অর্ডিনারি আইটি https://www.ordinaryit.com/2020/05/daily-mistakes.html

৩০টি ভুল কাজ যা দৈনন্দিন জীবনে প্রতিদিন করেন

আমাদের দৈনন্দিন জীবনে আমরা নানা রকম ভুল কাজ কর্ম করে থাকি। প্রয়োজনে বা অপ্রয়োজনে। আচ্ছা আমরা কি সে কাজ গুলো নিয়ম মেনে করি?


এমন ৩০ টি কাজের কথা আজ আপনাদের বলবো যা আমরা দিনের পর দিন করে আসছি ভুল নিয়মে। তাহলে চলুন জেনে নেয়া যাক কি সেই ৩০ টি কাজ যা প্রায় সবাই ভুল নিয়মে করে আসছে দিনের পর দিন। এই কাজ গুলো সঠিক নিয়মে করতে পারলে জীবন হবে আরও স্মার্ট।

১. ব্যান্ডেজের ভুল ব্যাবহার

যেকোন ক্ষততে ব্যবহারের জন্য আমরা সচারচর ব্যান্ডেজ ব্যাবহার করে থাকি। কিন্তু সেটি সঠিক নিয়মে ব্যাবহার করছি কিনা সেটা কি আমরা জানি? ব্যান্ডেজের ব্যাবহারের ও নিয়ম রয়েছে। নিওস্ট্রেপ বা ছোট ব্যান্ডেজ যেগুলো আমরা ব্যবহার করি তা প্যাক থেকে বের করে দুই পাশে কাঁচি দিয়ে কেটে লাগাতে হয় এতে করে ভালোমত আটকে থাকে খুলে যাওয়ার ভয় থাকে না। ছবিতে দেখানো হয়েছে কিভাবে লাগাতে হয়। 

২. প্রিঙ্গেলেস চিপস খেতে গিয়ে ভুল

প্রিঙ্গেলেস চিপস একটি অত্যান্ত জনপ্রিয় স্নাকস। এমন কেউ নেই যে এটি খেতে পছন্দ করবে না। কিন্তু এর প্যাক অন্য সব প্যাকের চেয়ে আলাদা হওয়ায় বের করতে কিছু টা সমস্যা হয়। ঢেলে বের করতে গেলে পড়ে যেতে পারে। তাহলে কিভাবে চিপস গুলো বের করে খাওয়া যায়? খুব সহজ। একটা কাগজ প্যাকের সমান করে কেটে ভেতরে ঢুকিয়ে দিয়ে প্যাকটি নামান, সব চিপস বের হয়ে আসবে। ছবিতে দেখানো অনুযায়ী।

৩. ড্রিংকস গ্লাস ধরতে ভুল

ড্রিংকস গ্লাসে আমরা অনেকেই পানিও পান করে থাকি। বিভিন্ন অনুষ্ঠান বা পার্টিতে গেলে এই ধরণের গ্লাসে আমরা পান করি কিন্তু অনেকেই জানি না এই গ্লাস কিভাবে ধরতে হয়। উপরের অংশ ধরে আমরা পানিও পান করি কিন্তু জানেন কি নিচের সরু অংশ তৈরি করা হয়েছে ধরার জন্যই। ছবিতে দেখানো হয়েছে সে নিয়ম কিভাবে ধরতে পারেন।

৪. পাউরুটি বা কেক টুকরা করাতে ভুল

রুটি কম বেশি সবাই খাই আমরা। ব্রেড বিভিন্ন প্রকার আছে। লম্বা ব্রেড গুলো কেটে স্লাইস করে খেতে হয় কিন্তু দেখা যায় যে স্লাইস করতে গেলে ছিঁড়ে যায় বা শেপ নষ্ট হয়ে যায়। অনেক ক্ষেত্রে মেহমান দের সামনে দেয়া যায় না। তাহলে কি করে সুন্দর করে স্লাইস করা যায়?খুব সহজ। ব্রেড টিকে উলটা করে নিন এবার কাটুন ছবিতে দেখানো নিয়মে।

