অর্ডিনারি আইটি https://www.ordinaryit.com/2022/11/sishu.html

বিশ্ব শিশু অধিকার দিবস কবে - বিশ্ব শিশু অধিকার দিবস ২০২২

বিশ্ব শিশু অধিকার দিবস কবে? প্রতি বছর নভেম্বর মাসের ২০ তারিখে বিশ্ব শিশু অধিকার দিবস পালন করা হয়। নিচে বিশ্ব শিশু অধিকার দিবস কবে বা বিশ্ব শিশু অধিকার দিবস ২০২২ কবে? সে সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়েছে। চলুন দেখে নেয়া যাক বিশ্ব শিশু অধিকার দিবস কবে?

পেজ সূচিপত্র: বিশ্ব শিশু অধিকার দিবস কবে - বিশ্ব শিশু অধিকার দিবস ২০২২

শিশু অধিকার সনদ ইতিহাসের গুরুত্বপূর্ণ একটি বাঁক: উপস্থাপনা

বিশ্ব শিশু অধিকার দিবস কবে বা বিশ্ব শিশু অধিকার দিবস ২০২২ কবে? সে সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য জানতে চাইলে পুরো আর্টিকেলটি মনোযোগ সহকারে পড়তে থাকুন। ১৯৮৯ সালে গৃহীত শিশু অধিকার সনদ ইতিহাসের গুরুত্বপূর্ণ একটি বাঁক। জাতিসংঘের সকল সদস্য রাষ্ট্রের ঐকমত্যের ভিত্তিতে এই সনদ গ্রহণ করা হয়। শিশুদের অধিকার রক্ষা করার জন্য এই সনদ একটি রক্ষাকবচ হিসেবে কাজ করে। এই সনদ গ্রহণের পূর্বে শিশুদের অধিকার সম্পর্কিত কোন আইন ছিল না। 

বিশেষ করে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময় শিশুদের যে ভয়াবহ অবস্থা দাঁড়িয়ে ছিল, তা ছিল পৃথিবীবাসীর জন্য ন্যক্কারজনক। দ্বিতীয় যুদ্ধের মতো এ ধরনের ন্যক্কারজনক ঘটনার পুনরাবৃত্তি যেন না ঘটে সেই লক্ষ্যে জাতিসংঘ শিশুদের জন্য শিশু অধিকার সনদ গ্রহণ করেন। যেহেতু "জাতিসংঘ শিশু অধিকার সনদ" ১৯৮৯ সালের ২০ শে নভেম্বরে গৃহীত হয়। তাই ২০ শে নভেম্বর শিশু অধিকার দিবস পালন করা হয়। 

বিশ্ব শিশু অধিকার দিবস কবে বা বিশ্ব শিশু অধিকার দিবস ২০২২ সম্পর্কিত বিস্তারিত তথ্য নিচে তুলে ধরা হলো। এর পাশাপাশি বিশ্ব শিশু অধিকার সপ্তাহ এবং বিশ্ব শিশু অধিকার সপ্তাহ ২০২২ সম্পর্কেও আলোচনা করা হবে। বিশ্ব শিশু অধিকার দিবস সম্পর্কে বিস্তারিত জানার জন্য সাথেই থাকুন। চলুন দেখে নেয়া যাক বিশ্ব শিশু অধিকার দিবস কবে বা বিশ্ব শিশু অধিকার দিবস ২০২২ সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য। 

বিশ্ব শিশু অধিকার দিবস কবে - বিশ্ব শিশু অধিকার দিবস ২০২২

বিশ্ব শিশু অধিকার দিবস ২০২২ কবে তা নিচে তুলে ধরা হবে। এবং বিশ্ব শিশু অধিকার দিবস ২০২২ সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করা হবে। বিশ্ব শিশু অধিকার দিবস কবে? এই প্রশ্নের সঠিক উত্তর হলো ২০ নভেম্বর। যদিও বিভিন্ন দেশে বিভিন্ন সময়ে বিশ্ব শিশু অধিকার দিবস পালন করা হয়। কিন্তু আন্তর্জাতিক ভাবে বিশ্ব শিশু অধিকার দিবস প্রতিবছর নভেম্বর মাসের ২০ তারিখে পালন করা হয়। 
যেহেতু জাতিসংঘ কর্তৃক ঘোষিত বিশ্ব শিশু অধিকার দিবস হলো নভেম্বর ২০ তারিখ, তাই সর্বজনীনভাবে নভেম্বর ২০ তারিখে বিশ্ব শিশু অধিকার দিবস পালন করা হয়। তারই ধারাবাহিকতায় এ বছরেও নভেম্বরের ২০ তারিখে বিশ্ব শিশু অধিকার দিবস ২০২২ পালন করা হচ্ছে। বিশ্ব শিশু অধিকার দিবস কবে বা বিশ্ব শিশু অধিকার দিবস ২০২২ কবে? আশা করি এই প্রশ্নের উত্তর পেয়েছেন। নিচে বিশ্ব শিশু অধিকার সপ্তাহ বা বিশ্ব শিশু অধিকার সপ্তাহ ২০২২ সম্পর্কে আলোচনা করা হলো। 

