অর্ডিনারি আইটি https://www.ordinaryit.com/2022/11/zishu.html

যিশু খ্রিস্টের জন্ম তারিখ - যিশু খ্রিস্টের জন্ম কোন দেশে

যিশু খ্রিস্টের জন্ম তারিখ হলো ২৫ ডিসেম্বর। এই দিনটিকে খ্রিস্টানরা বড়দিন হিসেবে পালন করে। যিশু খ্রিস্টের জন্ম তারিখ সম্পর্কে আরও বিস্তারিত তথ্য নিচে তুলে ধরা হবে। চলুন দেখে নেয়া যাক যিশু খ্রিস্টের জন্ম তারিখ এবং যিশু খ্রিস্টের জন্ম কোন দেশে সে সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য।

পেজ সূচিপত্র: যিশু খ্রিস্টের জন্ম তারিখ - যিশু খ্রিস্টের জন্ম কোন দেশে

যিশু খ্রিস্টের সংক্ষিপ্ত জীবনী: উপস্থাপনা

খ্রিস্টানরা যাকে যীশু খ্রীষ্ট হিসেবে অভিহিত করে তিনি মুসলমানদের নিকট সম্মানিত একজন নবী ঈসা আলাইহিস সালাম। যুগে যুগে খ্রিস্টানরা ঈসা আলাইহিস সালামের প্রতি নাযিলকৃত গ্রন্থের পরিবর্তন সাধন করে বাইবেলেকে (যাবুর কিতাব) বিকৃত করেছে। আর সে কারণেই বাইবেলে যীশু খ্রীষ্ট সম্পর্কিত যে সকল তথ্য রয়েছে তার সবগুলো শতভাগ সঠিক নয়।

যিশুখ্রিস্টের তথা ইসা(আ:) এর কথা পবিত্র কোরআনে আলচনা করা হয়েছে। যিশু খ্রিস্টের জন্ম সম্পর্কিত বিস্তারিত তথ্য পবিত্র কোরআনে উল্লেখ করা হয়েছে। তাই আপনি যদি যিশুখ্রিস্টের জন্ম সম্পর্কে সঠিক তথ্য জানতে চান তাহলে অবশ্যই আপনাকে পবিত্র কুরআনে বর্ণিত যিশুখ্রিস্টের জন্ম ও জীবনকাল সম্পর্কিত অধ্যায়গুলো ভালোভাবে অধ্যায়ন করতে হবে। 

নিচে যিশু খ্রিস্টের জন্ম তারিখ কবে বা যিশু খ্রিস্টের জন্ম কত সালে হয়েছে এবং যিশু খ্রিস্টের জন্ম কোন দেশে হয়েছিল, সে বিষয়ে সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করা হবে। যিশু খ্রিস্টের জন্ম কোথায় এবং যিশু খ্রিস্টের জন্মস্থান কোথায় সে সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে শেষপর্যন্ত আর্টিকেলটি পড়ুন। 

যিশু খ্রিস্টের জন্ম তারিখ 

যিশু খ্রিস্টের জন্ম তারিখ এবং যিশু খ্রিস্টের জন্ম কত সালে তা নিচে তুলে ধরা হলো। যিশু খ্রিস্টের জন্ম তারিখ সম্পর্কে বিস্তারিত কোনো তথ্য পাওয়া যায় না। ম্যাথিউ এবং লুকেও যীশুর জন্ম তারিখ সম্পর্কে তেমন কোন তথ্য নেই। তবে খ্রিস্টানরা ডিসেম্বরের ২৫ তারিখ যীশুর জন্মদিন বা বড়দিন পালন করে।কিছু কিছু গ্রন্থে যীশুর জন্ম তারিখ ২৫ ডিসেম্বর উল্লেখ হিসেবে উল্লেখ করা হয়।
আবার কিছু কিছু গ্রন্থে যীশুর জন্ম তারিখ হিসেবে ২৫ ডিসেম্বর উল্লেখ করা নেই বরং অন্য কোন তারিখ উল্লেখ করা হয়েছে। পূর্বেই বলা হয়েছে যে খ্রিস্টানদের ধর্মগ্রন্থ বিভিন্ন সময়ে বিভিন্নভাবে বিবৃত হয়েছে।তাই সেখানে অসামঞ্জস্যপূর্ণ তথ্য থাকা অসম্ভব কিছু নয়।  

যিশু খ্রিস্টের জন্ম তারিখ উপরে তুলে ধরা হলো। নিচে যিশু খ্রিস্টের জন্ম কত সালে, সে সম্পর্কে বিস্তারিত আলোকপাত করা হবে। পাশাপাশি যিশু খ্রিস্টের জন্ম কোন দেশে, যিশু খ্রিস্টের জন্ম কোথায় এবং যিশু খ্রিস্টের জন্মস্থান কোথায় সে বিষয় সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য তুলে ধরা হবে। 