৫. মাল্টিপ্লাগ লাগানোতে ভুল

মাল্টিপ্লাগ আমাদের জীবনের একটি অতি গুরুত্বপূর্ণ জিনিস। বিভিন্ন ইলেক্ট্রনিক্স ব্যবহারের জন্য বিদ্যুৎ সরবরাহ করতে বা দূরে লাইন টেনে নিতে এটি ব্যাবহার করা হয়। অনেকসময় তার প্লাগইন করলে তা একটু টান লাগলেই খুলে আসে। এই সমস্যার সমাধান খুব সহজ। শুধু প্লাগ ন করার আগে একটা প্যাঁচ দিয়ে নিন। ব্যাস হয়ে যাবে। ছবিতে দেখে নিন সহজেই।


৬. পিজ্জা খাওয়াতে ভুল

আমরা পিজ্জা খাওয়ার সময় স্লাইস যেমন থাকে, তেমনই খাই। এভাবে খেতে গেলে টপিংস নিচে পড়ে যায় আবার খুলে পড়ে যায়। তাই পিজ্জার স্লাইস হাতে নিয়ে ভাঁজ করে মুখে দিতে হবে। এতে করে নিচে পড়বে না আর খেতেও অনেক বেশি মজা লাগবে। ছবিতে দেখানো হয়েছে কিভাবে পিজ্জার স্লাইস ধরতে হবে। 

৭. স্ট্র দিয়ে কোকাকোলা পানে ভুল

অনেকেই স্ট্র দিয়ে কোকাকোলা ক্যান থেকে কোকাকোলা পান করি। কিন্তু স্ট্র ব্যাবহারের জন্য আলাদা করে ব্যাবস্থা করা রয়েছে তা আমরা অনেকেই জানি না। উপরে যে লক টেনে ক্যান খুলতে হয় সেটির সামনে একটি ছিদ্র রয়েছে যার মাঝে স্ট্র দিয়ে ভেতরে ঢুকাতে হয়। এতে করে স্ট্র নড়াচড়া করা বা বের হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে না। 

৮. ফল ফ্রিজিং করাতে ভুল

আপেল বা আপেল জাতীয় ফল গুলো চাইলেই খুব সহজে ফ্রিজে সংরক্ষণ করা সম্ভব। এর জন্য দরকার এয়ার টাইট পলিব্যাগ। প্রথমে ফল কেটে পিস পিস করতে হবে তার পর সে ফল গুলো ব্যাগে ভরতে হবে। তার পর একটা স্ট্র দিয়ে বাকি থাকা হাওয়া টেনে বের করে দিতে হবে। এতে করে হাওয়া ছাড়া ফল বেশিদিন ভালো থাকবে ও ফ্রিজে রেখে দেয়া যাবে। 

৯. টেট্রা প্যাক থেকে জুস ঢালাতে ভুল

আমরা টেট্রা জুস প্যাক থেকে জুস ঢালার সময় মুখ যেদিকে আছে সেদিক করে ঢালি কিন্তু এতে করে প্যাক থেকে জুস পড়ার সময় দ্রুত পড়ে আর এদিক সেদিক ছিটিয়ে পড়ে। তাই মুখ উল্টো করে ঢালতে হয়। তাহলে গ্লাসে ঢালার সময় ছড়িয়ে ছিটিয়ে পড়ে যাবে না।

১০. চা'তে চিনি মেশানোতে ভুল

চা'তে চিনি মেশানোর জন্য আমরা চিনি ঢেলে গোল করে ঘুরিয়ে ঘুরিয়ে মেশাই। এতে করে চা ঠান্ডা হয়ে যায় আর চিনি মেশাতে অনেক সময় লাগে। তাই সোজাসুজি করে চামচ দিয়ে মেশাতে হয়। এতে করে গরম গরম থাকতেই চিনি দ্রুত মিশে যায়। 

১১. কর্ণ ফ্লেক্সে দুধ মেশানোতে ভুল

কর্ণ ফ্লেক্স একটি সুস্বাদু খাবার যা স্ন্যাক্স হিসেবে খাওয়া হয়। কর্ণ ফ্লেক্সে দুধ মিশিয়ে অনেকেই খায় আর তা অনেকেরই পছন্দ। কিন্তু সমস্যা হলো একটি পাত্রে কর্ণ ফ্লেক্স নিয়ে তাতে দুধ ঢালতে গেলে ছিটিয়ে পড়ে এদিক সেদিক। তাই একটা চামচ উলটা করে ঢালতে হবে তাহলেই আর ছিটিয়ে পড়বে না।