বিশ্ব শিশু অধিকার সপ্তাহ - বিশ্ব শিশু অধিকার সপ্তাহ ২০২২

বিশ্ব শিশু অধিকার দিবসের মতোই বিশ্ব বিশ্ব শিশু অধিকার সপ্তাহ বিভিন্ন দেশে বিভিন্ন সময়ে পালন করা হয়। বাংলাদেশ অক্টোবর মাসের শুরুতে বিশ্ব শিশু অধিকার সপ্তাহ পালন করা হয়। এ বছরেও বিশ্ব শিশু অধিকার সপ্তাহ ২০২২ যথাযথ আনুষ্ঠানিকতার সাথে পালন করা হয়েছে। বিশ্ব শিশু অধিকার সপ্তাহ ২০২২ পালন করার মুখ্য উদ্দেশ্য হলো সকলকে শিশুদের অধিকার সম্পর্কে সচেতন করা। 

আমাদের সমাজে বিভিন্ন ভাবে শিশুরা তাদের অধিকার থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। দেশের বিভিন্ন জায়গায় বিশ্ব শিশু অধিকার সপ্তাহ ২০২২ পালন করার মাধ্যমে ব্যাপকভাবে শিশুদের অধিকার নিয়ে প্রচারণা চালানো হয়। শিশুদের অধিকার সম্পর্কে সকলে অবহিত হতে পারে। ফলশ্রুতিতে শিশুর অধিকার নিশ্চিত হয়। 
আশা করি বিশ্ব শিশু অধিকার সপ্তাহ বা বিশ্ব শিশু অধিকার সপ্তাহ ২০২২ সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য জানতে পেরেছেন। উপরে ইতোমধ্যেই বিশ্ব শিশু অধিকার দিবস কবে বা বিশ্ব শিশু অধিকার দিবস ২০২২ কবে? সে প্রশ্নের উত্তরও তুলে ধরা হয়েছে। নিচে শিশু অধিকার দিবস এর লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য সমূহ তুলে ধরা হবে। 

শিশু অধিকার দিবস এর লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য

শিশু অধিকার দিবস পালনের নির্দিষ্ট লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য রয়েছে। কয়েকটি উদ্দেশ্য সামনে রেখে শিশু অধিকার দিবস পালন করা হয়। শিশু অধিকার সনদ প্রণয়ন করা হয়েছে সেই সনদে শিশুদের অধিকার সম্পর্কে ৫৪টি ধারা উল্লেখ করা হয়েছে। 

অর্থাৎ এই ৫৪টি ধারা আইন হিসেবে পরিগণিত হবে এবং প্রত্যেকটি ধারা সকল দেশকে মেনে চলতে হবে। বিশ্ব শিশু অধিকার দিবস কবে বা বিশ্ব শিশু অধিকার দিবস ২০২২ কবে এই প্রশ্নের উত্তর ইতোমধ্যেই উপরে প্রদান করা হয়েছে। সেই সাথে বিশ্ব শিশু অধিকার সপ্তাহ ২০২২ সম্পর্কে বিস্তারিত আলোকপাত করা হয়েছে। 