যিশু খ্রিস্টের জন্ম কত সালে

যিশু খ্রিস্টের জন্ম তারিখ তো জানা গেল, এখন আসা যাক যিশু খ্রিস্টের জন্ম কত সালে, সেই প্রসঙ্গে।যিশু খ্রিস্টের জন্ম সাল হিসেবে উল্লেখ করা হয় ৪ থেকে ৬ খ্রিস্টপূর্ব। যদিও যিশুখ্রিস্টের জন্ম সাল হিসেবে বিস্তারিত তথ্য পাওয়া যায় না। তবে ম্যাথিউ এবং লুকে ৪ থেকে ৬ খ্রিস্টপূর্বের মধ্যেই তার জন্ম হয়েছে বলে ইঙ্গিত পাওয়া যায়। 

যিশু খ্রিস্টের জন্ম তারিখ কবে এবং যিশু খ্রিস্টের জন্ম কত সালে? আশা করি এই প্রশ্নের উত্তর পেয়েছেন। নিচে যিশু খ্রিস্টের জন্ম কোন দেশে, যিশু খ্রিস্টের জন্ম কোথায় বা যিশু খ্রিস্টের জন্মস্থান কোথায় সেই বিষয়গুলো সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করা হবে।

যিশু খ্রিস্টের জন্ম কোন দেশে - যিশু খ্রিস্টের জন্ম কোথায়

যিশু খ্রিস্টের জন্ম কোন দেশে বা যিশু খ্রিস্টের জন্ম কোথায় তা নিচে উল্লেখ করা হলো। যিশুখ্রিস্টের জন্ম হয়েছিল তৎকালীন যিহূদিয়া প্রদেশের বাইতুল লাহামে। অর্থাৎ বর্তমান ফিলিস্তিনের জেরুজালেমের বেথেলহেমে। যিশু খ্রিস্টের মাতা মেরি (মরিয়ম আলাইহিস সালাম) কিভাবে গর্ভবতী হয়েছিলেন এবং যিশুখ্রিস্টের জন্ম কিভাবে হয়েছিল সে সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য নিচে তুলে ধরা হবে। যিশু খ্রিস্টের জন্ম কোন দেশে  বা যিশু খ্রিস্টের জন্ম কোথায় হয়েছে? আশা করি সেই প্রশ্নের উত্তর পেয়েছেন। 
যিশু খ্রিস্টের জন্ম তারিখ এবং যিশু খ্রিস্টের জন্ম কত সালে? এই বিষয়গুলো সম্পর্কে ইতোমধ্যেই উপরে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়েছে। আপনি যদি যিশুখ্রিস্টের জন্ম সম্পর্কে আরও বিস্তারিত তথ্য জানতে চান, তাহলে অবশ্যই আপনাকে এই আর্টিকেলটির নিচের অংশটি মনোযোগ সহকারে পড়তে হবে। কেননা নিচে এই ব্যাপারে বিস্তারিত আলোচনা তুলে ধরা হবে। 

যিশু খ্রিস্টের জন্মস্থান কোথায় এবং কিভাবে হয়েছে সে সম্পর্কে বিস্তারিত

যিশু খ্রিস্টের জন্ম কোন দেশে, যিশু খ্রিস্টের জন্ম কোথায় হয়েছে বা যিশু খ্রিস্টের জন্মস্থান কোথায় সে সম্পর্কে উপরে আলোচনা করা হয়েছে। এখানে যিশুখ্রিস্টের জন্ম সম্পর্কে আলোচনা করা হবে। যীশু খ্রীষ্ট বা ঈসা আলাইহিস সালাম অলৌকিকভাবে পৃথিবীতে জন্মগ্রহণ করেছেন। পবিত্র কোরআনে বিষয় সম্পর্কে আলোচনা করা হয়েছে। 

এর সৃষ্টি আদম (আ:) এর মতো। পবিত্র কোরআনে উল্লেখ করা হয়েছে আল্লাহ তায়ালা ইস আলাই সালাম এর উদাহরণ দিয়েছেন আদম (আ:) এর শাথে। ঈসা (আ:) এর দৃষ্টান্ত আদম (আ:) এর দৃষ্টান্তসদৃশ। তিনি তাকে মৃত্তিকা হতে সৃষ্টি করেছিলেন; অতঃপর তাকে বলেছিলেন "হও", ফলে সে হয়ে গেল। (আল ইমরান -৫৯) অর্থাৎ আদম আলাইহিস সালামকে আল্লাহতালা যেমন পিতা-মাতা ছাড়াই সৃষ্টি করেছেন ঠিক তেমনি ভাবে ঈসা (আ:) কেউ সৃষ্টি করেছেন।