১২. ড্রাই পিজ্জা খেতে ভুল

পিজ্জা বাড়িতে রাখলে অনেক সময় ড্রাই হয়ে যায়। শক্ত হয়ে যায়। স্বাদ নষ্ট হয়ে যায়। তাই এই সমস্যার সমাধান ও রয়েছে। একদম গরম গরম পিজ্জার মত স্বাদ ফিরিয়ে আনতে হলে হাফ মগ পানি সাথে ওভেনে দিতে হবে পিজ্জা তাহলে পানি বাষ্প হয়ে পিজ্জা কে জুসি করে দেবে আগের মত যেনো মাত্রই বানানো হয়েছে। 


১৩. আইসস্ক্রিম খাওয়াতে ভুল

আইস্ক্রিম পছন্দ করে না এমন মানুষ খুব কম আছে। ছোট বড় সকলের প্রিয় একটি খাবার আইসস্ক্রিম। কিন্তু আইস্ক্রিম খাওয়ার একটি সমস্যা হল এটি গলে পড়ে ও ড্রেসে পড়ে অনেক সময় ড্রেসে দাগ হয়ে যায়। ছবিতে দেখানো হয়েছে। প্যাক খুলে ফেলে না দিয়ে কাঠির সাথে নিচে লাগিয়ে রাখলে রস গলে নিচে পড়বে না।

১৪. আপেলের বোটা ছাড়ানোতে ভুল

আপেল একটি সুস্বাদু ফল। আমরা সকলেই আপেল খেতে পছন্দ করি। আপেলের বোটা ছাড়ানোর জন্য আমরা ছুঁরি ব্যবহার করি কিন্তু বোটা ধরে আপেলকে কয়েকবার ঘোরালেই তা সুন্দর ভাবে খুলে চলে আসে। এবার বোটার কাছে আঙুল দিয়ে চাপ দিলেই তা দুই খন্ড হয়ে যাবে। কোনো ছুঁরি ছাড়াই এটি করা সম্ভব।

১৫. নাটেলার মিল্কশেক খেতে ভুল

নাটেলা একটি জনপ্রিয় ও মজাদার খাবার। চকলেট ক্রিম যা ব্রেড ও কুকিজ বা এমনিতেও খাওয়া যায় অনেক সময় কেক বা মিল্কশেক বানাতেও প্রয়োজন হয়। ফুরিয়ে গেলেও বোতলের মধ্যে এদিক সেদিক অনেকটা লেগে থাকে যা বের করা যায় না সহজে। তাই গরম দুধ ঢেলে একটু ঝাঁকিয়ে বানিয়ে ফেলতে পারেন আরেক গ্লাস মিল্কশেক।

১৬. স্নিকার কুকিজ খেতে ভুল

স্নিকার মজাদার একটি স্নাক্স যা নাটেলার মত প্যকে থাকে বা আরো বড় প্যাকে থাকে। কুকিজ দিয়ে স্নিকারস খেতে বেশ মজা। যা আমরা সচারচর খাই না বা এভাবেও যে খাওয়া যায় জানি না। স্নিকার ডিপ ফ্রিজে রেখে ঠাণ্ডা করে ছুরি দিয়ে কেটে দুইটা কুকিজের মাঝে দিয়ে খেতে বেশ মজা।

১৭. চকলেট পাই কুকিজে ভুল

চকলেট পাই কুকিজ একটি জনপ্রিয় কুকিজ। আমরা প্যাকেট থেকে বের করে খেয়ে ফেলি কিন্তু জানিনা আরো মজাদার ভাবে এই কুকিজ খাওয়া যায়। ওভেনে যদি এই কুকিজ দিয়ে কিছুক্ষন গরম করা যায় তাহলে তা আরো ক্রিমি হয় এবং খেতেও আরো বেশি মজার। কেনো না এটি নরম হয়ে যায় ও ভেতরের ক্রিম গলে মোলায়েম করে দেয়।


১৮. অরিও কুকিজে ভুল

অরিও কুকিজ বেশ মজাদার ও জনপ্রিয় আরেকটি স্নাক্স। দুধ দিয়ে মিশিয়ে অনেকেই খান। কিন্তু দুধের গ্লাসে মেশাতে গেলে হাতে দুধ লেগে যায় বা নিচে পড়ে যায়। কিন্তু ছবিতে যেভাবে দেখানো হয়েছে এভাবে যদি একটা কাটা চামচ দিয়ে খান তবে সহজ হয়ে যাবে খাওয়া।