  • ১৮ বছর বা তার নিচের সকলকে শিশু হিসেবে পরিগণিত হবে: আঠারো বছর বয়স পর্যন্ত প্রত্যেক মানবসন্তানকে শিশু হিসেবে বিবেচনা করতে হবে। ১৮ বছর বয়স পর্যন্ত কাউকে প্রাপ্তবয়স্ক হিসেবে বিবেচনা করা যাবে না। তবে আদালত কর্তৃক ১৮ বছর বয়সের পূর্বেই যদি কোন ব্যক্তিকে প্রাপ্তবয়স্ক ঘোষণা করা হয় তবে তা ভিন্ন বিষয়। স্বাভাবিকভাবে সকল মানব সন্তান আঠারো বছর বয়স পর্যন্ত শিশু বলে বিবেচিত হবে। 
  • শিশু স্বাস্থ্য ও পুষ্টির যোগান দিতে হবে: শিশু যেন সঠিক সময়ে সঠিকভাবে বেড়ে উঠতে পারে, সেজন্য যেসকল পুষ্টির প্রয়োজন বা যেসকল খাবারের প্রয়োজন, সেগুলো অবশ্যই সরবরাহ করতে হবে এবং সর্বদা শিশুর স্বাস্থ্যের প্রতি লক্ষ্য রাখতে হবে। কোনভাবেই যেন শিশু পুষ্টিহীনতায় ভোগে তা নিশ্চিত করতে হবে। সঠিক বয়সে যদি শিশু পর্যাপ্ত পুষ্টির যোগান না পায় সে ক্ষেত্রে শিশু বিকলাঙ্গ হতে পারে। তাই অবশ্যই শিশুদের স্বাস্থ্য গত সুরক্ষার জন্য সঠিক সময়ে সঠিক পুষ্টি প্রদান করতে হবে।
  • প্রতিবন্ধী শিশুর অধিকার নিশ্চিত করতে হবে: বিকলাঙ্গ প্রতিবন্ধী শিশুদের অধিকার নিশ্চিত করতে হবে। তাদের যাবতীয় মৌলিক চাহিদা পূরণ করতে হবে এবং শিক্ষা ক্ষেত্রে তাদের কে প্রাধান্য দিতে হবে। প্রতিবন্ধীর জন্য উপযুক্ত শিক্ষা লাভ করতে পারে সেই ব্যবস্থা নিশ্চিত করতে হবে। সমাজে এখনো প্রতিবন্ধীরা বিভিন্নভাবে অবহেলিত এবং অপমানিত। প্রতিবন্ধীদের কে কখনোই অবহেলা করা যাবে না। তাদের অধিকার নিশ্চিত করার জন্য সকল ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে। 
  • সবার আগে শিশুর স্বার্থ রক্ষা করতে হবে: সর্বদা শিশুর স্বার্থ রক্ষা করতে হবে। যেকোনো জায়গায় শিশুদেরকে প্রাধান্য দিতে হবে এবং তাদেরকে বিশেষ সুবিধা প্রদান করতে হবে। শিশুদেরকে সবসময় প্রাধান্য দিয়ে তাদের স্বার্থ রক্ষা করতে হবে। সর্বোপরি শিশুর স্বার্থ রক্ষার বিষয়টি নিশ্চিত করতে হবে। 
  • শিশুর শিক্ষা লাভের অধিকার নিশ্চিত করতে হবে: শিশুরা যেন সুশিক্ষায় শিক্ষিত হতে পারে সেই বিষয়টি অবশ্যই নিশ্চিত করতে হবে। শিশুরা যেন নির্বিঘ্নে পড়ালেখা করতে পারে সেই পরিবেশ নিশ্চিত করতে হবে। প্রয়োজনে ভর্তুকির মাধ্যমে শিশুদের শিক্ষা লাভের অধিকার নিশ্চিত করতে হবে। সঠিক শিক্ষা পেলে শিশুরা ভবিষ্যতে দেশসেবার সুযোগ পাবে। আরও সঠিক শিক্ষা থেকে বঞ্চিত হলে সমাজের বোঝা হিসেবে পরিগণিত হবে। তাই অবশ্যই শিশুদের শিক্ষাগত অধিকার নিশ্চিত করতে হবে। 

শিশু অধিকার দিবস সম্পর্কে শেষ কথা

বিশ্ব শিশু অধিকার দিবস কবে বা বিশ্ব শিশু অধিকার দিবস ২০২২ কবে? এই প্রশ্নের উত্তর উপরে বিস্তারিতভাবে বর্ণনা করা হয়েছে। সেইসাথে বিশ্ব শিশু অধিকার সপ্তাহ ২০২২ সম্পর্কেও আলোকপাত করা হয়েছে। শিশুর অধিকার প্রতিষ্ঠা করার জন্য আপনাকে সর্বাত্মক প্রচেষ্টা করতে হবে এবং সকলকে শিশুর অধিকার সম্পর্কে জানাতে হবে। আপনার ক্ষুদ্র প্রচেষ্টা শিশুর অধিকার রক্ষায় কার্যকর ভূমিকা পালন করতে পারে। ১৬৪১৩

পরিচিতদেরকে জানাতে শেয়ার করুন

0 Comments

দয়া করে নীতিমালা মেনে মন্তব্য করুন ??

অর্ডিনারি আইটি কী?