিনারি আইটি কী?