 ১৯. চা'য়ের কাপে সুগার প্যাক মেশানোতে ভুল

চা পান করতে সবাই ভালবাসি। চা একটি গরম পানিও যা প্রশান্তি যোগায়। চা এর স্বাদ নির্ভর করে এর চিনির উপরে। কেও চিনি কম খায় আবার কেও বা বেশি। এই চিনি প্যাক আকারে থেকে থাকে। যার যতটুকু দরকার নিয়ে মিশিয়ে নেয়। কিন্তু সুগার প্যাক কেটে ঢালার নিয়ম ই আমাদের ভুল। মাঝে কেটে ঢালতে হয় ছবির মত।

২০. ব্রেডে বিফ বেকনে ভুল

অনেকেই বেকন তৈরি করে ব্রেডের উপরে দিয়ে কুক করে খায়। এটি মজাদার একটি খাবার। তবে অনেকেই জানেন না কিভাবে উপরে দিয়ে তা সম্পূর্ণ জায়গা জুরে থাকবে ও প্রতি বাইটে মুখে পড়বে। খুব সহজ। গোল বেকন গুলো হাফ করে কেটে নিয়ে বিপরীত দিক করে বসিয়ে দিন। ছবিতে দেখুন কিভাবে।

২১. গাড়ি পার্কিং এ ভুল

গাড়ি আমাদের দৈনিন্দ্য জীবনের একটি অংশ। গাড়ি ছাড়া দুরের রাস্তা ভাবাই যায় না। অনেকেই নিজেদের গাড়ি ব্যবহার করেন। প্রাইভেট কার। গ্যারেজে রাখতে গিয়ে সামনে না দেখতে পেয়ে অনেক সময় সামনে বাধিয়ে দিয়ে ক্ষতি করে ফেলি ভেঙ্গে যায় বা রঙ চটে যায়। তাই এমন যেনো না হয় সেজন্য একটি বল দূরত্ব অনুযায়ী উপরে দড়ির সাথে বেঁধে দিলে আর এমন হবে না।

২২. পাপোষে পা বেঁধে যাওয়াতে ভুল

বাড়িতে রুমে পাপোষ থাকবেই এটা স্বাভাবিক। কিন্তু হাঁটা চলা করতে গিয়ে বারবার পা বেঁধে যাওয়াটা অস্বাভাবিক। তাহলে একে স্বাভাবিক করতে হলে নিশ্চই সহজ নিয়ম চাই। পাপোষের নিচে কোণায় টু ওয়ে টেপ লাগিয়ে দিন। তাহলে দেখবেন আর উঠে যাবে না বা পা'য়ের সাথে লেগে বারবার বেঁধে যাবে না।

২৩. গাম টেপ খোলাতে ভুল

গাম টেপের ব্যবহার বেশ অনেক। নানা কাজে অকাজে গাম টেপ প্রয়োজন হয়। কিন্তু একটা সমস্যা হলো ব্যাবহার শেষে আর এর মাথা খুজে পাওয়া যায় না। তাহলে উপায়? উপায় আছে খুব সহজ। টেপ ব্যাবহার শেষ হলে মাথায় একটা পিন লাগিয়ে রাখুন তাহলে আর খুঁজতে হবে না।

২৪. হেডফোন কানে দেয়াতে ভুল

এই প্রযুক্তির যুগে এক অনন্য নাম হেডফোন যা ছাড়া আজ কালের ছেলে মেয়েদের চলেই না। কিন্তু মজার ব্যাপার হলো তারা অনেকেই জানে না হেডফোন কানে দেয়ার সঠিক নিয়ম। সাধারনত কানের পেছন দিয়ে ঘুরিয়ে কানে দেয়া হল সঠিক নিয়ম যা প্রায় সবাই ভুল করে থাকে। 

২৫. হাব এর ব্যাবহারে ভুল

অফিস বা বাড়িতে অনেকেই হাব ব্যাবহার করে থাকি আমরা কিন্তু হাব কোন পোর্টে কোন ইউএসবি লাগাতে হবে তা অনেক সময়ই কনফিউজিং। তাই ইউএসবি গুলোর তারে কাগজে নাম লিখে রাখুন কোনটি কোন পোর্টে দিতে হবে। খুব সহজ। ভুলেও আর ভুল হবে না।