তবে আদম আলাইহিস সালাম এবং ঈসা (আ:) মধ্যে পার্থক্য হলো:  আদম সাল্লামের পিতা-মাতা কেউ ছিল না। আর ঈসা আলাইহিস সালামের শুধুমাত্র মাতা ছিল। আল্লাহর নির্দেশে ঈসা আলাইহিস সালামের মাতা মারিয়াম আলাইহিস সালাম গর্ভবতী হন এবং ঈসা আলাইহিস সালামকে জন্মদান করেন। 

খ্রিস্ট ধর্ম গ্রন্থে ও ঈসা আলাইহিস সালাম এর জন্মের ব্যাপারে কিছু তথ্য পাওয়া যায়। মাথি অধ্যায় ২৩ এ উল্লেখ করা হয় "শোন! "এক কুমারী গর্ভবতী হবে, আর সে এক পুত্র সন্তান প্রসব করবে, তারা তাঁকে ইম্মানূয়েল (আমাদের প্রভু) বলে ডাকবে।

অর্থাৎ ঈসা (আ:) যে পুরুষের সংস্পর্শ ছাড়াই আল্লাহর নির্দেশে পৃথিবীতে জন্মগ্রহণ করেছেন তা খ্রিস্টানরাও স্বীকার করে। তবে খ্রিস্টানদের সবচেয়ে বড় সমস্যা হলো,  পিতার সংস্পর্শ ছাড়া ঈসা (আ:) জন্ম লাভ করার কারণে, তারা ঈসা (আ:)কে আল্লাহর পুত্র বলে সম্বোধন করে। যা সমর্থন যোগ্য নয়। এমনকি খ্রিস্টানরা ঈসা (আ:)কে প্রভু বলে বিশ্বাস করে। 

অধিকাংশ খ্রিষ্টান ত্রিত্ববাদে বিশ্বাসী তারা মেরি এবং যীশু খ্রীষ্ট কে সৃষ্টিকর্তার পরিবার হিসেবে উল্লেখ করে। অথচ এই ধরনের ধারণা পোষণ করা সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ। ইসলাম ধর্ম মতে, আল্লাহ এক ও একক তাঁর কোন শরীক নেই তিনি কাউকে জন্ম দেননি এবং তিনি কারোর থেকে জন্ম গ্রহণ করেননি। ( সূরা আল কাউসার) 
যেহেতু বাইবেল বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন ভাবে পরিবর্তিত হয়েছে তাই বাইবেলের তথ্যগুলো গ্রহণযোগ্য নয়। তাই আমরা বাইবেলের সকল তথ্য বিশ্বাস করতে পারিনা। যেহেতু কুরআন শাশ্বত বাণী এবং সম্পূর্ণরূপে অবিকৃত তাই ঈসা আলাইহিস সালাম সম্পর্কে পবিত্র কোরআনের বাণী গুলো সম্পূর্ণ সঠিক এবং বিশ্বাসযোগ্য। 

যিশু খ্রিস্টের জন্ম তারিখ এবং যিশু খ্রিস্টের জন্ম কত সালে তা উপরে তুলে ধরা হয়েছে। সেই সাথে যিশু খ্রিস্টের জন্ম কোথায়,  যিশু খ্রিস্টের জন্ম কোন দেশে বা যিশু খ্রিস্টের জন্মস্থান কোথায় সে সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য উল্লেখ করা হয়েছে। 

যিশু খ্রিস্টের জন্ম কোন দেশে বা যিশু খ্রিস্টের জন্মস্থান কোথায়: উপসংহার

যিশু খ্রিস্টের জন্ম তারিখ এবং যিশু খ্রিস্টের জন্ম কত সালে সে সম্পর্কে উপরে বিস্তারিত তথ্য তুলে ধরা হয়েছে। এর পাশাপাশি যিশু খ্রিস্টের জন্ম কোথায়, যিশু খ্রিস্টের জন্ম কোন দেশে বা যিশু খ্রিস্টের জন্মস্থান কোথায় সে সম্পর্কে উপরে যে সকল তথ্য তুলে ধরা হয়েছে আশা করি সেই তথ্যগুলো জেনে উপকৃত হয়েছেন। ১৬৪১৩

পরিচিতদেরকে জানাতে শেয়ার করুন

0 Comments

দয়া করে নীতিমালা মেনে মন্তব্য করুন ??

অর্ডিনারি আইটি কী?