২৬. দেয়াল থেকে পিন বের করাতে ভুল

দেয়ালে অনেক সময় আগে থেকে পিন ঢুকানো থাকে। তা বের করার প্রয়োজন হলে হাতুরি এর অপরপাশ দিয়ে খুব সহজেই বের করা যায় কিন্তু সমস্যা হল হাতুরি তে থাকা মরিচা বা দাগ দেয়ালে লেগে গেলে তা খারাপ দেখায়। তাই হাতুরি বসানোর আগে নিচে একটা ফোম বসিয়ে নিন।তাহলেই এই সমস্যা হবে না।

২৭. দেয়ালে পিন লাগানোতে ভুল

দেয়ালে ছবি বা ঘড়ী বা ক্যালেন্ডার লাগানোর জন্য দেয়ালে পিন লাগাতে হয়। সাধারণত ড্রিল মেশিন দিয়ে এই কাজ করা হয় কিন্তু কত খানি ছিদ্র করতে হবে তা বোঝা যায় না। বেশি হলেও সমস্যা কম হলেও সমস্যা। তাই ড্রিল মেশিনে আগে মাপ দিয়ে নিন তার পর ড্রিল করুন। কাজ সহজ হবে।

২৮. চাবির রিং'য়ে চাবি ঢুকানোতে ভুল

চাবির রিং একটি প্রয়োজনীয় জিনিস। আমাদের সব চাবি গুলোকে একত্রে রাখে ও হারিয়ে যেতে দেয় না। কিন্তু চাবির রিং এ চাবি ঢোকানো সহজ নয়। আমরা হাত দিয়ে জোর করে চাবি ধুকাই। যা ভুল। সঠিক নিয়ম হলো পিন রিমুভার দিয়ে আটকে চাবি ঢুকিয়ে ফেলুন ছবিতে দেখানো নিয়মে।

২৯. হাতে ব্রেসলেট পড়াতে ভুল

হাতে একা একা ব্রেসলেট পড়া সহজ কাজ নয়। এদিকে টানলে ওদিক যায় আর ওদিকে টানলে এদিকে আসে। কিন্তু এটারও একটা সহজ উপায় রয়েছে যা আমরা জানি না। পেপার পিন বাকা করে এক মাথা ঢুকিয়ে আরেক মাথা এগিয়ে এনে সহজেই ব্রেসলেট পড়া যাবে। ছবিতে দেখুন কিভাবে।

৩০. রং এর পাত্রে রঙ ঢালাতে ভুল

রঙ করার সময় রঙ এর পাত্রে রঙ ঢাললে পাত্র সে রঙ ধারন করে যা সমস্যা। কারণ অন্য রঙ আর সে পাত্রে না শুকিয়ে যাওয়া অব্দি ঢালা যাবে না। কিন্তু যদি একটি পলি ব্যাগ পাত্রে নেন ও রাবার ব্যান্ড দিয়ে উপরে বেঁধে দেন তাহলে পাত্রে রঙ হবে না। একটি পাত্র ব্যাবহার করতে পারবেন কয়েকটি রঙ ব্যবহারের জন্য।


সুতরাং এমন আরো অনেক কাজ রয়েছে যেগুলো খুব সহজে সঠিক নিয়ম মেনে করা সম্ভব কিন্তু আমরা ভুল ভাবে করি। আমাদের দৈনিন্দ্য জীবনের এই ভুল গুলো খুবই নগন্য। কিন্তু সঠিক নিয়ম মেনে সব কাজ করাই স্মার্ট মানুষ এর পরিচয়। ভুল করেই শিখতে হবে। তাই নয় কি?

যদি আর্টিকেলটি ভালো লেগে থাকে অবশ্যই শেয়ার করবেন। কেমন লাগলো কমেন্ট করে জানাবেন। আপনিও কোন টিপস জানলে আমাদের সাথে কমেন্টে শেয়ার করবেন।
(Image source credit: 5 minute cafts)

অন্যদের সাথে শেয়ার করুন

0 Comments

দয়া করে নীতিমালা মেনে মন্তব্য করুন ??

সর্বশেষ আপডেটেড অফার পেতে চান?

অর্ডিনারি আইটি কী?